শাজাহান আলি, মেদিনীপুর:  জঙ্গলে ঢুকলে আর রক্ষা নেই! অজানা জন্তুর আক্রমণে গুরুতর জখম চারজন। একজনের অবস্থায় আশঙ্কাজনক। হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তাঁর। ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতায়।

আরও পড়ুন: জখম গরু দেখে মনে হয়েছিল বাঘ পড়েছে, রাতের আধার কাটতেই খাঁচাবন্দি ভয়ঙ্কর শিকারি

জানা গিয়েছে, পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা থানার প্রত্যন্ত গ্রাম বহড়াশোল ও শাঁখাবাঈ। দুটি গ্রামই একেবারেই জঙ্গল লাগোয়া। জঙ্গলের উপর নির্ভর করে দিন গুজরান করেন গ্রামবাসীরা। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে অজানা জন্তু উপদ্রবে ঘুম উড়িয়ে দিয়েছে  তাঁদের। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, জঙ্গলে একা দেখলেই হামলা চালাচ্ছে হিংস্র জন্তুটি। এখনও পর্যন্ত তিনজন মহিলা-সহ চারজনকে ঘায়েল করেছে সে।  

আরও পড়ুন: বারাসত পুলিশের সাফল্য, তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ বন্দুক, মোবাইল, বাইক

জঙ্গলে আক্রমণের মুখে পড়ে অজানা সেই জন্তুর সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ লড়াই করেছেন মায়া সিংহ নামে এক মহিলা। মুখ ও নাক ক্ষতবিক্ষত হয়ে গিয়েছে তাঁর। আক্রান্ত মহিলা বলেন, জন্তুটিকে দেখতে অনেকটা ভোঁদড়ের মতো। জঙ্গলে ঢুকতে জন্তুটি অতর্কিত আক্রমণ করে। কাঠের ঢুকরো দিয়ে আক্রমণ প্রতিহত করার চেষ্টা করেন তিনি। গ্রামবাসীদের দাবি, অবিলম্বে জন্তুটিকে চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিক বনদপ্তর। না হলে বিপদ আরও বাড়বে।

এদিকে আবার এই ঘটনার পর আতঙ্কে শিয়ালের মতো দেখতে একটি জন্তুকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছেন গ্রামবাসী। বনদপ্তরের চন্দ্রকোনা রোড এলাকার রেঞ্জার মানসকান্তি ঘোষ জানিয়েছেন, জঙ্গলে সম্ভবত শিয়াল জাতীয় কোনও জন্তুর আক্রমণে মুখে পড়েছেন গ্রামবাসীরা। পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে।