প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বিদেশী টি২০ লিগ খেলতে চলেছেন যুবরাজ সিং। বৃহস্পতিবার 'গ্লোবাল টি২০ কানাডা'র ড্রাফ্ট অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে টরন্টো ন্যাশনালস দলে যোগ দিয়েছেন যুবরাজ। অবসরের দিনই তিনি জানিয়েছিলেন এবার সামনের কয়েক বছর বিদেশী টি২০ লিগে 'আনন্দ পাওয়ার জন্য' খেলতে চান। তারপর বিসিসিআই-এর কাছেও এই ব্যাপারে অনুমতি চেয়েছিলেন। সম্ভবত তারপরই ভারতীয় ক্রিকেটারদের বিদেশী টি২০ লিগে খেলার বিষয়ে অবস্থান নরম করেছে ভারতীয় বোর্ড। কারণ শুধু যুবরাজই নন, গ্লোবাল টি২০ কানাডা-তে যুবরাজের দলেই নাম রয়েছে আরেক প্রাক্তন ভারতীয় পেসার মনপ্রীত গনির নামও।

এর আগে আইপিএল-এর স্বার্থ রক্ষার জন্য বিসিসিআই কোনও ভারতীয় ক্রিকেটারকেই বিদেশী লিগে খেলতে দিত না। চলতি বছরেই ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ড্রাফ্টে নাম থাকা সত্ত্বেও ইরফান পাঠানকে সেই লিগে খেলতে দেয়নি বোর্ড। বছর দুয়েক আগে তাঁর দাদা ইউসুফকেও হংকং টি২০ টুর্নামেন্টে খেলার অনুমতি দেওয়া হয়নি। কিন্তু যুবরাজের আবেদনের পর থেকেই এই বিষয়ে বোর্ডের নীতি পরিবর্তনের গুঞ্জন চলছিল। অবশেষে তা হল বলেই মনে করা হচ্ছে।

ছয় দলীয় এই টুর্নামেন্টে অবশ্য এইবার যুবরাজের পাশাপাশি বিশ্ব ক্রিকেটের, বিশেষ করে টি২০ ফর্ম্যাটের বেশ কিছু বড় নাম যোগ দিয়েছেন। যুবরাজের ন্যাশনালস দলেই রয়েছেন ব্রেন্ডন ম্যাকালাম, কিয়েরন পোলার্ড। এছাড়া ক্রিস গেইল ও আন্দ্রে রাসেল (ভ্যাঙ্কুভার নাইটস), সুনিল নারাইন, ফাওয়াদ আহমেদ (মন্ট্রিয়েল টাইগার), ক্রিস লিন, ডোয়েন ব্রাভো (উইনিপেগ হকস), কেইন উইলিয়ামসন, ফাফ ডু প্লেসিস (এডমন্টন রয়্যালস) শাহিদ আফ্রিদি, ড্যারেন সামি এবং সাকিব আল হাসান (নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি ব্র্যাম্পটন উলভস)-রাও খেলবেন এই লিগে।

গ্লোবাল টি২0 লিগের গোটা টুর্নামেন্টটাই আয়োজিত হবে অন্টারিও-র ব্র্যাম্পটন শহর। লিগ শুরু হবে ২৫ জুলাই, চলবে ১১ আগস্ট পর্যন্ত। ছয়টি দল প্রথমে রাউন্ড-রবিন ফর্ম্যাটে খেলবে। তারপর হবে প্লেঅফ পর্ব। সব মিলিয়ে মোট ২২টি ম্যাচ খেলা হবে।