২০১৯ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপ চলকালীন ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছিলেন ২০১১ বিশ্বকাপের নায়ক যুবরাজ সিং। ভারতীয় বোর্ডের প্রতি তার ক্ষোভও উগড়ে দিয়েছিলেন আবেগ প্রবণ যুবি। তবে সম্প্রতি ফের অবসর ভেঙে ২২ গজে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ২০০৭ টি২০ বিশ্বকাপে ৬ ছক্কার মালিক। তবে কবে তিনি ২২ গজে ফিরবেন এবিষয়ে নিশ্চিৎ কিছু জানা যাচ্ছিল না। কিন্তু এখন মনে হচ্ছে সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আসন্ন সৈয়দ মুস্তাক আলি ঘরোয়া টি২০ প্রতিযোগিতা থেকেই মাঠে ফিরতে চলেছেন যুবরাজ।

সম্প্রতি বিসিসিআইয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে রঞ্জি ট্রফি নিয়ে কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হলেও, সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফি দিয়েই শুরু হবে ঘরোয়া ক্রিকেট মরসুম। ১০ জানুয়ারি থেকে শুরু এই জাতীয় টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। বিসিসিআই ঘোষণার পরই সব রাজ্য ক্রিকেট সংস্থা নিজেদের দল ঘোষণা করে। সেই মতো পঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনও নিজেদের দল ঘোষণা করেছেন। আর সেই দলে সম্ভাব্য ৩০ জনের তালিকায় রয়েছে যুবরাজ সিংয়ের নাম। নেটে দলের সঙ্গে অনুশীলনেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। শুধু ৩০ জনের দলে থাকাই নয়, পঞ্জাব দলের অনুশীলনেও দেখা গিয়েছে যুবরাজ সিংকে। ব্যাটিং নিয়ে খুব একটা সমস্যা না হলেও, ফিটনেস নিয়ে সমস্যা রয়েছে ভারতের বিশ্বজয়ী ক্রিকেটারের।

 

 

তবে সব ধরনের ক্রিকেট থেকেই অবসর ঘোষণা করেছিলেন যুবরাজ সিং। কিন্তু তারপর ফের অবসর ভেঙে ২২ গজে ফিরতে হলে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অনুমতির প্রয়োজন হয়। তবে যুবরাজের সবথেকে কাছের ও প্রিয় অধিনায়ক ও বর্তমান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় তাকে সেই অনুমতি সহজেই দিয়ে দেবেন বলে আশা করা যায়। ফলে ফিটনেস নিয়ে একটি খাটতে পারলেও, যুবি ভক্তদের তাদের প্রিয় তারকাকে ২২ গজে দেখা শুধু সময়ের অপেক্ষা।