বিধায়কের মেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় উষ্ণতা ছডা়চ্ছেন! এক কালে ইমরান হাশমির নায়িকা হয়েছিলেন

First Published 25, Jun 2019, 6:44 PM IST

ইমরান হাশমির সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন ক্রুক  ছবিতে। সেই ছবি থেকেই জনপ্রিয় হন নেহা শর্মা। কিন্তু অভিনয় ও মডেলিং ছাড়াও তাঁর আরও একটি পরিচয় রয়েছে। নেহার বাবা অজিত শর্মা ভাগলপুরের কংগ্রেস  বিধায়ক। মিষ্টি নায়িকাকে চিনে নেওয়া যাক ছবিতে ছবিতে। 

ভাগলপুরের স্কুলেই পড়াশোনা করেছেন নেহা শর্মা। সেখানেই মানুষ সেই অভিনেত্রী। ওখানকার মাউন্ট কারমেল স্কুলে পড়াশোনা করেছেন।

ভাগলপুরের স্কুলেই পড়াশোনা করেছেন নেহা শর্মা। সেখানেই মানুষ সেই অভিনেত্রী। ওখানকার মাউন্ট কারমেল স্কুলে পড়াশোনা করেছেন।

নেহার বাবা বিহারের ভাগলপুরের বিধায়ক। নেহার এই পরিচয় অনেকের কাছেই এখনও অজানা।

নেহার বাবা বিহারের ভাগলপুরের বিধায়ক। নেহার এই পরিচয় অনেকের কাছেই এখনও অজানা।

এর পরে দিল্লিতে চলে আসেন নেহা। সেখানে ফ্যাশন ডিজাইনিং নিয়ে পড়াশোনা করেন তিনি।

এর পরে দিল্লিতে চলে আসেন নেহা। সেখানে ফ্যাশন ডিজাইনিং নিয়ে পড়াশোনা করেন তিনি।

প্রথম অভিনয় শুরু করেন তেলুগু ছবি ছিরুথা দিয়ে। তার পরেই ইমরান হাশমির সঙ্গে ক্রুক ছবিতে অভিনয় করেন। সেই ছবি থেকেই জনপ্রিয় হন তিনি।

প্রথম অভিনয় শুরু করেন তেলুগু ছবি ছিরুথা দিয়ে। তার পরেই ইমরান হাশমির সঙ্গে ক্রুক ছবিতে অভিনয় করেন। সেই ছবি থেকেই জনপ্রিয় হন তিনি।

এর পরে কুণাল কোহলির তেরি মেরি কাহানিতে একটি ক্যামিও চরিত্রে অভিনয় করেন।

এর পরে কুণাল কোহলির তেরি মেরি কাহানিতে একটি ক্যামিও চরিত্রে অভিনয় করেন।

এরপরে কেয়া সুপার কুল হ্যায় ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসা কোড়ান নেহা।

এরপরে কেয়া সুপার কুল হ্যায় ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসা কোড়ান নেহা।

নেহা এছাড়াও বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে মডেলিং করেছেন।   এছাড়াও বেশকিছু বিজ্ঞাপনে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করেছেন

নেহা এছাড়াও বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে মডেলিং করেছেন। এছাড়াও বেশকিছু বিজ্ঞাপনে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করেছেন

ছোটবেলা থেকেই হাঁপানি রোগে ভুগেছেন নেহা । হায়দ্রাবাদ এগিয়ে চিকিৎসার মাধ্যমে অবশেষে এখন তিনি এই রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন

ছোটবেলা থেকেই হাঁপানি রোগে ভুগেছেন নেহা । হায়দ্রাবাদ এগিয়ে চিকিৎসার মাধ্যমে অবশেষে এখন তিনি এই রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন

loader