করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জিততে বদ্ধপরিকর গোটা দেশ। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাধ্যমত প্রধানমন্ত্রী ও রাজ্যসরকারগুলির তহবিলে অনুদান দিচ্ছেন সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সবথেকে বেশি এগিয়ে আসছেন ক্রীড়া ব্য়ক্তিত্বরা। এবার করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এগিয়ে এলেন ভারতীয় ক্রিকেটের দুই ভাই পাঠান ব্রাদার্স। গরীব মানুষের সাহায্যার্থে এগিয়ে এলেন ইরফান পাঠান ও ইউসুফ পাঠান।

আরওঃকরোনা মোকাবিলায় ১ কোটি টাকার বেশি অনুদান দিল ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন

আরও পড়ুনঃকরোনা যুদ্ধে ৫০ লক্ষ টাকা দিলেন যুবরাজ, রোজ ৫ হাজার লোকের খাওয়ার দায়িত্ব নিলেন হরভজন

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে সচিন তেন্ডুলকর, বিরাট কোহালির মতো ভারতীয় ক্রিকেটাররা এর আগে অর্থ সাহায্য করেছেন। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের মতো কেউ আবার স্থানীয়দের মধ্যে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেছেন। এর আগে স্থানীয়দের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করতে দেখা গিয়েছিল পাঠান ভাইদের। এ বার তাঁরা চাল-আলু বিতরণ করলেন গরিবদের মধ্যে। গরিবদের সাহায্যে ১০ হাজার কেজি চাল ও ৭০০ কেজি আলু দিলেন ইউসুফ ও ইরফান পাঠান। ইউসুফ ও ইরফান বলেছেন, “এই কঠিন সময়ে আমরা সম্ভাব্য সব রকম উপায়ে সরকারের পাশে রয়েছি। আগামী কয়েক দিন খুব গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। দেশের সমস্ত নাগরিককে আমরা ঘরে থাকার আবেদন করছি। নিজেদের ও আশপাশের সবার শরীরের দিকে খেয়াল রাখুন।”

আরও পড়ুনঃঘরবন্দি অবস্থায় বাড়ির উঠোনে বোনের সঙ্গে টেনিস খেললেন রাফায়েল নাদাল, ভাইরাল ভিডিও

রবিবার রাতে দেশ জুড়ে নয় মিনিটের জন্য আলো নিভিয়ে প্রদীপ জ্বালানোর আবেদন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই আবেদনে সাড়া দিয়েছেন দেশবাসী। তবে তার মধ্যেও বাজি ফাটিয়েছিলেন অনেকে। এটাই মেনে নিতে পারছেন না ইরফান। তিনি টুইট করে বলেছেন, “সবকিছুই ভাল ছিল, বাজি ফাটানোর আগে পর্যন্ত।” এর আগে রোহিত শর্মা ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনের মতো ক্রিকেটাররাও বাজি ফোটানোর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন টুইটারে। একইসঙ্গে করোনা মোকাবিলায় দেশবাসীকে একসঙ্গে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন পাঠান ব্রাদার্স।