আগের ম্যাচে হারিয়েছিলেন ক্লপের লিভারপুলকে। শুধু হারানোই না, রীতিমতো দুরমুশ করে লিগজয়ীদের যেন বার্তা পাঠিয়েছিল পেপ গুয়ার্দিওয়ালার ম্যানচেস্টার সিটি। চলতি লিগে দুর্ভেদ্য লিভারপুল ডিফেন্সকে টপকে ৪ টি গোল করেছিলেন দি ব্রুইন, স্টার্লিং-রা। এহেন সিটি রবিবার মুখোমুখি হয়েছিল সাউদাম্পটনের। চলতি মরশুমের লিগে যারা রয়েছে লিগ টেবিলের নিচের সারিতে। এমন দলের ঘরের মাঠে গিয়ে পয়েন্ট তুলে আনতে কোনও অসুবিধা হবে না এমনটাই আশা করেছিলেন সকলে। কিন্তু বাস্তবে ধরা দিল সম্পূর্ণ অন্য ছবি। 

আরও পড়ুনঃবর্তমান দল থেকে কাকে ২০০৩ বিশ্বকাপ দলে নিতেন,মায়াঙ্কের প্রশ্নের উত্তরে সৌরভ বললেন

সাউদাম্পটনের বিরুদ্ধে তাদের ঘরের মাঠে খেলতে নেমে হেরে বসে ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচের বেশিরভাগ সময় বল ছিল সিটির দখলে। কিন্তু তার মধ্যেও ম্যাচের গতির বিরুদ্ধে ১৬ মিনিটে সাউদাম্পটনকে এগিয়ে দেন চে অ্যাডামস। চারপর হাজার চেষ্টা করেও গোলমুখ খুলতে ব্যর্থ হয় সিটি। ফার্নানদিনহোর শট পোস্টে লাগে। পরে ফিল ফডেন এবং কেভিন দি ব্রুইন-কে নামিয়েও চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। 

আরও পড়ুনঃ'এত হারিয়েছি যে ভারতীয় ক্রিকেটাররা একসময় দয়া ভিক্ষা চাইত',সুস্থ হয়েই ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দাগা শুরু আফ্রিদির

আরও পড়ুনঃচিনে নিন মাঝমাঠের কান্ডারীদের,যারা এই মরশুমে দলের হয়ে ফুল ফুটিয়েছেন

অপর ম্যাচে হারের ধাক্কা কাটিয়ে অ্যাস্টন ভিলা-কে ২-০ গোলে হারায় লিভারপুল। গোল করেন সাদিও মানে এবং জোন্স। ৩ টি সেভ করে ম্যাচের সেরা লিভারপুল গোলরক্ষক অ্যালিশন বেকার। এখনও লিভারপুলের সামনে সুযোগ রয়েছে রেকর্ড পয়েন্ট নিয়ে ইতিহাস গড়ে লিগ জেতার। এর পরের ম্যাচে ব্রাইটনের সঙ্গে খেলা তাদের। উল্টোদিকে এই ম্যাচ হারার ফলে অবনমন একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে গেল ভিলার।