অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর রাতারাতি গোটা বিশ্ব একটি শব্দের সঙ্গে পরিচিত হয়ে যায়, সেটি হলো "নেপটিজম" অর্থাৎ স্বজনপোষণ। শোনা যায়, এই স্বজনপোষণেরই কারণেই বিভিন্ন কাজ থেকে বঞ্চিত হয়ে আত্মহত্যা করেন সুশান্ত। আর সেই থেকেই নেটিজেনদের মধ্যে শুরু হয় এই স্বজনপোষণের বিরুদ্ধে নানান বাক বিতন্ডা।  শুরু হয় স্টারকিডদের তিরস্কার, বিভিন্ন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং মাধ্যম থেকে আনফলো করার কাজ।

এবার আবার বেশ কিছু  স্টারকিডের অভিষেকের অপেক্ষায় বলিউড। এই প্রসঙ্গে প্রথমেই আসে শানায়া কাপুরের নাম। নেটফ্লিক্সের ' গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল ' ছবিতে সহকারী পরিচালকের ভূমিকায় কাজ করেছেন শানায়া। শোনা যাচ্ছে শীঘ্রই করন জোহরের হাত ধরে বলিউডে পা রাখতে চলেছেন শানায়া।

এই বিষয়ে সুহানা খানের নাম অবশ্যই উল্লেখযোগ্য। বলিউডের কিং খানের কন্যা সুহানা, শোনা গেছে ছোটো থেকেই সুহানার অভিনয়ের প্রতি প্রখর আগ্রহ। কিন্তু বাবা কিং খান বলে কথা, বাবা বরাবর চেয়েছেন সুহানা নিজেকে প্রকৃতরূপে প্রস্তুত করে তারপর বলিউডের পথে পা বাড়াক। মেয়েও নিজের প্রস্তুতি হিসেবে ইতিমধ্যেই কাজ করেছেন বেশ কয়েকটি শর্ট ফিল্মে। সুতরাং বলিউডে সুহানার প্রবেশ এখন কেবল সময়ের অপেক্ষা।

অনন্যা পান্ডের ভাই আহান পান্ডে, শোনা যায় আহান ও অনন্যার মতোই অভিনেতা হওয়ার বিষয়ে বেশ সংবেদনশীল। অনন্যার বলিউডে অভিষেক হয় করন জোহরের ব্যানারে, এবার আহানের ভাগ্যে শিকে কবে ছিঁড়বে তা তো সময়ই বলবে?  

কাজল এবং অজয় দেবগনের কন্যা নিশা দেবগন, ছোটোবেলা থেকেই মা এবং বাবা দুজনেই যুক্ত অভিনয়ের সাথে দেখে এবার মেয়েরও ইচ্ছা যে সে তাঁর মায়ের মত অভিনেত্রী হতে চায়। যদিও সোশ্যাল মিডিয়াতে নিশার জনপ্রিয়তা ইতিমধ্যেই চোখে পড়ার মতো। সুতরাং অভিনেত্রী হলে যে নিশা ভক্তদের ভালোবাসার কেন্দ্রস্থলেই থাকবেন এ বিষয়ে আর কোনো সন্দেহই নেই।