লকডাউনে প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের খাওয়ার দায়িত্ব নিয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

First Published 9, Apr 2020, 3:58 PM

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছে গোটা দেশ। পিছিয়ে নেই ক্রিকেটারও। ৫০ লক্ষ টাকা টাকার চাল দেওয়ার পাশাপাশি প্রতি দিন ১০ হাজার মানুষের খাওয়ার দায়িত্ব নিয়েছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ড সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। 
 

গত পয়লা এপ্রিল দুপুরে বেলুড় মঠে উপস্থিত হন মহারাজ। সেখান থেকে বেলুড় মঠের মহারাজদের হাতে ২ হাজার কিলো চাল তুলে দেন তিনি ।গরীব মানুষদের জন্য সৌরভের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বেলুড়ের মহারাজরা।

গত পয়লা এপ্রিল দুপুরে বেলুড় মঠে উপস্থিত হন মহারাজ। সেখান থেকে বেলুড় মঠের মহারাজদের হাতে ২ হাজার কিলো চাল তুলে দেন তিনি ।গরীব মানুষদের জন্য সৌরভের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বেলুড়ের মহারাজরা।

বেলুড় মঠের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ মহারাজ জানান, সৌরভ গতকাল তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং চাল দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তিনি সানন্দে রাজি হন। চালের পরিমাণ কতো সেটা বড় কথা নয়, মনের ইচ্ছাটাই বড় জিনিস।

বেলুড় মঠের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ মহারাজ জানান, সৌরভ গতকাল তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং চাল দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তিনি সানন্দে রাজি হন। চালের পরিমাণ কতো সেটা বড় কথা নয়, মনের ইচ্ছাটাই বড় জিনিস।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে সারা বিশ্বের মানুষ চেনেন। তার মতো একজন ব্যক্তিত্ব বেলুড় মঠের পাশে এসে দাঁড়িয়ে ত্রাণকার্যে সাহায্য করছেন এটা তাদের কাছে খুবই গৌরবের বিষয়।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে সারা বিশ্বের মানুষ চেনেন। তার মতো একজন ব্যক্তিত্ব বেলুড় মঠের পাশে এসে দাঁড়িয়ে ত্রাণকার্যে সাহায্য করছেন এটা তাদের কাছে খুবই গৌরবের বিষয়।

৫ এপ্রিল গুরুসদয় রোডের ইসকন মন্দির যান সৌরভ। মন্দির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে গরীব মানুষদের মুখে অন্ন তুলে দিয়েছেন মহারাজ। এদিন বেশ কিছু দরিদ্র মানুষকে চাল দান করা হয়। পাশাপাশি মন্দির কর্তৃপক্ষকে একহাজার কিলো চাল তুলে দেন তিনি।

৫ এপ্রিল গুরুসদয় রোডের ইসকন মন্দির যান সৌরভ। মন্দির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে গরীব মানুষদের মুখে অন্ন তুলে দিয়েছেন মহারাজ। এদিন বেশ কিছু দরিদ্র মানুষকে চাল দান করা হয়। পাশাপাশি মন্দির কর্তৃপক্ষকে একহাজার কিলো চাল তুলে দেন তিনি।

শনিবার থেকে শুরু করে লকডাউন না ওঠা পর্যন্ত প্রতিদিন মন্দির কর্তৃপক্ষকে সাহায্য করবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যয়ের ফাউন্ডেশন। লকডাউনের বাকি দিনগুলি সৌরভের ফাউন্ডেশন প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের মুখে অন্ন তুলে দেবে।

শনিবার থেকে শুরু করে লকডাউন না ওঠা পর্যন্ত প্রতিদিন মন্দির কর্তৃপক্ষকে সাহায্য করবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যয়ের ফাউন্ডেশন। লকডাউনের বাকি দিনগুলি সৌরভের ফাউন্ডেশন প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের মুখে অন্ন তুলে দেবে।

এমনিতেই কলকাতার ইস্কন মন্দির থেকে প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষকে প্রসাদ দেওয়া হয় । কিন্তু সেই সংখ্যাটা দ্বিগুণ বাড়িয়ে দিলেন বাংলার মহারাজ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

এমনিতেই কলকাতার ইস্কন মন্দির থেকে প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষকে প্রসাদ দেওয়া হয় । কিন্তু সেই সংখ্যাটা দ্বিগুণ বাড়িয়ে দিলেন বাংলার মহারাজ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

তিনি বলেন এখন থেকে অতিরিক্ত আরও ১০ হাজার দুঃস্থ মানুষকে প্রতিদিন অন্ন দেবেন তিনি। ইস্কন মন্দির থেকে প্রতিদিন সেই অন্ন ২০ হাজার দুঃস্থদের বিতরণ করা হবে।

তিনি বলেন এখন থেকে অতিরিক্ত আরও ১০ হাজার দুঃস্থ মানুষকে প্রতিদিন অন্ন দেবেন তিনি। ইস্কন মন্দির থেকে প্রতিদিন সেই অন্ন ২০ হাজার দুঃস্থদের বিতরণ করা হবে।

গোটা দেশে ইস্কন মন্দির থেকে ৪ লক্ষ গরীব মানুষকে প্রতিদিন অন্ন দেওয়া হয়। এবার এই উদ্যোগে যুক্ত হলেন বিসিসিআই সভাপতি।  সৌরভের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে ইস্কন কর্তৃপক্ষ।

গোটা দেশে ইস্কন মন্দির থেকে ৪ লক্ষ গরীব মানুষকে প্রতিদিন অন্ন দেওয়া হয়। এবার এই উদ্যোগে যুক্ত হলেন বিসিসিআই সভাপতি। সৌরভের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে ইস্কন কর্তৃপক্ষ।

দেশের তথা বাংলার বিপদে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের উদ্যোগ খুশি বিশ্ব জুড়ে সৈরভ অনুগামীরা। সৌরভও সকলকে বারবার অনুরোধ করেছেন, ‘লকডাউন’ মেনে চলুন, বাড়িতে থাকুন, একে অন্যের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রেখে সংক্রমণকে আটকান।

দেশের তথা বাংলার বিপদে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের উদ্যোগ খুশি বিশ্ব জুড়ে সৈরভ অনুগামীরা। সৌরভও সকলকে বারবার অনুরোধ করেছেন, ‘লকডাউন’ মেনে চলুন, বাড়িতে থাকুন, একে অন্যের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রেখে সংক্রমণকে আটকান।

এশিয়ানেট নিউজের 'নমস্তে কেয়ারগিভার্স' হচ্ছে এমন একটি উদ্যোগ যার মাধ্যমে দেশের বিপদের দিনে যে বা যারা মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তাদের কুর্ণিশ জাননো। যার লকডাউনের সময় গরীব-দুঃস্থ থেকে শুরু পথ কুকুর বা পোষ্যেদের মুখে খাবার তুলে দিচ্ছে, মানুষের নানা রকমভাবে সাহায্য করছে তাদের গল্প তুলে ধরাই হচ্ছে এশিয়ানেট নিউজের 'নমস্তে কেয়ারগিভার্স'-এর উদ্দেশ্য়। আপনার এলাকাতেও যদি এমন কোনও ব্য়ক্তি থেকে থাকে তাহলে তার লড়াই তুলে ধরুন আমাদের মাধ্যমে।

এশিয়ানেট নিউজের 'নমস্তে কেয়ারগিভার্স' হচ্ছে এমন একটি উদ্যোগ যার মাধ্যমে দেশের বিপদের দিনে যে বা যারা মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তাদের কুর্ণিশ জাননো। যার লকডাউনের সময় গরীব-দুঃস্থ থেকে শুরু পথ কুকুর বা পোষ্যেদের মুখে খাবার তুলে দিচ্ছে, মানুষের নানা রকমভাবে সাহায্য করছে তাদের গল্প তুলে ধরাই হচ্ছে এশিয়ানেট নিউজের 'নমস্তে কেয়ারগিভার্স'-এর উদ্দেশ্য়। আপনার এলাকাতেও যদি এমন কোনও ব্য়ক্তি থেকে থাকে তাহলে তার লড়াই তুলে ধরুন আমাদের মাধ্যমে।

loader