জার্মান ফুটবলের ইতিহাসে কোনও প্রতিযোগিতা মূলকম্যাচে সবথেকে বড় হার। একসঙ্গে ৯০ বছরের মধ্যে সবথেকে বেশি ব্যবধানে হার চার বারর বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। নেশনস লিগের ম্যাচে স্পেনের কাছে ৬-০ গোলে হারতে হল ক্রুস, ওয়ার্নার, সানেদের। । হ্যাটট্রিক করেছেন স্পেনের তরুণ ফরোয়ার্ড ফেরান তোরেস। এই হারের ফলে নেশনস লিগ থেকে বিদায় নিল জার্মানি। একইসহ্গে প্রতিযগিতার সেমি ফাইনালে জায়গা করে নিল লুইস এনরিকের স্পেন।

আরও পড়ুনঃবাতিল অনুর্ধ্ব-১৭ মহিলা ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২০, ২০২২-এ আয়োজক ভারত

এদিন ম্যাচের প্রথমার্ধের ১৭ মিনিটেই স্পেনকে গোল করে এগিয়ে দেন আলবারো মোরাতা। ৩৩ মিনিটে স্পেনের হয়ে ব্যবধান বাড়ান ফেরান টোরেস। ৩৮ মিনিটে তৃতীয় গোল করেন রড্রি। প্রথমার্ধেই ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় স্প্যানিশ আর্মাডারা। দ্বিতীয়ার্ধেও নিজেদের আক্রমণাত্ব ফুটবল বজায় রাখে লুইস এনরিকের দল। ৫৫ ও ৭১ মিনিটে পরপর দুটি গোল করে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ফেরান টোরেস। ম্যাচের শেষ লগ্নে ৮৯ মিনিটে স্পেনের হয়ে ষষ্ঠ গোল করেন মিকেল ওয়ারজাবাল। গোটা ম্যাচেই স্পেনের সামনে দাঁড়াতে পারেনি জার্মানি। সুযোগ নষ্ট না করলে ব্যবধান আরও বাড়াতে পারত ২০১০ সালে বিশ্বজয়ীরা। 

আরও পড়ুনঃলকডাউন তরুণ দম্পতিদের নানা সমস্যা, সমাধানে রূপোলি পর্দায় পা রাখছেন সানিয়া মির্জা

এর আগে ১৯৩১ সালে অস্ট্রিয়ার বিরুদ্ধে ৬-০ গোলে হেরেছিল জার্মানরা। তবে সেটা ছিল ফ্রেন্ডলি ম্যাচ। প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে জার্মানদের সবচেয়ে বড় হার ছিল ১৯৫৪ বিশ্বকাপে। তৎকালীন পশ্চিম জার্মানি হেরেছিল ৮-৩ গোলে, অর্থাৎ ৫ গোলের ব্যবধানে। ৬ গোলের ব্যবধানে হার এই প্রথম। এরপরই ইউরো কাপে মাঠে নামবে জার্মানি। তার আগে দলের এত বড় ব্যবধানে ইউরো কাপের চ্যালেঞ্জটা আরও কঠিন হল বলেই মেনে নিয়েছেন জার্মানির কোচ জোয়াকিম লো।

আরও পড়ুনঃবরফের স্তূপ ভেঙে ঢুকে যাচ্ছেন ওয়ার্নারের স্ত্রী, ক্যান্ডিস ওয়ার্নারের এমন কিছু দুর্ধর্ষ ছবি যা এখন ভাইরাল