কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট কার্যত নিশ্চিতই ছিল জার্মান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের। কারণ, শেষ ষোলোর প্রথম পর্বের ম্যাচে চেলসির মাঠে এসে আয়োজকদের তারা হারিয়ে গিয়েছিল ৩-০ গোলে। একে তো বড় ব্যবধানে জয়, তার ওপর তিনটি অ্যাওয়ে গোল। তার ওপর এফ এ কাপ ফাইনাল খেলতে গিয়ে চোট পেয়েছিল একাধিক চেলসি ফুটবলারেরা। তাই বলতে গেলে প্রত্যেকেই জানতো চেলসি পারবে না। 

আরও পড়ুনঃজেনে নিন ২০০৮ আইপিএলের অধিনায়করা এখন কি করছেন

 বায়ার্ন অবশ্য ম্যাচটিকে এত হালকাভাবে নেয়নি। টমাস মুলার সাংবাদিক সম্মেলনেই জানিয়ে দিয়েছিলেন তারা নির্দয় ফুটবল খেলবেন।  শনিবার রাতে নিজেদের মাঠে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এবছর চার নম্বরে শেষ করা ক্লাব চেলসিকে ৪-১ গোলের ব্যবধানে রীতিমত উড়িয়ে দিয়ে সেই কথাই সত্যি প্রমাণ করলেন থমাস মুলার আর রবার্ট লিয়নডস্কিরা। দুই লেগ মিলিয়ে চেলসিকে বায়ার্ন হারালো ৭-১ গোলের বিশাল ব্যবধানে।বায়ার্নের হয়ে এই ম্যাচে জোড়া গোল করেছেন রবার্ট লিয়নডস্কি। একটি করে গোল এসেছে ইভান পেরেসিচ এবং কোরেন্টিন টোলিসোর পা থেকে। চেলসির হয়ে একটিমাত্র সান্তনাসূচক গোল করেছেন করেন তরুণ স্ট্রাইকার টেমি আব্রাহাম।

আরও পড়ুনঃ'কপিল-ধোনি-কোহলি কেউ নন, ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়'

 কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে এবার হবে শুধুমাত্র এক পর্বের ম্যাচ। পুরোপুরি বিশ্বকাপের আদলে, নকআউট পদ্ধতিতে। বেশ কিছুদিন আগে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউয়েফা। করোনা পরবর্তী সময়ে সতর্কতা হিসাবেই এই ব্যবস্থা। পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ীই বার্সা এবং বায়ার্ন কোয়ার্টারে ফাইনালে উঠলে পরস্পর মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল। শনিবার রাতে দুই দলের বড় ব্যবধানে জয়ের পর বিষয়টা নিশ্চিত হয়ে গেলো। আগামী ১৪ আগস্ট লিসবনে লিওনেল মেসিদের ক্লাব বার্সেলোনার মুখোমুখি হবে জার্মান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ। এই মুহুর্তে ১৩ গোল করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দুর্দান্ত ফর্মে রবার্ট লিয়নডস্কি। তার লক্ষ‍্য থাকবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড ভাঙা।

আরও পড়ুনঃমেসি ম্যাজিকে বাজি মাত বার্সার, কোয়ার্টার ফাইনালে লড়াই বায়ার্নের বিরুদ্ধে