সম্প্রতি টিকটক অ্যাপটি বেশ জনপ্রিয়। প্রায় প্রতি মোবাইলেই রয়েছে এই অ্যাপটি। ১০০ জনের মধ্যে প্রায় ৯০ জন মানুষ এই টিকটকে আসক্ত। আর এর জন্য তারা নিজের প্রানের ঝুঁকি নিতেও দ্বিধা বোধ করেন না। শুধুমাত্র এই অ্যাপটিকে ঘিরে এত চাঞ্চল্যের কারণে ক্রমাগত বেড়েই চলেছে দুর্ঘটনা। সম্প্রতি এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে। মা-বাবার টিকটক ভিডিও তৈরির ব্যস্ততার কারণে আবারও সে রকমই এক দুর্ঘটনার হাত থেকে কপাল জোড়ে রক্ষা পেল এক শিশু। 

বেশ কয়েকদিন যাবৎ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এই টিকটক ভিডিওটি। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে মা বাবা টিকটকে ভিডিও বানাতে  ব্যস্ত। টিকটকে ভিডিও তৈরির জন্য মা খাট থেকে লাফিয়ে বাবার কোলে  উঠছেন। তবে পিছনে কি ঘটে যাচ্ছে সে ব্যাপারে নজর নেই বাবা মা-র। তাদের তিন বছরের সন্তান যে নিজের মা কে নকল করছে তা চোখে পড়েনি কারও। ঠিক বাবার কোলে মায়ের লাফিয়ে পড়ার কায়দায় নিজের দোতলা খাটের ওপর থেকে লাফ দিল ওই শিশুটি। তবে সৌভাগ্যবশত গদির ওপর পরে যায় সে। পরে ডিগবাজিও খায়। তাই ঘটেনি কোনও দুর্ঘটনা।  কপাল জোড়ে বেঁচে গিয়েছে সে।

এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন রাশিয়ার বোনর গ্যাব্রিয়েল নামের এক মহিলা। ভিডিওটিতে চারিদিকে ভাইরাল হবে ভেবেই সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেছিলেন তিনি। তবে তা হিতে বিপরীত হবে ভাবতেই পারেননি তিনি। নেটিজেনরা বেজায় চটেছেন এই ভিডিওটি দেখে। বাবা-মায়ের এই উদ্দাম টিকটিক প্রেম বড় কোনও বিপর্যয় ডেকে আনতে পারত শিশুটির জীবনে। একটি শিশুর সুরক্ষার ব্যাপারে তার বাবা-মা কিভাবে এতটা দ্বায়িত্ব জ্ঞাণহীন হতে পারেন সেটাই প্রশ্ন সকলের। চলুন দেখে নেওয়া যাক সেই ভিডিওটি।