যৌন জীবনে কমে দ্বিতীয়বার হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা, বলছে প্রায় ৫০০ কাপলের সার্ভে রিপোর্ট

First Published 27, Sep 2020, 12:21 PM


 হৃদ রোগে আক্রান্ত অনেকের মতেই, সুস্থ হওয়ার পর যৌন জীবনে ছেদ টানলে দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের প্রবণতা অনেকটাই কমে যায়। একই মত বিশেষজ্ঞদেরও। তবে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে যে, একবার হার্ট অ্য়াটাক হওয়ায় পর স্বাভাবিক যৌন জীবনে ফিরে গেলে দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের সম্ভাবনা কমতে পারে। সম্প্রতি ইউরোপিয়ান জার্ণাল অব প্রিভেন্টিভ কার্ডিওলজির তরফে একটি গবেষণা পত্র প্রকাশ করা হয়েছে। ২০ বছর ধরে গবেষকরা ৪৯৫ জন কাপলের মধ্য়ে পরীক্ষা চালিয়েছেন। সেখানেই মিলেছে এই অবাক করা তথ্য। 

<p>&nbsp;হৃদ রোগে আক্রান্ত অনেকের মতেই, সুস্থ হওয়ার পর যৌন জীবনে ছেদ টানলে দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের প্রবণতা অনেকটাই কমে যায়। একই মত বিশেষজ্ঞদেরও।<br />
&nbsp;</p>

 হৃদ রোগে আক্রান্ত অনেকের মতেই, সুস্থ হওয়ার পর যৌন জীবনে ছেদ টানলে দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের প্রবণতা অনেকটাই কমে যায়। একই মত বিশেষজ্ঞদেরও।
 

<p><br />
তবে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে যে, একবার হার্ট অ্য়াটাক হওয়ায় পর স্বাভাবিক যৌন জীবনে ফিরে গেলে দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের সম্ভাবনা কমতে পারে।</p>


তবে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে যে, একবার হার্ট অ্য়াটাক হওয়ায় পর স্বাভাবিক যৌন জীবনে ফিরে গেলে দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের সম্ভাবনা কমতে পারে।

<p><br />
সম্প্রতি ইউরোপিয়ান জার্ণাল অব প্রিভেন্টিভ কার্ডিওলজির তরফে একটি গবেষণা পত্র প্রকাশ করা হয়েছে। ২০ বছর ধরে গবেষকরা ৪৯৫ জন কাপলের মধ্য়ে পরীক্ষা চালিয়েছেন। সেখানেই মিলেছে এই অবাক করা তথ্য।</p>


সম্প্রতি ইউরোপিয়ান জার্ণাল অব প্রিভেন্টিভ কার্ডিওলজির তরফে একটি গবেষণা পত্র প্রকাশ করা হয়েছে। ২০ বছর ধরে গবেষকরা ৪৯৫ জন কাপলের মধ্য়ে পরীক্ষা চালিয়েছেন। সেখানেই মিলেছে এই অবাক করা তথ্য।

<p><br />
গবেষণা পত্রে জানানো হয়েছে, যারা হার্ট অ্য়াটাকের পর আবার যৌন জীবনে ফিরে গিয়েছেন তাঁদের দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের সম্ভাবনা কমে গিয়েছে ৩৫ শতাংশ।</p>


গবেষণা পত্রে জানানো হয়েছে, যারা হার্ট অ্য়াটাকের পর আবার যৌন জীবনে ফিরে গিয়েছেন তাঁদের দ্বিতীয়বার হার্ট অ্য়াটাকের সম্ভাবনা কমে গিয়েছে ৩৫ শতাংশ।

<p><br />
<span style="font-size:14px;">গবেষণা পত্রে আরও &nbsp;জানানো হয়েছে, ২২ বছর পর দেখা গিয়েছে এদের মধ্যে ২১১ জন অর্থাৎ &nbsp;৪৩ শতাংশ &nbsp;মানুষ &nbsp;মারা গিয়েছেন। কিন্তু এরা কেউই হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারাননি।</span></p>


গবেষণা পত্রে আরও  জানানো হয়েছে, ২২ বছর পর দেখা গিয়েছে এদের মধ্যে ২১১ জন অর্থাৎ  ৪৩ শতাংশ  মানুষ  মারা গিয়েছেন। কিন্তু এরা কেউই হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারাননি।

loader