চূড়ান্ত দিন ঘোষণা না হলেও, জুন মাস থেকেই লিগ শুরু করার পরিকল্পনার নিয়ে এগোচ্ছে লা লিগা কর্তৃপক্ষ। শুরু হয়ে গিয়েছে তোরজোরও। ইতিমধ্যেই প্রশাসনের অনুমতিতে অনুশীলনে নেমে পড়েছে মেসি, সুয়ারেজ, গ্রিজম্যান, পিকে, গ্যারেথে বেল, লুকা মদ্রিচরা। শুধু বার্সা বা রিয়াল মাদ্রিদই নয়, অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে লা লিগার অন্যান্য ক্লাবগুলিও। করোনা আতঙ্ক কিছুটা কাটিয়ে স্পেন স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে। তারপরই ফুটবল শুরুর উদ্যোগ নেওয়া হয় প্রশাসনের তরফে। কিন্তু ফের করোনা আতঙ্ক গ্রাস করছে লা লিগাকে। ৫ জন ফুটবলার আক্রান্ত হলে মারণ ভাইরাসে।

আরও পড়ুনঃ১৬ মে নতুন শুরু,তার আগে জেনে নিন বুন্দেসলিগার প্রথম দশ দলের অবস্থান

আরও পড়ুনঃকরোনা মোকাবিলায় ক্যারেবিয়ান দ্বীপে মানুষের পাশে শাহরুখ খানের দল

লা লিগার তরফে সব ক্লাবের ফুটবলারদের  স্বাস্থ্যপরীক্ষার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। শনিবারই উপরের দিকের ডিভিশনের পাঁচ জন ফুটবলারের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। আক্রান্তদের নাম বা তাঁরা কোন ক্লাবে খেলেন তা গোপন রেখে এক বিবৃতিতে লা লিগার তরফে জানানো হয়েছে, পরবর্তী পরীক্ষা না হওয়া পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত পাঁচ ফুটবলারকে নিজেদের বাড়িতেই থাকতে বলা হয়েছে। তবে তাঁরা একা একা অনুশীলন করতে পারবেন। স্পেনের সংবাদ মাধ্যমের দাবি, আক্রান্তদের তিন জন প্রথম ডিভিশনে খেলেন। বাকি দু’জন দ্বিতীয় ডিভিশনের ফুটবলার।   কয়েক দিন আগেই আতলেতিকো দে মাদ্রিদের ব্রাজিলীয় ডিফেন্ডার রেনান লোদি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি এই মুহূর্তে গৃহবন্দি। আতলেতিকো দে মাদ্রিদের বাকি ফুটবলারেরা অবশ্য অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃশ্রীলঙ্কার পর আরব আমরশাহী,আইপিএল আয়োজন করতে চেয়ে প্রস্তাব বিসিসিআইকে

থেকে। প্লেয়ার, কোচ,সাপোর্ট স্টাফদের সুরক্ষার কথা ভেবে একাধিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন লা লিগা কর্তৃপক্ষ। ম্যাচে পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তনের নিয়ম চালু করার পাশাপাশি ঠিক হয়েছে, ম্যাচ শুরুর আগে ফুটবলারেরা একে অপরের হাত ধরে মাঠে নামতে পারবেন না। মাঠে কেউ থুতু ফেললে হলুদ কার্ড দেখবেন। হাফটাইমের পরে নতুন জার্সি পরে মাঠে নামতে হবে। খেলা হবে ফাঁকা স্টেডিয়ামে। ম্যাচের পরে সাংবাদিক বৈঠক হবে ভিডিয়ো কলের মাধ্যমে। এই সিদ্ধান্তের চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে খবর আসে যে নতুন করে ৫ জনের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এর পরও ফের লা লিগার আকাশে আশঙ্কার কালো মেঘ দেখা দিয়েছে। প্রশ্ন উঠে গেল লা লিগার ভবিষ্যৎ নিয়েও।