মাঠে নামার আগে মাঠের বাইরের লড়াইয়ে এটিকে-মোহনবাগানকে টেক্কা দিল ইস্টবেঙ্গল। ভারতে জনপ্রিয়তার নিরিখে যে ইস্টবেঙ্গল সবচেয়ে এগিয়ে তা আবারও প্রমাণিত হল। আশ্চর্যজনকভাবে তৃতীয় পজিশনে থাকলো মোহনবাগান। 

ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্লাব কোনটি, তারই উত্তর খুঁজে নিতে এএফসি-র তরফ থেকে আয়োজিত হয়েছিল একটি প্রতিযোগিতা।  স্বাভাবিকভাবেই লড়াই যে প্রধানত ইস্টবেঙ্গল বনাম মোহনবাগানের, সেটা সকলেরই প্রত্যাশা ছিল। কিন্তু সকলকে আশ্চর্য করে প্রতিযোগিতার শুরুতেই বেশ খানিকটা এগিয়ে যায় কেরালা ব্লাস্টার্স। পরে ধীরে ধীরে ব্যবধান কমাতে থাকে মোহনবাগান। কিন্তু ইস্টবেঙ্গল শুরুর দিকে ছিল বেশ খানিকটা পিছিয়ে। 

এর পর এএফসি উপলব্ধি করে বেশ কিছু জাল ভোট পড়ছে যা প্রতিযোগিতায় প্রভাব ফেলছে। তৎক্ষণাৎ সেই জাল ভোট হটিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করে এএফসি এবং তার পরেই পুরো চিত্রটা বদলে যায়। বিশাল ব্যবধানে লিড নেয় ইস্টবেঙ্গল। খেই হারিয়ে ফেলে মোহনবাগান। শতাব্দীপ্রাচীন এই ক্লাবকে ছাপিয়ে যায় কেরালা ব্লাস্টার্স সমর্থকদের ভোট। ৪৯ শতাংশ ভোট পেয়ে সবার ওপরে জায়গা করে নেয় লাল-হলুদ সমর্থকরা। তাদের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় দাঁড়াতেই পারেনি সবুজ মেরুন শিবির। শুধু তাই নয় হেরে গেল তুলনামূলক নতুন ক্লাব কেরালা ব্লাস্টার্সের কাছেও। সর্বসাকুল্যে মোহনবাগান পেয়েছে ২১ শতাংশ ভোট। কেরালা ৩০ শতাংশ। ভারতে জনপ্রিয়তার দিক থেকে ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগান এক নম্বর ও দু নম্বরে থাকবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু ভারতে ইস্টবেঙ্গল ছাড়া অন্য কোনও ক্লাব মোহনবাগানের চেয়ে জনপ্রিয়, তা দেখে চমকে গেছেন অনেকেই