কাজের চাপ সব পেশার ক্ষেত্রেই আছে। কিন্তু কোথাও গিয়ে বিভিন্ন পেশার কাজের চাপ বিভিন্ন ভাবে ধরা দেয় কর্মীদের মধ্যে। অভিনয় জগতের ক্ষেত্রেও বিষয়টা অনেকটা জটিল। একটি পর্বের শ্যুটিং-এর পেছনে জড়িয়ে থাকে আরও অনেকগুলো বিষয়। টেকনিশিয়ন থেকে শুরু করে পরিচালক, অভিনেতা অভিনেত্রী, সকলকেই দিন হিসেবে টাকা দেওয়া হয়ে থাকে। 

এক্ষেত্রে অভিনয় জগতে শ্যুটিং-এর দিন যত বেশি হয়, ততই খরচের পরিমানও বেড়ে যায়। তাই তড়িঘড়ি শ্যুটিং শেষ করতে গিয়ে একই সঙ্গে অনেকটা অংশ শ্যুট করা হয়ে থাকে। এমনই পরিকল্পনাতে এবার শ্যুটিং চলছিল মুম্বইতে একটি ওয়েব সিরিজের। সেখানেই মুখ্য ভূমিকাতে ছিলেন অভিনেত্রী গেহানা বশিষ্ঠ। টানা ৪৮ ঘন্টা ধরে শ্যুটিং চলে ওই ওয়েব সিরিজের। ৪৮ ঘন্টা হওয়ার পরই শ্যুটিং ফ্লোর মাথা ঘুরে যায় গেহেনার।

 

 

বৃহস্পতিবার ঘটে এই ঘটনা। তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখানেই ডাক্তার তাঁকে পরীক্ষা করে জানিয়েছিলেন যে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ফলেই অসুস্থ হয়েছিলেন তিনি।  সূত্রের খবর অনুসারে শ্যুটিং-এর কয়েকদিন তিনি কেবল মাত্র এনার্জি ড্রিঙ্ক খেয়েই ছিলেন। যার ফলে সমস্যা আরও বৃদ্ধি পায়। অন্যদিকে জানা যায় যে, তিনি সুগারের অসুধও খেতেন। তা থেকেও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াতে অসুস্থ হতে পারেন তিনি।  তাঁকে আইসিইউতে রাখা হয়েছিল।

বর্তমানে চিকিৎসাতে সাড়া দিচ্ছেন তিনি। ডাক্তারের মতে, এখনও বেশ কিছু পরীক্ষা বাকি রয়েছে। ফলে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। ঝুঁকি বৃদ্ধির সম্ভাবনাও রয়েছে। যদিও বর্তমানে অভিনেত্রী খানিকটা সুস্থতার পথে।