মিঠু সাহা, শিলিগুড়িঃ গতকয়েক দিন ধরেই মেধাতালিকা নিয়ে বিভ্রান্তিতে পড়েছে বাংলার বিভিন্ন কলেজ। সানি লিওনিকে দিয়ে শুরু। এরপর একে একে মালদহ, বারাসাত একাধিক কলেজে একই ভাবে মেধাতালিকাতে নাম তুলতে থাকেন সেলেব মহল। ভুঁয়ো তথ্য, ভাইরাল লিস্টে জেরবার কলেজ কতৃপক্ষেরা। এবার সেই তালিকাতে নাম লিখিয়ে ফেলল শিলিগুড়ি কলেজ, তাদের ক্যাম্পাসে পড়ে হাজির ডরেমন ও সিনচ্যান। 

কার্টুন জগতের অন্যতম চরিত্র সিনচ্যান ও ডরেমন নাকি ফিজিক্সে অনার্স নিয়ে পড়াশুনো করতে চায়। শিলিগুড়ি কলেজের প্রভেশনাল মেধা তালিকা অবশ্য তাই বলছে। যা নিয়ে ইতিমধ্যে হইচই পড়ে গিয়েছে শিক্ষা মহলে। নিন্দার ঝড় উঠতে শুরু করেছে বিভিন্ন মহলে। অন্যদিকে, কার্টুন প্রেমীদের মধ্যে হাস্য রসিকতাও শুরু হয়েছে। যদিও কলেজ কতৃপক্ষ অবশ্য এনিয়ে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করার কথা স্পষ্ট করলেন। কলেজ অধ্যক্ষ স্পষ্ট জানিয়েছেন, এবিষয়ে সাইবার ক্রাইম থানার দ্বারস্থ হবেন তারা।

আরও পড়ুনঃ সানি-মিয়ার পর এবার মেধাতালিকাতে নেহা কক্কর, সাইবার ক্রাইম বিভাবে অভিযোগ দায়ের

জানা গিয়েছে, ফিজিক্স, বিসিএ, কম্পিউটার সায়েন্সের মেধা তালিকায় এই দুই কার্টুন চরিত্রের নাম দেখা যায়। একজন সিনচ্যান নোরডা আরেকজন ডরেমন। বিষয়টি কলেজ কতৃপক্ষের নজরে আসতেই তা সরিয়ে ফেলা হয়। এবিষয়ে কলেজ অধ্যক্ষ সুজিত ঘোষ বলেন, প্রভেশনাল মেধা তালিকায় ওই দুটি নাম ছিল। তবে ফাইনাল মেরিট লিস্ট থেকে তা বাদ পড়েছে। কীভাবে এমনটা হল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ জানানো হবে। 

আরও পড়ুনঃ জঙ্গলে ঢুকলে আর রক্ষা নেই, অজানা জন্তুর আতঙ্ক গড়বেতায়

কলেজ অধ্যক্ষ আরও বলেন, এবার ভর্তির আবেদনের ক্ষেত্রে ফি দিতে হয়নি। সেই সুযোগের অপব্যবহার করেই হয়তো কেউ বা কারা এমনটা ঘটিয়েছে। এমনটা কখনও কাম্য নয়। এমন ঘটনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গড়িমা নষ্ট হচ্ছে অনেকাংশে। এমনটাই দাবি জানিয়েছে মালদা কলেজের কতৃপক্ষই। ইতিমধ্যেই সাইবার ক্রাইম বিভাগকে বিস্তারিত তথ্য জানিয়েছে কয়েকটি কলেজ।