একজন প্রথমসারির পরিচালক, আর একজন টেলিভিশনের পরিচিত অভিনেত্রী। অরিন্দম শীলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন রূপাঞ্জন মিত্র। 'মিট টু' এবার ঢুকে পড়ল টালিগঞ্জেও।

অভিযোগটা ঠিক কী? ছোটপর্দায় অরিন্দম শীল পরিচালিত 'ভূমিকন্যা' সিরিয়ালটি বেশ জনপ্রিয় ছিল। সিরিয়ালে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন রূপাঞ্জনা মিত্র।  অভিনেত্রীর দাবি, সিরিয়ালের প্রথম এপিসোডের স্ক্রিপ্ট পড়ে শোনার জন্য তাঁকে পরিচালকের অফিসে ডাকা হয়েছিল। রূপাঞ্জনা মিত্রের কথায়, 'অরিন্দমের অফিসে যেতেই দেখি, অফিস ফাঁকা, শুধু প্রোডাকশনের একজন ছেলে ছিল।  বিকেল পাঁচটায় অফিস ফাঁকা দেখে একটু অস্বস্তিই হয়েছিল। ঢুকতেই তিনি জিজ্ঞেস করেন, চা খাবি? চায়ের লোকটি চা দিয়ে যাওয়ার পরেই কায়দা করে তাঁকে সেখান থেকে কায়দা করে সরে যেতে বলেন উনি। তখন অফিসে শুধু আমরা দু'জন। আমার ভীষণ আনক্যানি ফিলিং হচ্ছিল।' এরপরই ঘটে আসল ঘটনা।  অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র-এর অভিযোগ, ফাঁকা অফিসে তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করেন পরিচালক অরিন্দম শীল।  তাঁর বসা, কথা সবই 'ভীষণ ইঙ্গিতপূর্ণ' ছিল। শুধু তাই নয়, 'ঘনিষ্ট আলিঙ্গনের মাধ্যমে জনপ্রিয় এই পরিচালক কদর্য ইঙ্গিতও  করেন। 
 
এই ঘটনা নিয়ে ফেসবুকেও দীর্ঘ পোস্ট দিয়েছেন রূপাঞ্জনা মিত্র। তিনি লিখেছেন, 'এটা কোনও খবর নয়, এটি অভিনেত্রী জীবনের আক্ষেপ যে এমন একটি ঘটনা আমার সঙ্গে ঘটেছিল। খারাপ লাগছে এটা ভেবে বহু কষ্টে নিজের একটা জায়গা তৈরি করেছি এই ইন্ডাস্ট্রিতে, সেই জায়গাটাই কিছু মানুষ ক্ষুদ্র করে দিতে চেয়েছিল। চুপ করে ছিলাম, নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করছিলাম। তারপর যেদিন পারলাম, সেদিন সকলের সামনে তুলে ধরলাম মনের কষ্টের এক টুকরোকে। মনে হয়েছিল, এটা যদি না পারি তাহলে ভবিষ্যৎ আমাকে প্রশ্ন করবে কেন একটা সুন্দর সমাজ তৈরি করতে পারিনি আমরা? '

 

 

কী বলছেন পরিচালক অরিন্দম শীল?  অভিযোগ শুনে তাঁর প্রতিক্রিয়া, বন্ধু হওয়া সত্ত্বেও মিথ্যা কথা বলছেন রূপাঞ্জনা। এটা পলিটিক্যাল স্ট্যান্ট ছাড়া কিছুই নেই।  উল্লেখ্য, টালিগঞ্জে ইন্ড্রাস্টির এই জনপ্রিয় পরিচালক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-এর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত। আর লোকসভা ভোটের পর দিল্লিতে গিয়ে বিজেপি-তে যোগ দিয়েছিলেন অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা