শুক্রবার কলকাতা ডার্বির ইতিহাসে শুরু হতে চলেছে এক নতুন অধ্যায়। আইএসএলের ইতিহাসে প্রথম ডার্বিতে মুখোমুখি হতে চলেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল ও এটিকে মোহনবাগান। ভারতের সর্বোচ্চ লিগে চিরপ্রতীদ্বন্দ্বী দুই দলের লড়াই ঘিরে চড়ছে উন্মাদনার পারদ। গোয়ার তিলক ময়দান স্টেডিয়ামে একে অপরকে টেক্কা দেওয়ার লড়াইয়ে নামবে কলকাতার দুই প্রধান। একইসঙ্গে যুযুধান দুই কোচ অ্যান্তেনিও লোপেজ হাবাস ও রবি ফাউলারের মস্তিষ্কের লড়াই দেখার অপেক্ষাতেও মুখিয়ে রয়েছে ফুটবল প্রেমিরা।

আইএসলের প্রথম ম্যাচে কেরালা ব্লাস্টার্সকে হারিয়ে অভিযান শুরু করেছে এটিকে মোহনবাগান। প্রথম ম্য়াচে ১-০ গোলে জয় পেলেও, হাবাসের দলের একাধিক ভুল-ত্রুটি সামনে উঠে এসেছিল। মাঝমাঠে সামঞ্জস্যের অভাব থেকে শুরু করে স্ট্রাইকিংয়ে একাধিক মিস, যা নিয়ে একটু চিন্তিত রয়েছে সুবজ-মেরুণ শবিরি। তবে ডার্বির আগে দলকে পুরোপুরি প্রস্তুত করার যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন হাবাস। প্রতিপক্ষকে হুঙ্কারও দিয়ে রেখেছেন রয় কৃষ্ণারা। বড় ম্য়াচে হাবাসের মগজাস্ত্রের উপর ভরসা রাখছে সবুজ-মেরুণ সমর্থকরা। এসসি ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে পছন্দের ৩-৫-২ ছকে দল সাজাতে পারেন আন্টোনিও লোপেজ হাবাস। সব মিলিয়ে মহারণের জন্য প্রস্তুত এটিকে মোহনবাগান।

 

 

অপরদিকে,ডার্বি দিয়েই আইএসএল অভিযান শুরু করতে চলেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। ডার্বি জন্য দলকে পুরোপুরি প্রস্তুত করেছেন লাল-হলুদের ব্রিটিশ কোচ রবি ফাউলার। ইস্ট-মোহন ডার্বি প্রসঙ্গে জানেন লাল-হলুদের বিদেশি কোচ। এই ম্যাচের চাপ যে আলাদা তাও বুঝতে পেরেছেন সমর্থকদের আবেগ দেখে। প্লেয়াররাও এই ম্যাচ নিয়ে আবেগে ভাসেন। কিন্তু ফাওলার তার দলকে আবেগ নয়, মস্তিষ্ক প্রয়োগের কথা বলেছেন রবি ফাওলার। দলের প্রস্তুতিতে কোনও রকম খামতি রাখতে নারাজ রবি ফাওলার। তাই অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে এসসি ইস্টবেঙ্গল প্লেয়ারদের অনুশীলন করিয়েছেন তিনি। আমেরিকা থেকে বিশেষ ক্যামেরা ‘হাই-পড’ আনিয়ে দলকে  অনুশীলন করিয়েছেন। প্রথম ইস্ট-মোহনের ডার্বি খেলবেন লাল-হলুদের অনেক প্লেয়ার। বিশেষ করে বিদেশিরা। তাই প্রথম ডার্বিতে নিজেদের  উজার করে দিতে চান পিলকিংটন, ড্যানি ফক্সরা। ডার্বি দিয়ে মরসুম শুরুর চাপ থাকলেও, তাতে মাথা না ঘামিয়ে ডার্বি জয় দিয়ে মরসুম শুরু করতে মরিয়া লাল-হলুদ শিবির।

 

 

ম্যাচ প্রেডিকশন-
মরসুমে ইতিমধ্যেই একটি ম্যাচ খেলে ফেলেছে এটিকে মোহনবাগান দল। দলগত বিচারেও তারা অনেক বেশি তৈরি। কোচ হাবাসেরও বড় ম্যাচ কেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। অপরদিকে ইস্টবেঙ্গল সম্পূর্ণ নতুন দল। কোচ রবি ফাউলারও কোচ হিসেবে পরীক্ষিত নয়। সবদিক বিচার করে ফুটবল বিশেষজ্ঞরা কিছুটা এগিয়ে রাখছে এটিকে মোহনবাগানকে।