টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চূড়ান্ত সিন্ধান্ত নিয়ে আইসিসি গড়িমসি করায়,বেজায় ক্ষুব্ধ হয়েছিল বিসিসিআই। সমস্ত রাজ্য ভিত্তিক ক্রিকেট সংস্থাকে চিঠি দিয়ে প্রস্তুত থাকতে বলেছিলেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট। আইসিসির সিদ্ধান্তের আগেই বিসিসিআই জানিয়ে দিয়েছিল দর্শকশূন্য মাঠে আইপিএল করতে প্রস্তুত বিসিসিআই। ঘরের মাঠে আইপিএল করার জন্য সবরকম প্রচেষ্টা চালাচ্ছে ভারতীয় বোর্ড। ইতিমধ্যেই স্বাস্থ্যবিধি নিয়েও বিসিসিআই কাজ শুরু করে দিয়েছে বলে জানিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এই পরিস্থিতিতে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া একটি বক্তব্য আইপিএল হওয়ার সম্ভাবনাকে আরও জোরাল করে তুলেছে। মঙ্গলবার সরকারিভাবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার তরফে বলা হয়েছে এ বছর বিশ্বকাপের আয়োজন একপ্রকার অসম্ভব। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার চেয়ারম্যান আর্ল এডিংস বলেছেন,'সরকারিভাবে টুর্নামেন্ট এখনও বাতিল হয়নি। কিন্তু ১৬টা দেশ থেকে ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফদের এনে এই পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ায় টুর্নামেন্ট করাটা আমার মনে হয় অসম্ভব। অত্যন্ত কঠিন তো বটেই'। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এই বক্তব্যের পরই আইপিএল-এর ভাগ্য খুলতে চলেছে বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুনঃক্রিকেট কোচ সুশান্তের ছাত্র এখন রিয়েল লাইফ আইপিএল ক্রিকেটার

অপরদিকে,‘মুম্বই মিরর’-এর  একটি প্রতিবেদন আইপিএলের দিনক্ষণ জানিয়ে দিয়ে দেশবাসীর কৌতুহল আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। কার্যত আইপিএল শুরু ও শেষের তারিখ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ওই প্রতিবেদনে।'মুম্বাই মিরর'-এর ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,আইপিএল শুরু হতে পারে ২৬ সেপ্টেম্বর। চলবে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত। যদিও সূচি নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। এমনকী ভেন্যুও সরকারি ভাবে নির্ধারিত হয়নি। তবে প্রতিবেদন অনুযায়ী, সেপ্টেম্বরেই যদি আইপিএল-এর বল গড়ায়, তা হলে দক্ষিণ ভারতে বেশির ভাগ ম্যাচ হতে পারে। কারণ ওই সময়ে দক্ষিণ ভারতে বর্ষার দাপট থাকবে না। ফলে চেন্নাই, বেঙ্গালুরুকে ভেন্যু হিসেবে দেখা যেতে পারে। 

আরও পড়ুনঃফিরছে ইপিএল,চিনে নিন প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসের সেরা ১০ গোল মেশিনদের

আরও পড়ুনঃ১৭ তারিখ ফিরছে ইপিএল, চোখ বুলিয়ে নিন প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসের সেরা ১০ গোলকিপারদের ওপর

এর আগে বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে আইপিএল শুরুর সম্ভাব্য সময় সেপ্টম্বরের শেষ বা অক্টোবরের প্রথম বলা হয়েছিল। এক সাক্ষাৎকরে আইপিএলের চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল জানিয়েছিলেন, বিসিসিআই সেপ্টেম্বরের শেষে বা অক্টোবরের শুরুতেই পূর্ণ-দৈর্ঘ্যের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগ আয়োজন করতে চাইছে। অর্থাৎ, ভারতীয় বোর্ড বিশ্বকাপ পিছিয়ে যাচ্ছে ধরে নিয়েই নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দেয়। আইপিএল চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা এবছরই কোনওরকম কাটছাঁট না করে পূর্ণ-দৈর্ঘ্যের আইপিএল আয়োজন করতে চাইছি। যদিও আইসিসির সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে রয়েছি আমরা। তবে আমাদের লক্ষ্য,সেপ্টেম্বরের শেষে বা অক্টোবরের শুরুতে আইপিএল আয়োজন করা। প্রথমে ব্রিজেশ প্যাটেলের দাবি ও পরে 'মুম্বই মিরর'-এর প্রতিবেদন হুবহু মিলে যাওয়ায় প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি ২৬ সেপ্টম্বর পড়তে চলেছে আইপিএলের ঢাকে কাঠি।