নুসরতের গর্ভের সন্তান তাঁর নয়, সাফ জানিয়ে দিয়েছেন নিখিল জৈন। এবার খোলসা করলেন আরও তথ্য। আনন্দবাজার ডিজিটালকে দেওয়া সাক্ষাতকারে নিখিল জানালেন নুসরতের মা হওয়ার খবর জানার আগেই বিবাহ বিচ্ছেদের আইনী প্রক্রিয়া শুরু করেছেন তিনি। নিখিল বলেন,  যেদিন জানতে পেরেছিলেন, নুসরত অন্য কাউকে পছন্দ করেন, অন্য কারোর সঙ্গে থাকতে চায়, তখনই আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। 

ইতিমধ্যেই টলিউডের অন্দর মহলে গুঞ্জন যে নুসরতের মা হওয়ার খবর পেয়েই বিবাহ বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন অভিনেত্রী-সাংসদের প্রাক্তন স্বামী। তবে সে গুঞ্জনের গোড়ায় জল ঢেলেছেন খোদ নিখিলই। জানিয়ে দিয়েছেন, নুসরতের মা হতে চলার খবর অনেক পরে পেয়েছেন তিনি। তার আগেই দায়ের করা হয়েছে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা। 

নুসরতের পরিবার সূত্রে খবর, আগামী জুলাই মাসেই বিবাহ বিচ্ছেদ মামলার শুনানি রয়েছে আদালতে। আনন্দবাজার ডিজিটালকে দেওয়া সাক্ষাতকারে নিখিল জানিয়েছেন গত ৬ মাস ধরে অভিনেত্রীর সঙ্গে তার কোনও যোগাযোগ নয়। এমনকী নুসরতের গর্ভে যে সন্তান রয়েছে, তার বাবাও তিনি নন। ভবিষত্যে কোনও সম্পর্কও তিনি নুসরতের সঙ্গে রাখতে চান না বলে জানান নিখিল। 

নিখিলের পরিবার জানিয়েছে নুসরত-নিখিলের ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন হয়নি। তাই নুসরতকে আদালতে গিয়ে বলতে হবে, তিনি নিখিলের সঙ্গে থাকতে চান না। গত কয়েকদিন ধরেই টলিপাড়ার অলিতে-গলিতে একটাই কিসসা, মা হতে চলেছেন নুসরত জাহান। তবে সত্যি নাকি নিছকই জল্পনা তা নিয়ে জল্পনা বাড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অন্যদিকে নুসরতের গর্ভাবস্থা নিয়ে একাধিক ফোনে তিতিবিরক্ত নিখিল। এমনকী  নুসরতের গর্ভের সন্তানকে নিজের সন্তান বলে মানতে নারাজ নিখিল, সেকথা সংবাদমাধ্যমকে সটান জানিয়েও দিয়েছেন নুসরতের প্রাক্তন স্বামী নিখিল জৈন।