সারা বিশ্ব জুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে করোনা নামক মারণ ভাইরাস। প্রতিটি মানুষের মনে ত্রাস সৃষ্টি করেছে কোভিড-১৯। সারা বিশ্বজুড়ে ৫,৯৭, ৪৫৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ইতিমধ্যেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা 'হু' বিশ্ব লকডাউনের কথা জানিয়েছে। আর করোনা থেকে দেশবাসীকে বাঁচাতে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশ। তাই গৃহবন্দি দেশবাসীর জন্য দূরদর্শনে ফের ফিরতে চলেছে সেই নস্ট্যালজিয়া। দূরদর্শনের পর্দায় আবার দেখা মিলবে রামানন্দ সাগরের রামায়ণ ও বি আর চোপড়ার মহাভারত।

আরও পড়ুন- লকডাউনে ঘরবন্দি গোটা দেশ, দূরদর্শনে আসতে চলেছে 'রামায়ণ'

যদি আমরা কয়েকটা বছর পিছিয়ে যাই সাত বা আটের দশকে বিনোদের উৎস ছিল দূরদর্শন। সেই সময়ে বেশ কিছু জনপ্রিয় ধারাবাহিক যা দেখার জন্য গোটা পাড়া একজোট হত টিভির পর্দার সামনে। শোনা যেত যেই সময় দূরদর্শনের পর্দায় মহাভারত ধারাবাহিকটি প্রকাশিত হত, রবিবার সেই সময়টিতে রাস্তাঘাট প্রায় ফাঁকা হয়ে যেত লকডাউনের মতোই। তাই লকডাউনের এই সময়ে আবার সেই পরিবারের সঙ্গে পুরনো দিনে ফিরে যেতে দূরদর্শণের পর্দায় ফিরতে চলেছে রামায়ণ, মহাভারত, ব্যোমকেশ বক্সি-সহ আরও অনেক ধারাবাহিক।

আরও পড়ুন- লকডাউনের জের, নির্জনতার সুযোগে সমুদ্র সৈকত দখল করল কয়েক লক্ষ কচ্ছপ

জানা গিয়েছে এই তালিকায় রয়েছে শাহরুখ অভিনীত তাঁর ডেবিউ টিভি শো সার্কাস-ও। ১৯৮৯ সালে দূরদর্শণের এই ধারাবাহিকের হাত ধরেই টেলিভিশন জগতে প্রথম কাজ শুরু করেন বলিউডের বাদশা। ২৮ মার্চ সন্ধে ৮টা থেকে শাহরুখ অভিনীত সার্কাস ধারাবাহিক দেখা যাবে ডিডি ন্যাশানালের পর্দায়। ২৮ মার্চ সকাল ১১টায় দেখা যাবে ব্যোমকেশ বক্সি।  তথ্যও ব্রডকাস্ট কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর এই বিষয়ে জানিয়েছেন, বর্তমানে বিনোদনের নানা মাধ্যম থাকলেও রামায়ণ, মহাভারত, শ্রীকৃষ্ণ, মালগুডি ডেইজ-এর মতো পুরনো সিরিজগুলো এখনও মানুষ ভুলতে পারেননি। তাই দর্শকদের দাবিতে আবারও টিভির পর্দায় ফিরতে চলেছে এই নস্টালজিয়া।