ক্যারেবিয়ান সফরে যাওয়ার আগে মুম্বাইতে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন ভারতীয় দলের কোচ রবি শাস্ত্রী ও অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বিশ্বকাপ উত্তর প্ররিস্থিতিতে সেদিন বিরাট ও শাস্ত্রীকে বারবার একটাই প্রশ্নের মুখে পরতে হয়েছিল। ভারতীয় দলের অনন্দরে কি কোনও দন্দ্ব চলছে? বিরাট শাস্ত্রী সেদিন বারবার একটাই কথা বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন সবাইকে। দলের অধিনায়ক ও সহ অধিনায়র মধ্যে কোনও সমস্যা নেই। সেই সময় বিরাটদের কথা মেনে নিয়েছিলেন সবাই। কিন্তু ক্যারেবিয়ান সফরে আবারও উস্কে ওঠে সেই একই প্রশ্ন।  কারণ টেস্ট সিরিজে বেঞ্চে বসেই কাটাতে হয় রোহিতকে। তাই আবারও সেই একই প্রশ্ন, বিরাট-রোহিত সম্পর্কের জন্যই কি মাঠের বাইরে বসেতে হয়েছিল রোহিতকে? বিরাট এই বিষয়ে কিছু বলেননি। কিন্তু আবারও বিরাট রোহিত দন্দ্ব নিয়ে মুখ খুললেন ভারতীয় দলের কোচ রবি শাস্ত্রী। 

ক্যারেবিয়ান সফর সেরে ফেরার পথে দুবাইতে রবি শাস্ত্রীকে এই প্রশ্ন করা হয়েছিলে সংবাদ মাধ্যমের পক্ষ থেকে। রবি শাস্ত্রী বলেন, ‘একটা দলে যখন ১৫ জন সদস্য থাকে তখন সবার মধ্যে যে মতের মিল হবে এমনটা সম্ভব নয়। মতের অমিল হবে, সেটাই কাম্য।  কিন্তু  মতপার্থক্য মানেই দন্দ্ব, এমনটা ভাবার কোনও মানে নেই।  আমাদের দলে সবার মত প্রকাশের অধিকার আছে। এটা দন্দ্ব নয়। গত পাঁচ বছর ধরে আমি এই দলটার সঙ্গে যুক্ত আমি জানি এই ছেলেরা কি ভাবে দলের প্রয়োজন মত নিজেদের উজার করে দিয়েছে।’ 

দলের অন্দরের দন্দ্বের কথা উড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ভারতীয় দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রীর মতে ক্লাইভ লয়েডের ওয়েস্ট ইন্ডিজ বা স্টিভ ওয়ার দলের ঐতিহ্যকে স্পর্শ করার ক্ষমতা রয়েছে তাঁর দলের। তাঁরা সবাই মিলে সেই ঐতিহ্যের দিকেই এগিয়ে চলেছেন। একই সঙ্গে গত কয়েক বছরে টেস্ট, একদিনের ম্যাচ বা টি২০ ম্যাচে ভারতীয় দল যা পারফর্ম করেছে সেটারও প্রশংসা করেছেন রবি।