টলিপাড়ায় আাবার বিতর্ক। ২০১৩-য় অলীখ সুখ ছবিটির জন্য এবার আইনি নোটিশ পাঠানো হল শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়  ও নন্দিতা রায়কে। সুচিত্রা ভট্টচার্যের গল্প অবলম্বনে তৈরি এই ছবি। এবার এই ছবি তৈরি হবে হিন্দি ভাষায়। এতে সমস্যার সূত্রপাত। কোনও রকম অনুমতি  ছাড়াই এই হিন্দিতে এই ছবি তৈরি করায়  প্রয়াত লেখিকা সুচিত্রা ভট্টাচার্যের স্বামী প্রদীপ মুখোপাধ্যায় পরিচালক জুটিকে আইন নোটিশ পাঠিয়েছেন।

প্রদীপ মুখোপাধ্যায়ের আইনজীবী জানিয়েছেন ৮১ লক্ষ টাকার ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে। এছাড়াও  আর্থিক ক্ষতি হিসেবে ১ কোটি টাকা দাবি করা হয়েছে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এই টাকা না দেওয়া হলে আইনি পদক্ষেপ করা হবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী। 

এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, মেসেজ বা ফোনের মাধ্যমে শিবপ্রসাদ ও নন্দিতা রায়কে বার বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাঁরা কোনও উত্তর দেননি। 

প্রদীপ মুখোপাধ্যায় এক সংবাদমাধ্যমের কাছে জানিয়েছেন, আমার অজান্তেই হিন্দিতে এই ছবি তৈরির সত্ত্ব বিক্রি করা হয়েছে বেআইনি ভাবে। লেখিকার যে অর্থ পাওয়ার কথা ছিল  তা কখনওই দেওয়া হয়নি। আমি যতদূর জানি, বাংলাতেও ছবিটি তৈরি করার কোনও অনুমতি ছিল না। যাই হোক বাংলা ছবিটি না হয় বাদ দিলাম। 

কিন্তু হিন্দি ছবি তৈরির ক্ষেত্রে এমনটা হতে দিতে চাইছেন না তিনি। তিনি আরও বলেছেন, এর আগেও আমি সাবধান করেছিলাম। প্রাক্তন ছবির সময়েও আমার স্ত্রীকে ক্রেডিট দেওয়া হয়নি। তখন আমি কোনও পদক্ষেপ করিনি। আমার স্ত্রীর আরও কিছু গল্প নিয়ে ওদের কাজ করার কথা আছে। সেগুলির অনুমোদন আমি ফিরিয়ে নেব। আমি ওদের ১৫ দিন সময় দিয়েছি। এর মধ্যে ওরা জবাব না দিলে আমি আইনি পদক্ষেপ করব। 

আবার অন্যদিকে পরিচালক জুটি নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ও সাঁঝবাতি ছবির পরিচালক লীনা গঙ্গোপাধ্যায় ও  শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়কে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন। তাঁদের দাবি গোত্র ছবির নকলেই তৈরি সাঁঝবাতি। সাঁঝবাতি ছবিতে অভিনয় করছেন দেব, পাওলি ও লিলি চক্রবর্তী।