একের পর এক আত্মহত্যার খবর। আরও এক অভিনেত্রীর রহস্যমৃত্যু। ফের আত্মহত্যা করলেন জনপ্রিয়  অভিনেত্রী শ্রাবণী।  সূত্র থেকে জানা গেছে, গতকাল রাতেই  নিজের বাড়ির বাথরুমে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন  শ্রাবণী। হায়দরাবাদের নিজের বাড়ির বাথরুম থেকেই অভিনেত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা করেছে পুলিশ।  অভিনেত্রীর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানিয়া হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

আরও পড়ুন-ঘাড় ভেঙে গুরুতর আহত, মৃত্যুর মুখ থেকে কীভাবে বেঁচে ফিরেছিলেন অক্ষয়...

হঠাৎ কেন আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নিলেন অভিনেত্রী, এই নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। তবে পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, হেনস্তা ও ব্ল্যাকমেলের কারণেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শ্রাবণী। সম্প্রতি টিকটকে নতুন বন্ধুত্ব হয় দেবরাজ রেড্ডি নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে। ওই ব্যক্তিই শ্রাবণীকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছেন। দেবরাজের জন্যই শ্রাবণী এই কাজ করেছে বলে জানিয়েছে অভিনেত্রীর পরিবার।

 

 

তেলেগু অভিনেত্রী শ্রাবণীকে দীর্ঘদিন ধরে হেনস্তা করছিল দেবরাজ। তারপর থেকেই ক্রমাগত ফোন হুমকি পেতে শুরু করেন অভিনেত্রী। এমনকী গোপন ছবি ফাঁস করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেল করা শুরু করেন দেবরাজ। ছবি ডিলিট করার জন্য টাকাও দাবি করেন ওই ব্যক্তি। তার কিছু টাকাও দেবরাজকে দেন শ্রাবণী। তারপরও থামেননি দেবরাজ। গত ২২ জুন পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন শ্রাবণী। পুলিশকেও বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে তিনি নিজের কাজ করে যান। অভিনেত্রীর সম্মানহানির হুমকিও দেয় দেবরাজ। রাগে অপমানে  আর সহ্য করতে না পেরে তারপরই গতকাল রাতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন শ্রাবণী। পরিবারের পক্ষ থেকে দেবরাজের বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে।