২১ অক্টোবর সেজে উঠেছিল ঢাকা। ভারত-বাংলা দেশ চলচ্চিত্র পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা এক ঝাঁক তারকার সমাবেশে এদিন শহরে বসেছিল চাঁদের হাট। টলিউড থেকে ঢালিউড সেরার তালিকা থেকে বাদ পড়েননি কেউই। বেশ কয়েকদিন ধরে পরিকল্পনা করে অবশেষে পরিণতি পায় এই পুরস্কার। দুই দেশের সমন্বয়ে নেওয়া চুরান্ত সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করেই অবশেষে সোমবার তারকাদের সন্মানিত করা হয়। 

সেরার তালিকায় নাম লিখিয়েছেন যাঁরা তাঁদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন জিৎ, কারণ সেরা অভিনেতার পুরস্কারটি তিনি হাতে তুলে নেন। তাঁর ৫০তম ছবি শেষ থেকে শুরুতে অভিনয় করার জন্য এবার এই সন্মানে সন্মানিত হলেন অভিনেতা। 

 

 

তবে ট্রেন্ড বজায় রেখেই অন্যান্য পরিচালকদের পেছনে ফেলে এগিয়ে রইলেন সৃজিত মুখোপাধ্যায়। ২০১৮ পুজোয় মুক্তি পাওয়া ছবি এক যে ছিল রাজা ইতিমধ্যেই একাধিক পুরস্কারে সন্মানিত হয়েছে। এবার ভারত-বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা পরিচালকের স্থান দখল করলেন সৃজিত। 

 

 

সারা বছরে সর্বাধিক জনপ্রিয় ছবি হিসেবে নির্বাচিত হয় দুর্গেশগড়ের গুপ্তধন। চলতি বছরের শুরুতেই এই ছবি মুক্তি পেয়েছিল প্রেক্ষাগৃহে। সেরার তালিকায় নাম লিখিয়ে পুরস্কার হাতে তুলে নিলেন ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবিটি টলিউড বক্স অফিসেও ভালো প্রভাব ফেলেছিল। গল্প থেকে শুরু করে অভিনয়, চিত্রনাট্য এক কথায় বাজিমাত টলিউডে এই ছবি বাজিমাত করেছিল চলতি বছরে।