সাদার্ন সমিতির বিরুদ্ধে ৪-০ গোলে জয় পেল মোহনবাগান। কলকাতার কাদা মাখা মাঠে ফের একবার ফুটবলের সাক্ষি থাকলো কলকাতা ফুটবল লিগ। মঙ্গলবার সকাল থেকেই বৃষ্টির কবলে ছিল শহর। সেই সুবাদে এদিন কাদায় মোহনবাগান মাঠে দাঁড়াতে পারছিলেন না দুই দলের ফুটবলাররা। তবুও এভাবেই খেলা চললো কলকাতা লিগের। এই ম্যাচে জয় পেয়ে মঙ্গলবার লিগ পাওয়ার আশা কিছুটা চাগিয়ে রাখলো গত বারের চ্যাম্পিয়নরা। পাশাপাশি বড় ব্যবধানে জয় গোল পার্থক্যও বাড়িয়ে দিল বাগানের।


বৃষ্টি ও মাঠের পরিস্থিতি খারাপ থাকায় এদিন বাগান ও সাদার্ন ম্যাচে তেমন কোনও চমক দেখা যায়নি। বৃষ্টির কারণে এদিন দ্বিতীয়ার্ধের খেলাও শুরু হয় দেরি করে। প্রথমার্ধে মাত্র এক গোলে এগিয়ে ছিল মোহনবাগান। তবে দ্বিতীয়ার্ধে তিন গোল করে সাদার্নকে এদিন দুরমুশ করে দেয় সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড। দলে বেইতিয়া, সালভারা থাকলেও দলের হয়ে দুটি করে গোল করেন সুহের ও ব্রিটো। ৭ ও ৬৩ মিনিটের মাথায় গোল করেন সুহের। ৭৮ ও ৯০+৪ মিনিটে গোল করেন ব্রিটো।


এই ম্যাচ জিতে লিগের আশা কিছুটা চাগিয়ে রাখার চেষ্টা করলো মোহনবাগান। তবে পুরোটাই এবার নির্ভর করবে বাকি দলগুলোর ওপর। এই মুহূর্তে ১০ ম্যাচ খেলে ১৭ পেয়ন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে ইস্টবেঙ্গলকে পিছনে ফেলে দিয়েছে বাগান। লিগ তালিকার তিন নম্বরে রয়েছে ময়দানের অন্যতম প্রধান দল। তবে বাগানের খেতাব জেতার আশা এবারে নেই বললেই চলে। মহমেডান, পিয়ারলেস ও ইস্টবেঙ্গল তিন দলের বড় অংকের পরই লিগ জয়ের আশা টিকে আছে মোহনবাগানের।


অন্যদিকে ,এদিন সন্তোষ ট্রফিতে বিহারের কাছে হারলো বাংলা দল। বিহারের কাছে ১-০ গোল হারের মুখ দেখলো বাংলা। কার্যত বিনা প্রস্তুতিতে মাঠে নেমেছিল বাংলা। অঞ্জন ভট্টাচার্যের কোচিংয়ে এদিন বিনা প্রস্তুতিতেই মাঠে নেমেছিল দল। তবে দলের কোচ হিসাবে প্রথম ম্যাচেই ব্যর্থ হলেন তিনি।