মিডল অর্ডার থেকে ওপেনারের ভূমিকায় সেরা পাঁচ সফল ব্যাটসম্যান

First Published 1, Oct 2019, 5:26 PM IST

বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতীয় দলে টেস্ট ওপেনার হিসাবে অভিষেক হতে চলেছে রোহিত শর্মার। টেস্ট ম্যাচে এর আগে ভারতীয় দলের হয়ে টেস্ট ম্যাচে ওপেন করতে দেখা যায়নি ভারতীয় একদিনের দলের ওপেনারকে। তবে বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে ওপেনার হিসাবে নয়া ইনিংস শুরু করবেন রোহিত। এমনটাই ম্যাচের আগের দিন ইঙ্গিত দিয়েছেন ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। এবার ওপেনার হিসাবে কতটা ছাপ ফেলতে পারেন রোহিত সেটাই এখন দেখার। তবে রোহিতের দিকে তাঁকিয়ে থাকলেও অতীতে মিডল অর্ডার থেকে উঠে এসে ওপেনার হিসাবে চমক টেস্ট ক্রিকেটে চমক দিয়েছেন একাধিক ক্রিকেটার। বীরেন্দ্র শেহওয়াগের পাশাপাশি এই তালিকায় রয়েছেন ভারতের বর্তমাব কোচ রবি শাস্ত্রী সহ অস্ট্রেলিয়ার সাইমন ক্যাটিচ ও শ্রীলঙ্কার জয়সূর্যের মতন ক্রিকেটাররা। এমন ভাবেই মিডল অর্ডার থেকে উঠে এসে ওপেনার হিসাবে চমক দিয়েছেন একাধিক ব্যাটসম্যান। সেই ব্যাটসম্যানদের এক ঝলক।

বীরেন্দ্র শেহওয়াগ-  ভারতীয় টেস্ট দলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসাবে নিজের ইনিংস শুরু করেছিলেন বীরেন্দ্র শেহওয়াগ। ব্যাট হাতে মিডল অর্ডারে ১০ ইনিংসে ৩৭৯ রান করেছিলেন শেহওয়াগ। তবে সেখান থেকে উঠে এসে ওপেনার হিসাবে নিজের টেস্ট কেরিয়ারের দিক অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেন এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান। ব্যাট হাতে টেস্ট ওপেনার হিসাবে তিনটি তৃশতরানের মালিক শেহওয়াগ। ওপেনার হিসাবে ১৭০টি ইনিংসে ৮২০৭ রান করেছেন এই শেহওয়াগ। পাশাপাশি ভারতীয় টেস্ট দলের সর্বকালের রেকর্ড দেখতে গেলে অন্যতম সেরা ওপেনার বীরু।

বীরেন্দ্র শেহওয়াগ- ভারতীয় টেস্ট দলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসাবে নিজের ইনিংস শুরু করেছিলেন বীরেন্দ্র শেহওয়াগ। ব্যাট হাতে মিডল অর্ডারে ১০ ইনিংসে ৩৭৯ রান করেছিলেন শেহওয়াগ। তবে সেখান থেকে উঠে এসে ওপেনার হিসাবে নিজের টেস্ট কেরিয়ারের দিক অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেন এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান। ব্যাট হাতে টেস্ট ওপেনার হিসাবে তিনটি তৃশতরানের মালিক শেহওয়াগ। ওপেনার হিসাবে ১৭০টি ইনিংসে ৮২০৭ রান করেছেন এই শেহওয়াগ। পাশাপাশি ভারতীয় টেস্ট দলের সর্বকালের রেকর্ড দেখতে গেলে অন্যতম সেরা ওপেনার বীরু।

সাইমন ক্যাটিচ-  ২০০১ সালে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টেস্টে অভিষেক ঘটেছিল অজি ব্যাটসম্যান সাইমন ক্যাটিচের। টেস্ট দলে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসাবে শুরু করলেও, পরবর্তিতে সেই ব্যাটিং অর্ডারে টেস্টে সেই ভাবে সাফল্য অর্জন করতে দেখা যায়নি তাঁকে। তাই পরবর্তিতে ২০০৫ সালে ফের জাতীয় দলে ওপেনার হিসাবে টেস্ট দলে জায়গা পান ক্যাটিচ। ওপেনার হিসাবে ৬১টি ইনিংসে ১২৬০ রানের মালিক এই প্রাক্তন অজি ক্রিকেটার।

সাইমন ক্যাটিচ- ২০০১ সালে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টেস্টে অভিষেক ঘটেছিল অজি ব্যাটসম্যান সাইমন ক্যাটিচের। টেস্ট দলে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসাবে শুরু করলেও, পরবর্তিতে সেই ব্যাটিং অর্ডারে টেস্টে সেই ভাবে সাফল্য অর্জন করতে দেখা যায়নি তাঁকে। তাই পরবর্তিতে ২০০৫ সালে ফের জাতীয় দলে ওপেনার হিসাবে টেস্ট দলে জায়গা পান ক্যাটিচ। ওপেনার হিসাবে ৬১টি ইনিংসে ১২৬০ রানের মালিক এই প্রাক্তন অজি ক্রিকেটার।

রবি শাস্ত্রী-  বর্তমানে ভারতীয় দলের কোচ হলেও, নিজের কেরিয়ারে রোহিতের মতনই প্রত্যাবর্তন ঘটেছিল রবির ক্রিকেটিয় কেরিয়ারে। ভারতীয় দলের লোয়ার অর্ডারে এক সময় ভরসা যোগ্য ব্যাটসম্যান ছিলেন এই ব্যাটসম্যান। সেই জায়গায় ৯৫টি ইনিংস খেললেও পরের দিকে রানের গড়ে পিছিয়ে পরেছিলেন রবি। আর তারপরই শুরু হয়েছিল শাস্ত্রীর ওপেনার হিসাবে নতুন ইনিংস। ওপেনিং পজিশনে ২৬ ইনিংসে ১১০১ রানের মালিক হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। গড় ছিল প্রায় ৪৪।

রবি শাস্ত্রী- বর্তমানে ভারতীয় দলের কোচ হলেও, নিজের কেরিয়ারে রোহিতের মতনই প্রত্যাবর্তন ঘটেছিল রবির ক্রিকেটিয় কেরিয়ারে। ভারতীয় দলের লোয়ার অর্ডারে এক সময় ভরসা যোগ্য ব্যাটসম্যান ছিলেন এই ব্যাটসম্যান। সেই জায়গায় ৯৫টি ইনিংস খেললেও পরের দিকে রানের গড়ে পিছিয়ে পরেছিলেন রবি। আর তারপরই শুরু হয়েছিল শাস্ত্রীর ওপেনার হিসাবে নতুন ইনিংস। ওপেনিং পজিশনে ২৬ ইনিংসে ১১০১ রানের মালিক হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। গড় ছিল প্রায় ৪৪।

সনৎ জয়সূর্য - শ্রীলঙ্কার হয়ে প্রথমে বোলার হিসাবে দলে এসেছিলেন সনৎ জয়সূর্য। নিজের সময়ে বাঁহাতে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ছিলেন শ্রীলঙ্কার এই ক্রিকেটার। তবে প্রথম দিকে লোয়ার অর্ডার ও মিডল অর্ডারে জায়গা পেতেন না এই ক্রিকেটার। তবে নিজের কেরিয়ার শেষ করার সময় সফলতম ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসাবে শেষ করেন জয়সূর্য। ওপেনার হিসাবে ১৫২ ইনিংসে ৫৯৩২ রান করে নিজের কেরিয়ার হিসাবে শেষ করেছেন জয়সূর্য।

সনৎ জয়সূর্য - শ্রীলঙ্কার হয়ে প্রথমে বোলার হিসাবে দলে এসেছিলেন সনৎ জয়সূর্য। নিজের সময়ে বাঁহাতে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ছিলেন শ্রীলঙ্কার এই ক্রিকেটার। তবে প্রথম দিকে লোয়ার অর্ডার ও মিডল অর্ডারে জায়গা পেতেন না এই ক্রিকেটার। তবে নিজের কেরিয়ার শেষ করার সময় সফলতম ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসাবে শেষ করেন জয়সূর্য। ওপেনার হিসাবে ১৫২ ইনিংসে ৫৯৩২ রান করে নিজের কেরিয়ার হিসাবে শেষ করেছেন জয়সূর্য।

তিলকরত্নে দিলশান-  শ্রীলঙ্কার অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসাবে এক সময় মাঠ দাপিয়েছেন তিলকরত্নে দিলশান। টেস্টে প্রথমে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসাবে শুরু করলেও নিজের ৫৬তম টেস্টে ওপেনার হিসাবে খেলতে শুরু করেন দিলশান। ওপেনার হিসাবে ৫৩ ম্যাচে ২১৭০ রান করেছেন দিলশান। আর সফলতম ক্রিকেটার হিসাবেই টেস্টে নিজের কেরিয়ার শেষ করেন দিলশান।

তিলকরত্নে দিলশান- শ্রীলঙ্কার অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসাবে এক সময় মাঠ দাপিয়েছেন তিলকরত্নে দিলশান। টেস্টে প্রথমে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসাবে শুরু করলেও নিজের ৫৬তম টেস্টে ওপেনার হিসাবে খেলতে শুরু করেন দিলশান। ওপেনার হিসাবে ৫৩ ম্যাচে ২১৭০ রান করেছেন দিলশান। আর সফলতম ক্রিকেটার হিসাবেই টেস্টে নিজের কেরিয়ার শেষ করেন দিলশান।

loader