সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর কেটে গিয়েছে অনেকটা সময়। এখনও অনেকেই মেনে নিতে পারছেন না সুশান্ত আর নেই। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই নিজের অভিনয় দক্ষতার মাধ্যমে দেশবাসীর মনে অনেকটা জায়গা করে নিয়েছেন সুশান্ত। ধোনির বায়োপিক তার কেরিয়ারে অন্যতম মাইলস্টোন। টিভি সিরিয়াল পবিত্র রিস্তা দিয়ে তাঁর অভিনয় জীবনের শুরু। কিন্তু বড় পর্দায় তাঁর যাত্রা শুরু হয়েছিল 'কাই  পো ছে' সিনেমার মধ্য দিয়ে। আর সুশান্তের প্রথম সিনেমার সেই ছোট্ট ছেলেটির কথা মনে আছে? যার কোচের ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল সুশান্তকে। হাতে-কলমে যাকে ক্রিকেটের পাঠ দিয়েছিলেন প্রয়াত অভিনেতা। সেই ছোট্ট দ্বিগবিজয় দেশমুখ বাস্তব জীবনেও হয়ে উঠেছেন ক্রিকেটার। শুধু তাই নয়। চলতি মরসুমে আইপিএলে দ্বিগবিজয়কে দলে নিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

আরও পড়ুনঃক্রিকেট ছিল সুশান্তের রক্তে,হয়ে উঠেছিলেন ক্রিকেটারদের কাছের মানুষ

সাত বছর আগে মুক্তি পেয়েছিল 'কাই পো ছে' সিনেমা। সেই সময় দ্বিগবিজয়ের বয়স ছিল ১৪ বছর। বর্তমানে তার বয়স ২১ বছর। পর্দা থেকে বাস্তব জীবনেও ক্রিকেটার হয়ে উঠেছেন দ্বিগবিজয়। বর্তমানে দ্বিগবিজয় একজন তরুণ পেসার। মহারাষ্ট্রের হয়ে ক্রিকেট খেলেন তিনি। ২০১৯ রঞ্জি ট্রফিতে দ্বিগবিজয়ের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক হয়। ২০১৯-এ মুস্তাক আলি ট্রফিতে খেলেন তিনি। এখনো পর্যন্ত সাতটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। উইকেট নিয়েছেন নটি। একটি ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচে ছয় উইকেট পেয়েছিলেন দ্বিগবিজয়। তার এই পারফরমেন্সের সৌজ্যন্যেই ২০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে দ্বিগবিজয়কে দলে নিয়েছে আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। 

আরও পড়ুনঃফিরছে ইপিএল,চিনে নিন প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসের সেরা ১০ গোল মেশিনদের

আরও পড়ুনঃ১৭ তারিখ ফিরছে ইপিএল, চোখ বুলিয়ে নিন প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসের সেরা ১০ গোলকিপারদের ওপর

'কাই পো ছে' সিনেমার সময় সময় সুশান্তকে দ্বিগবিজয় জানিয়েছিলেন বড় হয়ে ক্রিকেটার হতে চান তিনি। রিল লাইফ হলেও, সুশান্তের হাত ধরেই ক্রিকেটের প্রাথমিক শিক্ষা পেয়েছিলেন দ্বিগবিজয়। সুশান্তের মৃত্যুর খবরে ভেঙে পড়েছেন তিনিও। জানিয়েছেন,'সুশান্ত ভাইয়া আর নেই বিশ্বাস করতে পারছি না। একবার আমাকে সুশান্ত ভাইয়া জিজ্ঞেস করেছিল, তুমি বড় হয়ে কি হতে চাও। আমি তখন বলেছিলাম, ক্রিকেটার। ওকে বলেছিলাম আমি ক্রিকেটার হওয়ার পর তোমার সঙ্গে একবার নিশ্চয়ই দেখা করব। ভেবেছিলাম এবার আইপিএল হলে আমার খেলা দেখার জন্য ডাকব। কিন্তু তা আর হয়ে উঠল না।' যেই ছোট্ট ছেলেটাকে হাতে ধরে ব্যাট ধরা শিখিয়েছিলেন সুশান্ত,সে আজ আইপিএলে সুযোগ পেয়েছেন। কে বলতে পারে আগামী দিনে হয়তো হয়ে উঠে দেশের নামকরা ক্রিকেট তারকা। কথায় বলে মানুষ চলে যায়। থেকে যায় তাঁর কাজ।