মাছের সঙ্গে বাঙালির আলাদা একটা টান রয়েছে। বেশ কিছু পদের জন্যই সারা বিশ্বে বাঙালির অন্য এক খ্যাতি রয়েছে। খাদ্য রসিক বাঙালির খাদ্য তালিকায় এই স্ন্যাক্সটি একটি অন্য স্থান অর্জন করে আছে। ভালো ফিশ কবিরাজি খাওয়ার জন্য কতজন ভোজনরসিক বাঙালি যে কত ভিন্ন রেস্তোরাঁয় হানা দিয়েছেন তা বোধহয় আলাদা করে বলার জায়গা রাখে না। তাই আজ রইল বাঙালির অত্যন্ত প্রিয় একটি স্ন্যাক্স ফিশ কবিরাজীর রেসিপি। যা আপনি সহজেই রেস্তোরাঁর স্বাদে বানিয়ে নিতে পারবেন বাড়িতেই। রইল রেসিপি

ফিশ কবিরাজী বানাতে লাগবে—

আরও পড়ুন- সস্তায় পুষ্টিকর খাদ্য, প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে বানাতে পারেন এই পদ

৪-৫ টা ভেটকি মাছের ফিলে
১ চা চামচ কর্নফ্লাওয়ার
১ চা চামচ ধনেপাতা বাটা
১ চা চামচ কাঁচালঙ্কা বাটা
৩ টে ডিম
২ চা চামচ ময়দা, 
২ কাপ বিস্কুটের গুড়ো
সামান্য গোলমরিচের গুঁড়ো
১ চা চামচ পুদিনা পাতা বাটা
১ চা চামচ কালো জিরে
স্বাদ মতন লবন
ফ্রাই করার জন্য পরিমান মত সাদা তেল

আরও পড়ুন- বৃষ্টির দিনে পাতে থাক লোভনীয় পদ, বাদশাহী খিচুড়ি দিয়ে জমে উঠুক ভুড়িভোজ

ফিশ কবিরাজি বানানোর পদ্ধতি—

প্রথমে একটা বাটিতে ম্যারিনেশনের জন্য ধনেপাতা ও পুদিনা পাতা বাটা নিয়ে তার থেকে অতিরিক্ত জল ছেঁকে নিন। এরপর এর সঙ্গে কাঁচা লঙ্কা বাটা, এক চিমটে গোলমরিচের গুড়ো, লবন, সামান্য চিনি, ময়দা ও ১ টা ডিম ফাটিয়ে নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে ব্যাটার তৈরী করে নিন। এবার ব্যাটারের মধ্যে মাছের ফিলেগুলো কিছুক্ষন ডুবিয়ে রাখুন । একটা ডিশে বিস্কুটের গুড়ো ঢেলে, তাতে ব্যাটারে ডুবিয়ে রাখা ফিলেগুলোতে কোট করে নিন। এই কোট করার পর অন্ত ৩০ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। অন্যদিকে প্যানে তেল গরম করতে বসিয়ে দিন। এবার অন্য একটা বাটিতে ২ টো ডিম ফাটিয়ে নিয়ে তার মধ্যে সামান্য লবন, কালোজিরে, এক চিমটে গোলমরিচের গুড়ো, কর্নফ্লাওয়ার দিয়ে খুব ভালো করে ফেটিয়ে ব্যাটার তৈরী করে নিন। প্যানের তেল গরম হয়ে এলে তাতে বিস্কুটের গুড়োয় কোট করা মাছের ফিলেগুলো তেলে একটা বা দুটো করে দিয়ে উপর থেকে চামচে করে ডিমের ব্যাটার দিয়ে উল্টে দিন।  উল্টো দিকেও একইভাবে ব্যাটার ছড়িয়ে দুই পাশ ভালো করে ভেজে নিন। স্যালাদ ও কাসুন্দির সঙ্গে গরম গরম সাজিয়ে পরিবেশন করুন ফিশ কবিরাজী।