শুক্রবার থেকে দেশের প্রথম দিন রাতের টেস্ট খেলতে নামছে ভারত। ইডেনে উন্মাদনার পারদ চরমে। এমন অবস্থায় দাঁড়িয়ে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। গোলাপি বল নিয়ে নিজের একাধিক মত তিনি সংবাদ মাধ্যমের সামনে তুলে ধরলেন। দিন রাতের টেস্ট নিয়ে ইডেনের উন্মাদনা দেখে বিরাটের মনে পরে যাচ্ছে ২০১৬ সালের টি-২০ বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের কথা। টেস্ট ম্যাচ দেখতে এত মানুষ মাঠে আসতে চলেছে, এই তথ্য খুশি করছে ভারত অধিনায়ককে।

 

 

দেখুন ভিডিও - পিঙ্ক বল টেস্টের উন্মাদনা বিরাটের মধ্যেও, কী বললেন ভারত অধিনায়ক

তবে এই আনন্দের মাঝে আছে একটা আশঙ্কাও। বিরাট মনে করছেন ক্রিকেটের বড় ফরম্যাটকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য দিন রাতের টেস্ট একমাত্র বিকল্প হতে পারে না। কোহলি বলছেন, ‘আমার মতে এটা একমাত্র উপায় হতে পারে না। কারণ দিন রাতের টেস্ট সকালের সেশন খেলার টেনশন সরিয়ে নিচ্ছে। দিন রাতের টেস্ট উন্মাদনা নিয়ে আসতে পারে কিন্তু শুধু উন্মাদনা দিয়ে টেস্ট ক্রিকেট থাকবে না। যে মানুষটা টেস্ট পছন্দ করেন না তাঁকে টেনে মাঠে নিয়ে আসা যাবে না। তাই আগে থেকে একটা টেস্ট ক্যালেন্ডার থাকা প্রয়োজন। দিন রাতের টেস্ট বারবার ভাল নয়। ’

আরও পড়ুন - সোনা ও রুপোর মুদ্রায় অতিথি আপ্যায়নে তৈরি সিএবি, ইডেনে পৌঁছাল বিশেষ কয়েন

এখন প্রশ্ন বিরাট কেন এই কথা বলছেন, ভারত অধিনায়ক সব সময় টেস্ট ক্রিকেটের পক্ষে সাওয়াল করেছেন। তাঁর মতে ক্রিকেটের সব থেকে সেরা ফরম্যাট শুধুমাত্র সেরা ক্রিকেটের জন্য বেঁচে থাকুক। যেখানে ক্রিকেট প্রতিভার আসল পরীক্ষা হবে। বিনোদনের জন্য একদিনের ক্রিকেট বা টি-২০ ক্রিকেট আছে।  কিন্তু টেস্ট ক্রিকেট শুধু মাত্র ক্রিকেটের লড়াই। পিঙ্ক বল টেস্ট নিয়ে কোহলি বলছেন, ঘরের মাঠেই তাঁরা প্রথম পিঙ্ক বল টেস্ট খেলতে চেয়েছিলেন। একই সঙ্গে মনে করিয়ে দিচ্ছেন এটা হওয়ার ছিল, তাই হচ্ছে। কিন্তু সম্পুর্ণ তৈরি হয়ে যে তাঁরা মাঠে নামতে পারছেন সেটা মানেন না কোহলি। পিঙ্ক বল টেস্ট সবার আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার পক্ষপাতি ভারত অধিনায়ক। 

আরও পড়ুন - ইডেনে প্রস্তুতির ফাইনাল টাচ, উইকেট দেখে খুশি সৌরভ