টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না আইপিএল। কোনটা হবে এই বছর। এই নিয়ে জল্পনা অব্যাহত। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ হওয়ায় উজ্জ্বল হয়েছে আইপিএল হওয়ার সম্ভাবনা। তবে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না নেওয়ায় ক্ষোভ বাড়ছে বিসিসিআইয়ের অন্দরে। এবার অস্ট্রোলিয়ার সংবাদ মাধ্য দাবি করল, এই বছর নিশ্চিৎভাবে হচ্ছে না টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তার পরিবর্তে আয়োজিত হবে আইপিএল। আইসিসির ঘোষণার আগে অজি সংবাদ মাধ্যমের এই রিপোর্টের পরই আরও বাড়ল চলতি বছরে আইপিএল হওয়ার সম্ভাবনা।

আরও পড়ুনঃআজ ৩৯ তম জন্মদিন ধোনির, বিশেষ শুভেচ্ছা বার্তা বিসিসিআই ও চেন্নাই সুপার কিংসের

অস্ট্রলিয়ার সংবাদ মাধ্যম দাবি করেছে, বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা এই সপ্তাহেই বিশ্বকাপ স্থগিত করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে পারে ৷ বিশ্বকাপের পূর্ব ঘোষিত ক্রীড়া সূচি অনুযায়ী চলতি বছরের১৮ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল টি-২০ বিশ্বকাপ। ফাইনাল ছিল ১৫ নভেম্বর। কিন্তু করোনা ভাইরাস মহামারীর জেরে বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাওয়া সম্ভব নয়। সেই কারণেই এই বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সম্ভব হবে না টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজন করা। ফলে অজি সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী সেই সময় নিশ্চিৎভাবে আয়োজিত হবে আইপিএল।

আরও পড়ুনঃধোনির জন্মদিনে প্রকাশ পেল ডিজে ব্রাভোর 'হেলিকপ্টার সং',মাহিকে বললেন ‘ব্রাদার ফ্রম অ্যানাদার মাদার’

আরও পড়ুনঃক্রিকেট,প্রিয় বান্ধবী থেকে খাদ্য, জন্মদিনে ধোনির অজানা কিছু তথ্য

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী,ইতিমধ্যেই সেই সময় অস্ট্রেলিয়া দলের ক্রীড়া সূচিও ঠিক করে ফেলেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। সেই সময়
 আইপিএলের আগে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজ ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে স্মিথ, ওয়ার্নাররা। ফলে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদ মাধ্য যে দাবি করছে তাতে আইপিএলের সম্ভাবনা আরও বাড়ল। ইতিমধ্যেই দেশের মাটিতে না হলেও, বিদেশের মাটিতেও আইপিএল করতে প্রস্তুত বিসিসিআই। ইতিমধ্যেই শ্রীলঙ্কা ও সংযুক্ত আরব আমিরশাহির পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডও আইপিএল আয়োজনের জন্য বিসিসিআইকে প্রস্তাব দিয়ে রেখেছে। ফলে আইসিসির সরকারিভাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিলের পরই ঠিক হয়ে যাবে ২০২০ মরসুমের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ভাগ্য।