করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্ব জুড়ে বাড়ছে মৃত্য়ু মিছিল। ভারতেও থাবা  বসাচ্ছে কোভিড ১৯ ভাইরাস। ইতিমধ্যেই মারণ ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা এদেশে ৫৬০ ছাড়িয়েছে। বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চলছে সচেতনতার প্রচার। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও নিজেকে ঘরবন্দি করে রাখাই এই মহামারী ভাইরাস থেকে বাঁচার একমাত্র পথ। তাই রবিবার দেশ জুড়ে জনতা কার্ফুর ডাক দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জনতা কার্ফুর সাফল্যের পর মঙ্গলবার রাতে দেশ জুড়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করতে ২১ দিনের লক টাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বুধবার থেকে শুরু হয়েছে এই লক ডাউন। দেশের ভালর জন্য, দেশবাসীর ভালোর জন্য,  দেশের ভবিষ্যতের জন্য এই লকডাউন মেনে চলার অনুরোধ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। 

আরও পড়ুনঃপর্তুগালে করোনা মোকাবিলায় ১ মিলিয়ন ডলার দান করলেন সি আর সেভেন

আরও পড়ুনঃদিদির পাশে দাদা, করোনা যুদ্ধে সামিল হবে ইডেন

প্রধানমন্ত্রীর লকডাউন ঘোষণার পরই বিভিন্ন ক্ষেত্রের সেলিব্রিটিরা জনগণের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছেন লকডাউন যথাযথ ভাবে পালনের জন্য। বুধবার সকালে নিজের টুইটার হ্যান্ডল থেকে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন ভারত ক্রিকেট অধিনায়ক বিরাট কোহালি। সঙ্গে রয়েছেন বিরাট পত্নী অনুষ্কা শর্মাও। । চেয়ারে পাশাপাশি বসে দেশবাসীর উদ্দেশে করোনাভাইরাস থেকে সাবধানে থাকার বার্তা দিচ্ছেন তাঁরা। সেই ভিডিয়ো শেয়ার করে কোহালি লিখেছেন, ‘‘এটাই পরীক্ষার সময়। পরিস্থিতির ভয়াবহতা দেখে আমাদের জেগে উঠতে হবে। আসুন সবাই একত্রিত হই। যা বলে হয়েছে মেনে চলি।’’

 

 

এই প্রথম নয়, দেশ জুড়ে করোনা ভাইরাস নিজের প্রকোপ বিস্তারের সঙ্গে সঙ্গে সামাজিক সচেতনা বৃদ্ধির জন্য এগিয়ে এসেছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। একধিকবার সোশাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়েছেন বিরাট। জনতা কার্ফুর সমর্থনের জন্যেও সোশাল মিডিয়ায় ভিডিও শেয়ার করেছিলেন বিরাট-অনুষ্কা জুটি। এবার ২১ দিনের কঠিন লড়াই, কিন্তু সেই লড়াই জিততেই হবে  দেশবাসীকে। তাই দেশবাসীকে একসঙ্গে লড়াইয়ের আহ্বান জানালেন বিরাট কোহলি।

আরও পড়ুনঃআধুনিক ক্রিকেটের রান মেশিন বিরাট কোহলির সম্পর্কে প্রাক্তনদের সেরা ১০টি উক্তি