'তিন কন্যা' থেকে 'চোখের বালি', যুগে যুগে রবিঠাকুরের গল্প-উপন্যাসে সমৃদ্ধ টলিউড

First Published 7, May 2020, 4:36 PM

সাদা কালো থেকে শুরু করে রঙিন পর্দা, রবীন্দ্রনাথের লেখনি থেকে সৃষ্ট চরিত্ররাই বারে বারে প্রাণ পেয়েছে ছবির পর্দায়। বলদেশে দশক, বদল ঘটেছে সমাজে, কালজয়ী পরিচালকদের হাত বদল হয়েছে, তবু আজও টলিউডে রবীন্দ্রনাথের গল্প ফিরে ফিরে আসে। তাঁর গল্প-উপন্যাস তৈরি ছবি কখনও বলেছে ছক ভাঙা প্রেমের কাহিনি, কখনও আবার তুলে ধরেছে চার দেওয়ালের মধ্যে থেকে সংগ্রামের চিত্র। ফিরে দেখা সেরা দশ টলিউডের ছবি। 

তিনকন্যা (১৯৬১)- রবীন্দ্রনাঠ ঠাকুর রচিত তিনটি ছোট গল্প অবলম্বনে তৈরি এই ছবির পটভূমি। পোস্টমাস্টার, মনিহারা, সমাপ্তি। সত্যজিৎ রায় পরিচালিত এই ছবি আজও বাংলা চলচ্চিত্র জগতের এক অন্যতম সম্পদ। অপর্না সেন ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের যুগলবন্দী ধরা দিয়েছিল এই সিনেমায়।

তিনকন্যা (১৯৬১)- রবীন্দ্রনাঠ ঠাকুর রচিত তিনটি ছোট গল্প অবলম্বনে তৈরি এই ছবির পটভূমি। পোস্টমাস্টার, মনিহারা, সমাপ্তি। সত্যজিৎ রায় পরিচালিত এই ছবি আজও বাংলা চলচ্চিত্র জগতের এক অন্যতম সম্পদ। অপর্না সেন ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের যুগলবন্দী ধরা দিয়েছিল এই সিনেমায়।

কাবুলিওয়ালা (১৯৫৭)- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত কাবুলিওয়ালা ছোট গল্প থেকে নেওয়া এই ছবির কাহিনী। মানুষের প্রতি বিশ্বাস, সারল্যতা ও আবেগ কতটা তাৎপর্য বহন করে তা এই ছবির প্রতিটি ভাষায় স্পষ্ট হয়ে ওঠে। আর গল্পে তার কলম অনায়াসে বলে যায় এক নিপাট স্নেহের ইতিকথা। অভিনেত্রী দেবশ্রী রায় এই ছবিতে শিশু শিল্পী হিসেবে কাজ করেছিল।

কাবুলিওয়ালা (১৯৫৭)- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত কাবুলিওয়ালা ছোট গল্প থেকে নেওয়া এই ছবির কাহিনী। মানুষের প্রতি বিশ্বাস, সারল্যতা ও আবেগ কতটা তাৎপর্য বহন করে তা এই ছবির প্রতিটি ভাষায় স্পষ্ট হয়ে ওঠে। আর গল্পে তার কলম অনায়াসে বলে যায় এক নিপাট স্নেহের ইতিকথা। অভিনেত্রী দেবশ্রী রায় এই ছবিতে শিশু শিল্পী হিসেবে কাজ করেছিল।

চারুলতা (১৯৬৪)- সত্যজিৎ রায় পরিচালিত এই ছবির গল্প নেওয়া হয়েছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত নষ্টনীড় উপন্যাস থেকে। যেখানে মেয়েদের চৌহদ্দির মধ্যে থেকেও কতটা সাহসীকতা ও বুদ্ধির জোড়ে নিজের জায়গা করে নিতে হয় তা তিনি দেখিয়েছিলেন। মাধবী মুখোপাধ্যায় ছবির মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

চারুলতা (১৯৬৪)- সত্যজিৎ রায় পরিচালিত এই ছবির গল্প নেওয়া হয়েছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত নষ্টনীড় উপন্যাস থেকে। যেখানে মেয়েদের চৌহদ্দির মধ্যে থেকেও কতটা সাহসীকতা ও বুদ্ধির জোড়ে নিজের জায়গা করে নিতে হয় তা তিনি দেখিয়েছিলেন। মাধবী মুখোপাধ্যায় ছবির মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

এলার চার অধ্যায় (২০১২)- পরিচালক বাপ্পাদিত্য বন্দোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবির মূল প্রেক্ষাপট রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত চার অধ্যায়। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রেক্ষাপটের ওপর নির্ভর করে তৈরি এই ছবির গল্প। বিভিন্ন ধাপে পরিণতি পাওয়া এই গল্প রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর লিখেছিলেন ১৯৩৪ সালে। মুখ্যভুমিকায় অভিনয় করেছিলেন পাওলি দাম।

এলার চার অধ্যায় (২০১২)- পরিচালক বাপ্পাদিত্য বন্দোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবির মূল প্রেক্ষাপট রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত চার অধ্যায়। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রেক্ষাপটের ওপর নির্ভর করে তৈরি এই ছবির গল্প। বিভিন্ন ধাপে পরিণতি পাওয়া এই গল্প রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর লিখেছিলেন ১৯৩৪ সালে। মুখ্যভুমিকায় অভিনয় করেছিলেন পাওলি দাম।

অতিথী (১৯৬৬)- পরিচালক তপন সিনহা এই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে এটি তৈরি করেছিলেন। যেখানে তারা নামে একটি ছেলে, যে তার বাড়ির প্রতি স্বভাবতই দুর্বল তারই নানান খুঁটিনাটি ছোট আবেগগুলো নিয়ে মজার ছলে তৈরি এই গল্পের পটভূমি।

অতিথী (১৯৬৬)- পরিচালক তপন সিনহা এই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে এটি তৈরি করেছিলেন। যেখানে তারা নামে একটি ছেলে, যে তার বাড়ির প্রতি স্বভাবতই দুর্বল তারই নানান খুঁটিনাটি ছোট আবেগগুলো নিয়ে মজার ছলে তৈরি এই গল্পের পটভূমি।

চোখের বালি (২০০৩)- ঋতুপর্ণ ঘোষ পরিচালিত এই ছবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা উপন্যাসের ওপর ভিত্তি করে তৈরি। সম্পর্কের টানাপোড়েনের যে সমীকরণ তাঁর কলমে সেই সময় উঠে এসেছিল, তা আজকের দিনে দাঁড়িয়েও সমাজের কাছে সমান তৎপর্য বহন করে। অভিনয়ে ছিলেন ঐশ্বর্য রাই, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, টোটা রায়চৌধুরী।

চোখের বালি (২০০৩)- ঋতুপর্ণ ঘোষ পরিচালিত এই ছবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা উপন্যাসের ওপর ভিত্তি করে তৈরি। সম্পর্কের টানাপোড়েনের যে সমীকরণ তাঁর কলমে সেই সময় উঠে এসেছিল, তা আজকের দিনে দাঁড়িয়েও সমাজের কাছে সমান তৎপর্য বহন করে। অভিনয়ে ছিলেন ঐশ্বর্য রাই, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, টোটা রায়চৌধুরী।

চতুরঙ্গ (২০০৮)- সুমন মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবির প্রেক্ষাপটেও রবীন্দ্রনাথের অবদান। তারই গল্প অনুসারে তৈরি এই ছবি। যেখানে বাংলা এক বিশেষ সামাজিক স্তরের বিবরণে ফুঁটে উঠেছে গল্পের মাধুর্যতা। ছবিতে অভিনয় করেছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ও জয় সেনগুপ্ত।

চতুরঙ্গ (২০০৮)- সুমন মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবির প্রেক্ষাপটেও রবীন্দ্রনাথের অবদান। তারই গল্প অনুসারে তৈরি এই ছবি। যেখানে বাংলা এক বিশেষ সামাজিক স্তরের বিবরণে ফুঁটে উঠেছে গল্পের মাধুর্যতা। ছবিতে অভিনয় করেছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ও জয় সেনগুপ্ত।

নৌকাডুবি (২০১১)- ঋতুপর্ণ ঘোষ পরিচালিত ছবি নৌকাডুবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি। ঝড়ের ফলে বিয়ের রাতে বদলে যাওয়া চারটি জীবনের সম্পর্কের টানাপোড়েনের গল্প। ছবিতে অভিনয় করেছিল প্রজেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, যিশু সেনগুপ্ত, রাইমা সেই, রিয়া সেন।

নৌকাডুবি (২০১১)- ঋতুপর্ণ ঘোষ পরিচালিত ছবি নৌকাডুবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি। ঝড়ের ফলে বিয়ের রাতে বদলে যাওয়া চারটি জীবনের সম্পর্কের টানাপোড়েনের গল্প। ছবিতে অভিনয় করেছিল প্রজেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, যিশু সেনগুপ্ত, রাইমা সেই, রিয়া সেন।

loader