আই লিগে এখন অশ্বমেধের ঘোড়ার মতো ছুটছে মোহনবাগান। থামায় কার সাধ্যি! রবিবার কল্যাণীতে লিগের তালিকায়  পঞ্জাব এফসি-কে হেলায় হারিয়ে দিল কিবু ভিকুনার ছেলেরা। খেলার ফল ১-০। ম্যাচে একমাত্র গোলটি করলেন পাপা বাবাকার দিওয়ারা। আই লিগে ১১টি ম্যাচ খেলার পর বেইতিয়াদের পয়েন্ট দাঁড়াল ২৬।  লিগ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা পঞ্জাব এফসি-র থেকে ৯ পয়েন্টে এগিয়ে গেল মোহনবাগান।

আইলিগে যত এগোচ্ছে, ততই নজর কাড়ছেন বেইতিয়া, নওরম, ফ্রান্স গঞ্চালেন্সরা। গত ম্যাচের চেন্নাইয়ের ঘরের মাঠে জিতেছিল মোহনবাগান। কিন্তু ৩ গোলেও এগিয়ে থেকে ২ গোল হজম করতে হয়েছিল! সমর্থকদের প্রত্যাশার চাপ তো ছিলই, ডিফেন্স নিয়েও পঞ্জাব ম্যাচের আগে চিন্তায় ছিলেন কোচ কিবু ভিকুনা। তার উপর বিপক্ষে ছিলেন আই লিগের টপ স্কোরায় ডিপান্দা ডিকা। কিন্তু খেলা শুরু হতেই কোচের যাবতীয় চিন্তা, সমর্থকদের প্রত্যাশার চাপ সবই কাটিয়ে দিলেন বাগান ফুটবলাররাই। এদিন প্রথমার্ধের ৪২ মিনিটেই গোল করে মোহনবাগানকে এগিয়ে দেন পাপা বাবাকার দিওয়ারা।  দ্বিতীয়ার্ধে বেইতিয়ার ফ্রিকিক থেকে আরও একটি গোল হয়েছিল। কিন্তু সেটি অফসাইডের জন্য বাতিল করে দেন রেফারি। কিন্তু তাতেও জিততে কোনও অসুবিধা হয়নি মোহনবাগানে। বরং গোটা ম্যাচে বেইতিয়াদের খেলা দেখে একবারও মনে হয়নি যে তাঁরা হেরে যেতে পারেন বা ম্যাচ ড্র হতে পারে।

আরও পড়ুন: চোট কাটিয়ে প্রায় এক বছর পরে মাঠে ফিরছেন স্টেইন, নামবেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে

একের পর এক ম্যাচ জিতে চলেছে মোহনবাগান। বেশ কয়েক বছর পর ফের কি আইলিগ ট্রফি ঢুকবে গঙ্গাপারের ক্লাব তাঁবুতে? আশায় বুক বাঁধছেন সমর্থকরা। আর বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এইরকম খেলা চালিয়ে গেলে, মোহনবাগানে ভারতসেরা হওয়া স্রেফ সময়ের অপেক্ষা!