চেন্নাই সুপার কিংস দলে করোনা ভাইরাস থাবা বসানোর পর কার্যত রাতের ঘুম উড়েছে বিসিসআইয়ের। স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে এত কড়াকড়ি করার পরও এম ঘটনা ঘটায় স্বভাবতই উদ্বিগ্ন বিসিসিআই ও আইপিএল কর্তারা। চেন্নাই সুপার কিংসের মোট ১৩ জন সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তদের তালিকায় রয়েছেন দলের দুই ক্রিকেটার দীপক চাহার ও ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। তারপরই গোটা দলকে আবার আইসোলেশনে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। আক্রান্ত সদস্যদের রাখা হয়েছে অন্য হোটেলে। কিন্তু এই পরিস্থিতি প্রতিযোগিতায় সিএসকে-র ভবিষ্যৎ ও আইপিএলে করোনার থাবা নিয়ে বিসিসিআইয়ের কি বক্তব্য তা জানার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন সকলে। অবশেষে এই বিষয়ে মুখ খুললেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃআনলক ফোরে দেশে খুলছে ক্রীড়াজগৎ, মাঠে ফিরছে দর্শকও

কলকাতায় রবিরাবর এক বিজ্ঞাপনী শুটিংয়ে ব্যস্তছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। ইডেন গার্ডেন্সে চলছিল শুটিং। তার ফাঁকে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সিএসকে ও আইপিএলে করোনার থাবা নিয়ে বলেন,'সিএসকে-র পরিস্থিতি নিয়ে আমি এখনই কিছু বলতে পারব না৷ কিন্তু সিএসকে শুরু থেকে আইপিএল-এ নামতে পারবে কি না, সেটা দেখতে হবে৷ আমি আশা করি আইপিএল-এর আয়োজন ভাল ভাবেই সম্ভব হবে৷ আইপিএল-এর জন্য আমরা দীর্ঘ সূচি তৈরি করেছি৷ আশা করি সবকিছু ভাল ভাবে মিটবে।' এছাড়াও সৌরভ বলেছেন,'বাস্তব পরিস্থিতির সঙ্গে সবাইকেই মানিয়ে নিতে হবে। গোটা বিশ্ব এই সঙ্কটের মোকাবিলা করছে৷ গোটা বিশ্বে দর্শক বিহীন স্টেডিয়ামেই ক্রিকেট, ফুটবল ম্যাচের আয়োজন হচ্ছে৷ আমাদেরও বাস্তবটা মেনে নিতে হবে।' তবে গোটা পরিস্থিতির উপ বোর্ড নজর রাখছে বলেও জানিয়েছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট।

আরও পড়ুনঃকেন আইপিএল খেললেন না রায়না, অবশেষে জানা গেল আসল কারণ

আরও পড়ুনঃএক যুগ পার ভারতের কোটিপতি লিগের, চিনে নিন আইপিএলের সেরা ১০ কোটিপতিকে

তবে এটা ঠিক যে আইপিএলের অন্যান্য দলের থেকে অনেকটাই পিছিয়ে পড়ল চেন্নাই সুপার কিস। অন্যান্য সাতটি দল যেখানে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে। জোর কদমে চলছে অনুশীলন। কিন্তু সেখানে চেন্নাই দল বিধ্বস্ত অবস্থায় রয়ছে। গোটা দলকে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে সেই পর্ব। তারপর অনুশীলনে নামতে পারবে সিএসকে। মাঝে নিয়মিত হবে করোনা পরীক্ষা। ফলে ১৯ তারিখ চেন্নাই বনাম মম্বাইয়ের প্রথম ম্যাচ খেলার আগে দলকে তৈরি করার জন্য ধোনিদের হাতে থাকবে খবুই অল্প সময়।