৫৬-তম জন্মদিনে 'আবহমান' ঋতু

First Published 31, Aug 2019, 3:42 PM IST

তিনি সৃষ্টিকর্তা, তিনি নশ্বর। আজীবন সকলের মনে অমলিন হয়ে থাকবেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। তাঁর দ্বিতীয় ছবি 'উনিশে এপ্রিল'ই তাঁকে সাফ্যলের দোরগোড়ায় নিয়ে যায়, ছবিটির জন্য তিনি প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র সম্মান পান। সবার কাছে তিনি 'ঋতু', ৩১ অগাস্ট তাঁরই ৫৬-তম জন্মবার্ষিকী পালন করছে সকলে। জন্মদিনে ফিরে দেখা ঋতুপর্ণ ঘোষ-কে। 
 

বিজ্ঞাপনের মধ্যে দিয়েই তাঁর বিনোদন জগতের হাতেখড়ি।

বিজ্ঞাপনের মধ্যে দিয়েই তাঁর বিনোদন জগতের হাতেখড়ি।

'হীরের আংটি' ছবিটি দিয়ে তিনি পরিচালনার কাজ শুরু করেন। সিনেমাটি শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি।

'হীরের আংটি' ছবিটি দিয়ে তিনি পরিচালনার কাজ শুরু করেন। সিনেমাটি শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি।

এরপর 'উনিশে এপ্রিল'-এর হাত ধরে আসে প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র সম্মান। ছবিটিতে অপর্ণা সেন ও দেবশ্রী রায়-কে দেখা গিয়েছিল।

এরপর 'উনিশে এপ্রিল'-এর হাত ধরে আসে প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র সম্মান। ছবিটিতে অপর্ণা সেন ও দেবশ্রী রায়-কে দেখা গিয়েছিল।

ঋতুপর্ণ ঘোষের বাকি ছবিগুলিও দর্শকদের মনে চিরকাল অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। 'দহন', 'বাড়িওয়ালি', 'উৎসব', 'তিতলি', 'চোখের বালি','শুভ মহরৎ', 'রেনকোট', 'আবহমান', 'সব চরিত্র কাল্পলিক', সব সিনেমা গুলিই বাংলা ছবিগুলিকে এক অন্যমাত্রার নিয়ে গিয়েছিল।

ঋতুপর্ণ ঘোষের বাকি ছবিগুলিও দর্শকদের মনে চিরকাল অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। 'দহন', 'বাড়িওয়ালি', 'উৎসব', 'তিতলি', 'চোখের বালি','শুভ মহরৎ', 'রেনকোট', 'আবহমান', 'সব চরিত্র কাল্পলিক', সব সিনেমা গুলিই বাংলা ছবিগুলিকে এক অন্যমাত্রার নিয়ে গিয়েছিল।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জীবন-কাহিনির ওপর তিনি একটি ডকুমেন্টরিও বানিয়েছিলেন। প্রায় প্রতিটি ছবিতেই তিনি রবীন্দ্রনাথের গান ব্যবহার করেছেন অথবা অনুসরণ করেছেন।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জীবন-কাহিনির ওপর তিনি একটি ডকুমেন্টরিও বানিয়েছিলেন। প্রায় প্রতিটি ছবিতেই তিনি রবীন্দ্রনাথের গান ব্যবহার করেছেন অথবা অনুসরণ করেছেন।

দু-দশকের ফিল্মি কেরিয়ারে ঋতুপর্ণের ঝুলিতে রয়েছে ১২টি জাতীয় সম্মান ও অসংখ্য আর্ন্তজাতিক সম্মান।

দু-দশকের ফিল্মি কেরিয়ারে ঋতুপর্ণের ঝুলিতে রয়েছে ১২টি জাতীয় সম্মান ও অসংখ্য আর্ন্তজাতিক সম্মান।

সত্যজিৎ রায় ছিলেন তাঁর অণুপ্রেরনা। তাঁর মুখে শোনা গিয়েছে সত্যজিৎ রায়-এর প্রশংসা।

সত্যজিৎ রায় ছিলেন তাঁর অণুপ্রেরনা। তাঁর মুখে শোনা গিয়েছে সত্যজিৎ রায়-এর প্রশংসা।

তিনি 'দ্য লাস্ট লিয়র' নামক একটি ইংরেজি সিনেমারও পরিচালনা করেছিলেন।

তিনি 'দ্য লাস্ট লিয়র' নামক একটি ইংরেজি সিনেমারও পরিচালনা করেছিলেন।

loader