এতদিন হিন্দি, বাংলা সহ বিভিন্ন ভারতীয় ভাষার ছবি  তৈরি হত বিদেশি সেনামার থেকে অনুপ্রাণিত হয়। বহু হিট হিন্দি ছবির ক্ষেত্রে এই উদাহরণ আছে। পিছিয়ে নেই বাংলা ছবিও। অনেক সময়ই বিদেশি সুপারহিট ছবির গল্পের অনুকরণ দেখা যায় বাংলা ছবিতে। কিন্তু এবার এক বিদেশি সিনেমার বিরুদ্ধে উঠল ভারতীয় ছবি নকলের অভিযোগ। তাও আবার যে সে সিনেমা নয়, একেবারে অস্কারজয়ী সিনেমা। এবছর প্রথম এশীয় ছবি হিসেবে অস্কার জিতেছে দক্ষিণ কোরিয়ার সিনেমা প্যারাসাইট। আর সেই ছবির গল্পের সঙ্গে নাকি মিল রয়েছে ১৯৯৯ সালে মুক্তি প্রাপ্ত তামিল ছবি মিনসারা কান্নার।

প্রথম এশীয় ছবি হিসেবে এবার যেমন অস্কার জিতেছে 'প্যারাসাইট', তেমনি ঠবির পরিচালক  জো হুয়ে বং-এর  হাতে উঠেছে সেরা পরিচালকের সম্মান। আরজিনিলা স্ক্রিনপ্লের সন্মানও পেয়েছ এই ছবিটি। আর সেই ছবির চিত্রনাট্যই নাকি চুরি করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তামিল প্রযোজক পিএল থেনাপ্পন। ১৯৯৯ সালে মুক্তি পাওয়া রোমান্টিক কমেডি মিনসারা কান্না থেকে অনেকটাই নেওয়া হয়েছে প্যারাসাইটের গল্প, এমনটাই দাবি করছেন থেনাপ্পন। ছবিটির সবরকম রাইটস তাঁর কাছে আছে বলে জানিয়েছেন প্রযোজক মহাশয়। এই বিষয়ে এবার আইনি পথে হাঁটতে চাইছেন থেনাপ্পন। সেকারণে প্যারাসাইটের নির্মাতাকে আইনি নোটিশ পাঠাতে  আন্তর্জাতিক আইনজীবীদের সাহায্য নিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: 'জনপ্রিয়তায় আমিই সেরা, দ্বিতীয় মোদী', জুকারবার্গকে টেনে ভারত সফরের আগে ফুরফুরে ট্রাম্প

থেনাপ্পন জানান, মিনসারা কান্না ছবিতে অভিনয় করেছিলেন বিজয় ও খুশবু। সেই ছবি থেকে গল্প নেওয়া হলেও কোথাও এই বিষয়ে কৃতজ্ঞতা স্বীকার করা হয়নি। আগামী সপ্তাহেই এই বিষয়ে মামলা দায়ের করতে চাইছেন তিনি। প্যারাসাইটের নির্মাতাদের থেকে ক্ষতিপূরণও দাবি করবেন তামিল প্রযোজক। থেনাপ্পনের সাফ বক্তব্য,  “আমার ছবি থেকে গল্প  চুরি করেছেন ওঁরা। যখন ওঁরা দেখেন আমাদের কোনও ছবি ওঁদের ছবি থেকে অনুপ্রাণিত, ওঁরা মামলা দায়ের করেন। ঠিক একই ভাবে আমরাও করব। এটাই যুক্তিযোগ্য।” 

মিনসারা কান্নার পরিচালক অবশ্য ছবির কপিরাইট নিয়ে মামলা করতে রাজি নন। বরং তাঁর গল্প আন্তর্জাতিক মঞ্চে সমাদৃত হওয়ায় তিনি খুশি।  তিনি বলেছেন, এদেশের ছবি আন্তর্জাতিক স্তরে গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে, এটাই তো বড় ব্যাপার।  তামিল ছবিটিতে  প্রধান চরিত্রে থাকা  অভিনেতা বিজয়ের প্রতিক্রিয়া অবশ্য এবিষয়ে এখনও  পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: কাশ্মীর ইস্যুতে ইমরানের হাত ধরলেন এরদোগান, তুরস্কের প্রেসিডেন্টকে কড়া বার্তা ভারতের

বিজয়, রম্ভা, মোনিকা ও খুবশু অভিনীত মিনসারা কান্নায় সমাজের শ্রেণী বৈষম্যকে কুলে ধরা হয়েছিল। অন্যদিকে  দক্ষিণ কোরিয়ার জাতিপ্রথা ও তার সমস্যা নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘প্যারাসাইট’। দক্ষিণ কোরিয়ার এক গরিব পরিবারের কথা উঠে এসেছে এই ছবিতে। এই পরিবারের সদস্যরা পিত্‍জার বাক্স বানান। আধুনিক জীবনের সঙ্গে তাদের পরিচয় তেমন নেই। একদিন পরিবারের একটি ছেলে আবিষ্কার করে তাদেরই ঘর থেকে মোবাইলে টাওয়ার পাওয়া যাচ্ছে। এই ঘটনার পরই বদলে যায় তাদের জীবন। এই সবই জুন হো এঁকেছেন তাঁর ‘প্যারাসাইট’ ছবিতে। ছবিটি একটি ব্ল্যাক কমেডি থ্রিলার। অস্কারের আগে কান চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কৃত হয়েছে ‘প্যারাসাইট’। এছাড়া গোল্ডেন গ্লোবও জিতেছে ছবিটি।