মেসি ও রোনাল্ডিনহোর বন্ধুত্বের কথা আগে থেকেই জানত ফুটবল বিশ্ব। আন্তর্জাতিক ফুটবলে তারা চিরপ্রতীদ্বন্দ্বী দুই দেশের প্লেয়ার হলেও, ক্লাব ফুটবলে দীর্ঘদিন খেলেছেন একসঙ্গে। বার্সেলোনায় মেসির ফুটবল জীবনের শুরুর দিকে মেসির বন্ধু ও মেন্টর ছিলেন রোনাল্ডিনহো। পায়ের জাদুতে বহু ম্যাচের  রং বদলেছেন মেসি-রোনাল্ডিনহো জুটি। মাঠের  বাইরেও তাদের বন্ধুত্ব গভীর। এবার বন্ধুর বিপদে পাশে দাঁড়ালেন লিও মেসি। জাল পাসপোর্ট রাখার অভিযোগে  সম্প্রতি প্যারাগুয়েতে গ্রেফতার হন প্রাক্তন ব্রাজিলিয়ান তারকা রোনাল্ডিনহো। তাঁকেই ছাড়াতে এবার আসরে নামলেন মেসি। বন্ধু রোনাল্ডিনহোকে ছাড়াতে ৩৩ কোটি টাকা খরচ করছেন লিও।

আরও পড়ুনঃ করোনার থাবায় স্তব্ধ ক্রীড়া বিশ্ব, চলছে শুধু 'খেলা ভাঙার খেলা'

জাল পাসপোর্ট রাখার অভিযোগে প্যারাগুয়ের রাজধানী আসুনসিওন থেকে গ্রেফতার করা হয় বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার রোনাাল্ডিনহোকে। তার সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় তার ভাই রবের্তোকেও। জানা যায় পরিবেশ দূষণের অপরাধে সম্প্রতি পাসপোর্ট বাতিল হয়ে যায় রোনাল্ডিনহোর। তারপর জাল পাসপোর্ট বানিয়ে প্যারাগুয়েতে যান প্রাক্তন বার্সা তারকা। পুলিস সূত্রে খবর, রোনাল্ডিনহোর হোটেলের ঘরে তল্লাশি চালিয়ে জাল পাসপোর্ট ছাড়াও আরও বেশ ভূয়ো নথি উদ্ধার করা হয়। এই বিষয়ে প্যারাগুয়ে সরকারের তরফে জানানো হয়, প্রাক্তন বিশ্বসেরা ফুটবলারের কাছে জাল পাসপোর্ট ছিল। এই অপরাধেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, রোনাল্ডিনহোর পাসপোর্টে তাঁর নাম, জন্মস্থান ও জন্ম তারিখ ঠিকঠাক থাকলেও, তাঁর নাগরিকত্ব লেখা ছিল প্যারাগুয়ের। তারপর থেকেই প্যারাগুয়ের জেলে রয়েছেন রোনাল্ডিনহো। প্যারাগুয়ের আইন অনুযায়ী তাদের প্রায় ৬ মাস জেল কাটাতে হবে। যদিও জেলের ভিতরেও দিব্বি রয়েছেন রোনাল্ডিনহো। বিলিয়ে বেড়াচ্ছেন অটোগ্রাফও।

 

 

এই পরিস্থিতিতে রোনাল্ডিনহোর পাশে কেউ না দাঁড়ালেও, হাত বাড়িয়েছেন তার প্রাক্তন সতীর্থ লিওনেল মেসি। তাকে সবরকম সহযোগিতা করার আশ্বাস দেওয়ার পাশাপাশি রোনাল্ডিনহোর জন্য ৩৩ কোটি টাকা দিয়ে আইনজীবী নিয়োগ করেছেন মেসি। মোট ৪ জন আইনজীবী নিয়োগ করা হয়েছে।প্যারাগুয়ে গিয়ে রোনাল্ডিনহোর জন্য আদালতে সওয়াল করবেন ওই আইনজীবীরা।  বন্ধুকে ছাড়াতে বদ্ধপরিকর মেসি। রোনাল্ডিনহো ও মেসির বন্ধুত্ব যে আজও অটুট তা আরও একবার প্রমাণ করল এই ঘটনা।

আরও পড়ুনঃ করোনা আতঙ্কের জেরে বাতিল হলো ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ

আরও পড়ুনঃ ঝুলে রইল কলকাতা ডার্বির ভবিষ্যৎ, পিছিয়ে দেওয়ার পক্ষে সওয়াল মুখ্যমন্ত্রীর