তার দল জুভেন্তাসের তিন জন প্লেয়ার করোনা আক্রান্ত। এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছে ড্যানিয়েল রুগানি, ব্লেইজ মাতুইদি, পাওলো দিবালা। ড্যানিয়েল রুগানির করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরের পরেই আতঙ্কিত হয়ে দলের অন্যতম তারকা প্লেয়ার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ইতালি থেকে দেশে ফিরে সেলফ কোয়ারেন্টাইনে চলে যান সি আর সেভেন। বেশ কয়েক দিন আইসোলেশনে থাকার পর করোনা টেস্ট নেগেটিভ আসে রোনাল্ডোর। কিন্তু বিশ্ব জড়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগে ছিলেন তিনি। পর্তুগালেও নিজের মারণ থাবা ক্রমেই বিস্তার করেছে কোভিড ১৯ ভাইরাস। এবার দেশের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন ক্রিশ্চিয়ানো।

আরও পড়ুনঃদিদির পাশে দাদা, করোনা যুদ্ধে সামিল হবে ইডেন

রোনাল্ডো ও তার ফুটবল এজেন্ট জর্জ মেনেন্দেস জানিয়েছেন, পর্তগালের করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলাায় ১০ লক্ষ ডলারেরও বেশি দান করার কথা। লিসবনের সান্তা মারিয়া হাসপাতালের দুটো ওয়ার্ডের ১০টা করে বিছানা, ভেন্টিলেটর, হার্ট মনিটর, ইনফিউসন পাম্প ও সিরিঞ্জের ব্যবস্থা করেছেন দু’জনে। এক বিবৃতিতে হাসপাতালের তরফে এই ঘোষণা করা হয়েছে। আর পোর্তোয় সান্তা আন্তোনিও হাসপাতালে ইনটেনসিভ কেয়ারের ১৫ বেডের জন্য প্রয়োজনীয় ভেন্টিলেটর, মনিটর ও অন্যান্য সরঞ্জামের জন্য অর্থ দিয়েছেন তাঁরা। এই তিন ওয়ার্ড তাঁদের নামে করা হবে। সান্তা আন্তোনিও হাসপাতালের অ্যাডমিনিস্ট্রিটিভ কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট পাউলো বারবোসা বিবৃতিতে বলেছেন, “এই উদ্যোগের জন্য রোনাল্ডো ও মেন্দেসকে ধন্যবাদ। দেশের এখন সবার সাহায্য প্রয়োজন। তাই এটা খুব কাজে আসবে।” 

আরও পড়ুনঃ২৮ জন ফুটবল তারকাদের নিয়ে ফিফা ও হু-র করোনা সচেতনতায় প্রচার,ভিডিওতে জায়গা পেলেন সুনীল ছেত্রী

আরও পড়ুনঃআধুনিক ক্রিকেটের রান মেশিন বিরাট কোহলির সম্পর্কে প্রাক্তনদের সেরা ১০টি উক্তি

ইতালি ও স্পেনের মতো না হলেও পর্তুগালেও থাবা বসিয়েছে করোনা। দেশের স্বাস্থ্য পরিষেবাও রীতিমতো চাপে আক্রান্তদের সামলাতে গিয়ে। এই পরিস্থিতিতে রোনাল্ডো ও তার এজেন্ট জর্জ মেনেন্দেসের উদ্যোগকে কুর্নিশ জানিয়েছে পর্তুগাল সরকার। আগামি দিনে প্রয়োজনে আরও সাহায্যে করার আশ্বাসও দিয়ছেন সি আর সেভেন। বিশ্ব জুড়ে আতঙ্ক ও উদ্বেগের মধ্যে রোনাল্ডোর এই মানবিক উদ্যোগে খুশি রোনাল্ডো অনুগামীরা।