একেবারে দরজায় কড়া নাড়ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভোট। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে আর হাতে গোণা কয়েকটা দিন বাকি। এক দিকে ভোট নিয়ে যেমন তড়িঘড়ি সাজ সাজ রব, ঠিক তেমনই উল্টোদিকে করোনা পরিস্থিতি মানুষের রাতের ঘুম উড়িয়েছে। এই কঠিন পরিস্থিতিতে ঠিক কীভাবে ভোগ গ্রহণ সম্ভব। হাজার হাজার মানুষের ভিড়ে করোনা কীভাবে সামলানো যাবে তা নিয়েই এখন চিন্তার ভাঁজ সকলের কপালে। 

হাতে আর এক মাসও নেই। কড়া টক্করে সামিল  রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্র‌্যাট প্রার্থী জো বিডেন। এই পরিস্থিতিতেই শক্ত হাতে করোনা সামলাতে নয়া পদ্ধতি সামনে এনেছে পেনসিলভ্যানিয়ার । সেখানে সিক্রেট ব্যালটেই হবে ভোট। কেন্দ্রে কাউকে উপস্থিত হতে হবে না। তাই নেকেড ব্যালটই হবে ভরসা। কিন্তু কী এই নেকেড ব্যালট! এটা বোঝাতেই এবার ক্যামেরার সামনে নেকেড হলেন তারকারা। 

হলিউড স্টারেরা প্রকাশ্যে এসে জানালেন পেনসিলভ্যানিয়ার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ। নিজের ভোট দিয়ে তা খামের মধ্যে সিল করে সুরক্ষিত অবস্থায় পাঠাতে হবে। একেই বলে নেকেড ব্যালট। সাধারণের কাছে তা বেশি বেশি করে পৌঁচ্ছে দেওয়ার জন্য এই নেকেড ব্যালট নিয়ে মুখ খুলেছেন তারকারা। সিল যদি থাকে খোলা তবে সেই ভোট গ্রহণ করা হবে না। মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে ওঠে এই ভিডিও।