Asianet News BanglaAsianet News Bangla

BCCI Diet Plan - বিরাটদের পাতে পড়বে না গরু-শুয়োর, হালাল মাংস চালু করে বিতর্কে বিসিসিআই

ভারতীয় ক্রিকেট দলের (Team India) নতুন খাদ্যতালিকার পরিকল্পনা নিয়ে বিরাট বিতর্কে বিসিসিআই (BCCI)। নিষিদ্ধ গরু (Beef) এবং শুকরের (Pork) মাংস, বাধ্যতামূলক হালাল মাংস (Halal Meat)।
 

Team India new diet plan - BCCI bans Pork and Beef, halal meat compulsory ALB
Author
Kolkata, First Published Nov 23, 2021, 10:29 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে আসন্ন দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের (India vs New Zealand Test Series) আগে, ভারতীয় ক্রিকেট দলের (Team India) নতুন খাদ্যতালিকার পরিকল্পনা নিয়ে বিরাট বিতর্ক তৈরি হল সোশ্যাল মিডিয়ায়। বুধবার জানা যায়, বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া বা বিসিসিআই (BCCI) টিম ইন্ডিয়ার নতুন ডায়েট পরিকল্পনায় গরু (Beef) এবং শুকরের (Pork) মাংস খাওয়া নিষিদ্ধ করেছে। শুধু তাই নয়, এখন থেকে ক্রিকেটারদের শুধু হালাল মাংস (Halal Meat) খেতে হবে, এমনও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিসিসিআই-এর এই সিদ্ধান্ত, ধর্মীয় সম্প্রীতি বিরোধী বলে দাবি করা হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়।
  
কী খেতে পারবেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা, আর কী খেতে পারবেন না? তাদের ফিট এবং সুস্থ রাখার লক্ষ্যে, ব্ল্যাক ক্যাপসদের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগেই নতুন খাদ্যতালিকা পরিকল্পনা প্রকাশ করেছে বিসিসিআই। সেই নতুন খাদ্যতালিকার পরিকল্পনা অনুযায়ী, খেলোয়াড়দের নিজেদের ফিট রাখতে কোনও প্রকারের শুয়োরের মাংস এবং গরুর মাংস খাওয়া চলবে না। ইন্ডিয়া টুডে-র এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, কেউ মাংস খেতে চাইলে, তাকে শুধুমাত্র হালাল মাংসই খেতে হবে। খেলোয়াড়রা চাইলেও অন্য কোনও ধরণের মাংস খেতে পারবেন না।

এরপরই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের একাংশ বিশ্বের সবথেকে ধনী ক্রিকেট বোর্ডের বিরুদ্ধে ধর্মীয় বৈষম্যমূলক পদক্ষেপ গ্রহণের অভিযোগ তুলেছে। অনেকেই এই নতুন নিয়ম জারির পিছনে কী উদ্দেশ্য রয়েছে, সেই প্রশ্ন তুলেছে। অনেকে মনে করছেন, বিসিসিআই যে হালাল ছাড়া অন্য সব ধরনের মাংস নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা হিন্দু (Hindus) সম্প্রদায়ের ভাবাবেগে আঘাত করবে। মুসলমানদের (Muslims) ক্ষেত্রে অবশ্য, ধর্ম অনুসারে হালাল মাংস খাওয়াই দস্তুর। বিশ্বকাপের সময়, অন্য়ান্য অনেক দলের মতো ভারতও, বর্ণ বিদ্বেষ, জাতি বিদ্বেষ বিরোধী বার্তা দিতে হাঁটু মুড়ে বসেছে। এখন, এই নয়া নির্দেশের পর প্রশ্ন উঠছে বৈষম্যের বিরুদ্ধে বার্তা দিয়েও, সেই বৈষম্যের রাস্তাতেই চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। বিজেপির মুখপাত্র গৌরব গোয়েল টুইটে বলেন, এই সিদ্ধান্ত দেশের জন্য ভাল নয়। 

কাকে বলে হালাল মাংস?

আরবি ভাষায় হালাল কথাটির অর্থ হল অনুমোদিত। সেই খাবারগুলিকেই হালাল খাদ্য বলা হয়, যেগুলি কোরানে ইসলাম ধর্মের যে নিয়ম বেঁধে দেওয়া হয়েছে, তা মেনে চলে। ইসলাম ধর্মে বলা হয়েছে, পশু বা হাঁস-মুরগি জবাই করতে হবে, তাদের জগুলার শিরা, ক্যারোটিড ধমনী এবং শ্বাসনালী কেটে। জবাই করার সময় পশুদের অবশ্যই জীবিত এবং সুস্থ থাকতে হবে। আর দেখতে হবে, মাংস কাটার আগে মৃতদেহ থেকে যাতে সমস্ত রক্ত বের হয়ে যায়। তাহলেই তাদের মাংস ভক্ষণ করা যাবে। এই পদ্ধতিতে হত্যা করা পশু-পাখির মাংসকেই বলা হয় হালাল মাংস। অন্য কোনওভাবে পশুপাখি হত্যা করা হলে, তার মাংস খাওয়া ইসলামে নিষিদ্ধ।  

তবে, ক্রিকেট ফ্যানরা এর জন্য বিসিসিআই-কেই দায়ী করলেও, জানা গিয়েছে, এই নতুন ডায়েট প্ল্যান তৈরি করেছে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টই। তারাই, বিসিসিআই-এর মাধ্যমে সিরিজের আয়োজক বোর্ডকে ক্যাটারিংয়ের প্রয়োজনগুলি জানায়। এই ক্ষেত্রে ঘরের মাঠে খেলা বলে, বিসিসিআই-ই তার ব্যবস্থা করবে ।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios