করোনা ভাইরাসের জেরে গৃহবন্দি গোটা দেশ। ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে দেশ জুড়ে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। পরিস্থিতি সামাল দিতে এগিয়ে আসছেন সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্টরা। সামাজিক সচেতনতার বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি প্রধনামন্ত্রী ও রাজ্য সরকারের ত্রাণ তহবিলে দান করছেন সকলে। একইসঙ্গে গৃহবন্দি অবস্থা পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন সকলে। বাদ নেই ক্রিকেটাররা। ফের সোশাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সদস্য লেগ স্পিনার যুজবেন্দ্র চাহল। ভিডিওটিতে পরিবারের সঙ্গে খুনশুটি করতে দেখা গেল ভারতীয় ক্রিকেট দলের তারকা বোলারকে।

আরও পড়ুনঃবিপদের দিনে ফুটবল বিশ্বকে সাহায্যের আশ্বাস ফিফার, ঘোষণা করা হতে পারে প্যাকেজ

চাহলের শেয়ার করা ভিডিওটি দেখে হাসির রোল উঠেছে নেটাগরিকদের মধ্যে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছেন, মোবাইলে কথা বলছেন চাহলের বাবা। পেছন থেকে একটি লাঠি নিয়ে চাহলের বাবাকে মারার এগিয়ে আসছেন চাহলের মা। বাবাকে মার খাওয়ার হাত থেকে বাঁচাতে মার লাঠিটি ধরে নেন ভারতীয় লে স্পিনার। চাহলের মা আরও চালাক। কোনও রকম চাহলের বাবাকে খোঁচা দিয়েই লাঠিটি ছেলের হাতে দিয়ে সরে পড়েন। পিছনে ঘুরে ছেলের হাতে লাঠি দেখতে পান বাবা। আর সঙ্গে সঙ্গে ছেলেকে বেদম প্রহার বাবার। মারতে মারতে বাইরে নিয়ে যান চাহলকে। পেছনে দাঁড়িয়ে গোটা ঘটনার মজা নেন চাহলের মা।

 

 

আরও পড়ুনঃকরোনা ভাইরাসের জের, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে এই প্রথম পিছিয়ে গেল উইম্বলডন

আরও পড়ুনঃবাংলাদেশেও জারি করোনার থাবা, ২০০ গরীব পরিবারের দায়িত্ব নিলেন ক্রিকেটার মোসাদ্দেক হোসেন

এই প্রথম নয়। এপ আগেও পরিবারের সঙ্গে মজাদার ভিডিও শেয়ার করেছেন যুজবেন্দ্র চাহল। আগের ১৫ সেকেন্ডের এই ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, বাবার সঙ্গে চহাল একটা মজার কথোপকথনে ব্যস্ত নাচের ফাঁকেই। বাবা জিজ্ঞাসা করেছেন, “তোর রেজাল্টের কী হল?” চহাল বলেন, “বাবা, একটা ভাল আর একটা খারাপ খবর আছে।” বাবার জিজ্ঞাসা, “ভাল খবর কী?” ছেলের উত্তর, “আমি পাশ হয়ে গিয়েছি।” তখন বাবার প্রশ্ন, “আর খারাপ খবরটা কী?” নাচতে নাচতেই চহাল বলেন, “প্রথম খবরটা ভুল।” সঙ্গে সঙ্গে নাচ থামিয়ে চহাল দৌড় দেন। আর তাঁকে ধরতে পিছনে পিছনে দৌড়তে থাকেন তাঁর বাবা। পরিবারের সঙ্গে চাহলের একের পর এক মজাদার ভিডিও ইতিমধ্যেই ভাইরাল সোশাল মিডিয়ায়।