শাহিদ আফ্রিদির করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে উদ্বিগ্ন হয়েছিল ভারতীয়রাও। তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। সম্প্রতি মারণ ভাইরাসের কবল থেকে মুক্তি পেয়েছেন শাহিদ আফ্রিদি ও তার পরিবার। কিন্তু অবাক কাণ্ড সুস্থ হয়ে উঠেই ফের ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দাগা শুরু করে দিয়েছেন প্রাক্তন পাকিস্তান অধিনায়ক। ভারতীয় ক্রিকেট দল সম্পর্কে করলেন বিতর্কিত মন্তব্য। শাহিদ আফ্রিদির দাবি, একসময় পাকিস্তান ভারতীয় দলকে এত হারিয়েছে যে ভারতীয় ক্রিকেটাররা তাদের কাছে দয়া ভিক্ষা চাইত। আফ্রিদির নয়া এই মন্তব্যকে ঘিরেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক।

আরও পড়ুনঃবর্তমান দল থেকে কাকে ২০০৩ বিশ্বকাপ দলে নিতেন,মায়াঙ্কের প্রশ্নের উত্তরে সৌরভ বললেন

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সুস্থ হওয়ার পর প্রথম একটি সোশ্য়াল মিডিয়া চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দেন বুমবুম। সেখানেই আলোচনার সময় স্বাভাবিকভাবেই ভারত ও পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। সেই সময় শাহিদ আফ্রিদি বলেন,‘আমি বরাবর ভারতের বিরুদ্ধে খেলতে পছন্দ করি। ওদের তো ঠিকঠাক মেরেছি আমরা। একসময় ভারতীয় দলকে এত হারিয়েছে পাকিস্তান দল যে,ম্যাচের শেষ ক্ষমা চাইত ভারতীয় ক্রিকেটাররা।’ আফ্রিদি আরও বলেন, ‘ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলা সবসময় উপভোগ করেছি। ওরা বড় দল, ভালো দল। তাই প্রচুর চাপ থাকে। ওদের পরিবেশে গিয়ে পারফর্ম করা সবসময় চ্যালেঞ্জের।’

আরও পড়ুনঃনাচ দেখলে চোখ কপালে উঠবে আপনারও,ফের বিরল প্রতিভার খোঁজ সেওয়াগের

আরও পড়ুনঃবর্তমানে বিশ্বের সব থেকে 'সেক্সিয়েস্ট অ্যাথলিট', জানুন আলিশা স্মিডের কাহিনি

দুই দেশের পরিসংখ্যানে শুধু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট বাদে টেস্ট ও একদিনের ক্রিকেটে পাকিস্তান এগিয়ে ঠিকই। ওয়ানডেতে দুই দলের পরিসখ্য়ান, পাকিস্তান জয়ী ৭৩টি ম্যাচে,ভারত জয়ী ৫৫টি ম্যাচে। দুই দেশের মধ্যে হওয়া ৫৯ টেস্টের ১২টিতে জিতেছে পাকিস্তান। ভারত জিতেছে নয়টিতে। একমাত্র টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে এগিয়ে রয়েছে ভারত। দুই দলের মধ্যে হওয়া আটটি ম্যাচের মধ্যে ছয়টিতেই জিতেছে ভারত। ছবিটা পালটাতে শুরু করে নতুন শতকে। বিশেষ করে শেষ ১০ বছরে ভারত পাকিস্তানকে পিছনে ফেলে দেয় ১০-৪ ব্যবধানে। তাছাড়া আইসিসি বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে পাকিস্তান কখনও হারাতে পারেনি ভারতকে। ফলে ভারতীয় ক্রিকেটাররা হারের পর দয়া ভিক্ষা বা ক্ষমা চাইত আফ্রিদির এই বক্তব্য কোনওভাবেই সমর্থন যোগ্য নয় বলে জানিয়েছেন সকলে।