'কেন্দ্র সতর্ক রয়েছে ভয় পাবেন না', ব্রিটেনে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেন নিয়ে আশ্বাস ভারতের

First Published Dec 21, 2020, 3:32 PM IST

যুক্ত রাজ্যে করোনাভাইরাসের যে নতুন স্ট্রেনের সন্ধান পাওয়া গেছে তা নিয়ে ভারতের বাসিন্দাদের আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই। ভার্চুয়াল সাংবাদিক সম্মেলনে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী হর্ষ বর্ধন বলেন, প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।  এতদিন ধরে যেভাবে মহামারির সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকার লড়াই করেছে আগামী দিনেও তার অন্যথা হবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি। তবে ব্রিটেনে সন্ধান পাওয়া নতুন করোনা স্ট্রেন নিয়ে আতঙ্ক আর উদ্বেগ ক্রমশই বাড়ছে। 

<p><strong>&nbsp;ব্রিটেনে পাওয়ার গেছেস করোনাভাইরাসের নতুন একটি স্ট্রেন। যটি সংক্রমণ ছড়িয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে ৭০ শতাংশ বেশি শক্তিশালী বলে দাবি করা হচ্ছে।&nbsp;</strong></p>

 ব্রিটেনে পাওয়ার গেছেস করোনাভাইরাসের নতুন একটি স্ট্রেন। যটি সংক্রমণ ছড়িয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে ৭০ শতাংশ বেশি শক্তিশালী বলে দাবি করা হচ্ছে। 

<p><strong>নতুন করোনা স্ট্রেনের দাপটে ব্রিটেনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এই পরিস্থিতি কঠোর লকডাউডন জারি করা হয়েছে। বড়দিনের অনুষ্ঠানে গেটটুগেদারের অনুষ্ঠান থেকে দেশের নাগরিকদের বিরত থাকতে আবেদন জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

নতুন করোনা স্ট্রেনের দাপটে ব্রিটেনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এই পরিস্থিতি কঠোর লকডাউডন জারি করা হয়েছে। বড়দিনের অনুষ্ঠানে গেটটুগেদারের অনুষ্ঠান থেকে দেশের নাগরিকদের বিরত থাকতে আবেদন জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। 
 

<p><strong>নতুন করোনা স্ট্রেনের কারণে ইতিমধ্যেই ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে ব্রিটেনের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ ছিন্ন করে দিয়েছে। একই রাস্তায় হাঁটছে কানাডা।&nbsp;</strong></p>

নতুন করোনা স্ট্রেনের কারণে ইতিমধ্যেই ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে ব্রিটেনের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ ছিন্ন করে দিয়েছে। একই রাস্তায় হাঁটছে কানাডা। 

<p><strong>ব্রিটেনর নতুন করোনাভাইরাসের স্ট্রেনের সন্ধান পাওয়ার পর থেকেই উদ্বেগ বাড়ছে ভারতে। এই পরিস্থিতিতে এদিন একটি জরুরি বৈঠকের ডাক দেওয়া হয়। সেই বৈঠকেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে পর্যালোচনার জন্য যে যৌথ মনিটারিং কমিটি তৈরি হয়েছে সেই কমিটির সদস্যরা আলোচনায় বসে। সেখানেই নতুন স্ট্রেন নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়।&nbsp;</strong></p>

ব্রিটেনর নতুন করোনাভাইরাসের স্ট্রেনের সন্ধান পাওয়ার পর থেকেই উদ্বেগ বাড়ছে ভারতে। এই পরিস্থিতিতে এদিন একটি জরুরি বৈঠকের ডাক দেওয়া হয়। সেই বৈঠকেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে পর্যালোচনার জন্য যে যৌথ মনিটারিং কমিটি তৈরি হয়েছে সেই কমিটির সদস্যরা আলোচনায় বসে। সেখানেই নতুন স্ট্রেন নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়। 

<p><strong>&nbsp;বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকার পর্যাপ্ত সতর্কতা গ্রহণ করেছে। জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার বিষয়েও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। তবে এখনও পর্যন্ত ভারত ব্রিটেন সফর স্থগিত করা হয়নি।&nbsp;</strong></p>

 বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকার পর্যাপ্ত সতর্কতা গ্রহণ করেছে। জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার বিষয়েও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। তবে এখনও পর্যন্ত ভারত ব্রিটেন সফর স্থগিত করা হয়নি। 

<p><strong>&nbsp;কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যা মন্ত্রী জানিয়েছেন, কোনও রকম কাল্পনিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা থেকে বিরত থাকতে হবে। অযোথা আতঙ্কিত না হওয়ারও আবেদন জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরও বলেন গত এক বছর ধরে কেন্দ্রীয় সরকার করোনা মোকাবিলার জন্য একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এক্ষেত্রেও প্রয়োজনে সেজাতীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি । &nbsp;</strong></p>

 কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যা মন্ত্রী জানিয়েছেন, কোনও রকম কাল্পনিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা থেকে বিরত থাকতে হবে। অযোথা আতঙ্কিত না হওয়ারও আবেদন জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরও বলেন গত এক বছর ধরে কেন্দ্রীয় সরকার করোনা মোকাবিলার জন্য একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এক্ষেত্রেও প্রয়োজনে সেজাতীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি ।  

<p><strong>দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল একটি সতর্কতা নোট জারি করেছেন। সমস্ত ভ্রমণ স্থগিত &nbsp;করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। যদিও কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানান হয়েছে প্রয়োজনীয় সতর্কতা গ্রহণ করা হয়েছে।&nbsp;</strong></p>

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল একটি সতর্কতা নোট জারি করেছেন। সমস্ত ভ্রমণ স্থগিত  করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। যদিও কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানান হয়েছে প্রয়োজনীয় সতর্কতা গ্রহণ করা হয়েছে। 

<p style="text-align: justify;"><strong>অন্যদিকে ব্রিটিশ স্বাস্থ্য সচিব ম্যাট গ্যানকক বলেছেন করোনার নতুন রূপটি নিয়ন্ত্রণের বাইরে রয়েছে। তবে নতুন স্ট্রেন থেকে মারাত্মক অসুস্থতার কোনও প্রমাণ এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি বলে দাবি করে করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।&nbsp;</strong></p>

অন্যদিকে ব্রিটিশ স্বাস্থ্য সচিব ম্যাট গ্যানকক বলেছেন করোনার নতুন রূপটি নিয়ন্ত্রণের বাইরে রয়েছে। তবে নতুন স্ট্রেন থেকে মারাত্মক অসুস্থতার কোনও প্রমাণ এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি বলে দাবি করে করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। 

Today's Poll

একসঙ্গে কতজন প্লেয়ারের সঙ্গে খেলতে পছন্দ করেন