লা লিগায় এ যেন সাপ  লুডোর লড়াই। গত সপ্তাহেই লা লিগায় চির প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনাকে হারিয়ে লিগ টেবিলে শীর্ষস্থানে পৌছেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই ফের শীর্ষস্থান খোয়াল জিনেদিন জিদানের দল। দুর্বল রিয়াল বেটিসের কাছে ২-১ গোলে হার বেঞ্জিমা,ব়ামোস, লুকা মদ্রিচদের। রিয়ালের হারের ফলে লিগ টেবিলে ফের শীর্ষস্থানে পৌছে গেল মেসির বার্সা। 

আরও পড়ুনঃম্যাঞ্চেস্টার ডার্বিতে সিটির হার, ইপিএল খেতাব জয়ের আরও কাছে লিভারপুল

শনিবারই রিয়াল সোসিয়াদকে ১-০ গোলে হারায় বার্সেলোনা। সোসিয়াদকে হারাতেও যথেষ্ট বেগ পেতে হয় সেতেইনের দলকে। ম্যাচের প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় গোলশূন্যভাবে। দ্বিতীয়ার্ধের ৮০ মিনিট পর্যন্ত খেলার ফল ছিল ০-০। ম্যাচের ৮১ মিনিটে পেনাল্টি পায় বার্সা। পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে তিন পয়েন্ট এনে দেন লিও মেসি। যদিও গোটা ম্যাচে বেশ কয়েকবার গোলের সুযোগ তৈরি করেছিল রিয়াল সোসিয়াদও। কিন্তু সোসিয়াদের অ্যাটাকিং লাইন জালে বল জড়াতে ব্যর্থ হয়। এই জয়ের ফলে ২৭ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্টে নিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে পৌছায় বার্সা। 

আরও পড়ুনঃটোকিও অলিম্পিকের ছাড়পত্র পেল ৫ ভারতীয় বক্সার, শুভেচ্ছা কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রীর

আরও পড়ুনঃফাইনালে হেরে হতাশ ভারতীয় দল, প্রত্যাশা অনুযায়ী খেলতে ব্যর্থ সিনিয়ররা

অপরদিকে বার্সার থেকে এক ম্যাচ কম খেলে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল বেটিসের বিরুদ্ধে খেলতে নামে রিয়াল মাদ্রিদ। শীর্ষস্থান ধরে রাখতে গেলে এই ম্যাচ থেকে তিন পয়েন্টই দরকার ছিল জিদানের দলের।  ম্যাচের প্রথম থেকেই আক্রমণাত্বক ফুটবল খেলতে শুরু করে রিয়াাল মাদ্রিদ। রক্ষণ সামলে আক্রমণে যায় বেটিসও। ম্যাচের ৪০ মিনিটে সিডনেইয়ের করা গোলে এগিয়ে যায় বেটিস। যদিও লিড বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি বেটিস রক্ষণ। ম্যাচের প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান করিম বেঞ্জিমা। দ্বিতীয়ার্ধেও গোলের জন্য ঝাঁপায় দুই দল। কিন্তু ম্যাচের ৮২ মিনিটে গোল কের রিয়াল বেটিসকে ফের লিড এনে দেন ক্রিস্টিয়ান টেলো। পিছিয়ে পড়ে শেষ দশ মিনিটে একের পর এক আক্রমণ করেন বেঞ্জিমা, ক্রুস, মদ্রিচ, ভ্যাসকুয়েজরা। কিন্তু গোলের মুখ খুলতে পারেননি। উত্তেজনা এমন পর্যায়ে পৌছায় যে বেশ কয়েকবার ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন দুই দলের ফুটবলাররা। অবশেষে ২-১ গোলে ম্যাচ হারতে হয় রিয়াল মাদ্রিদকে। এই হারের ফলে ২৭ ম্যাচে ৫৬ পয়েন্টে রয়ে গেল জিদানের দল। ২ পয়েন্টের লিড বার্সেলোনার। যদিও লিগের লড়াই এখনও শেষ নয়। শেষ হাসি কে হাসবে তার জন্য আরও বেশ কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে বলেই মনে করছেন ফুটবল বিশেষজ্ঞরা।