'আলোচনায় কতদূর সমাধান বেরোবে কোনও গ্যারান্টি নেই', লাদাখ থেকে এবার সোজাসুজি রণহুঙ্কার রাজনাথের

First Published 17, Jul 2020, 1:46 PM

লাদাখ সীমান্ত এখনও জারি রয়েছে চাপা উত্তেজনা। বস্তুত চিন কিছুটা সেনা সরালেও পূর্ব লাদাখে ফিঙ্গার এলাকা থেকে সম্পূর্ণ ভাবে সেনা সরাতে নারাজ রয়েছে চিন। তবে এই দাবিতে অনড় নয়াদিল্লিও। তাই এই মুহূর্তে চিনা সেনার গতি প্রকৃতি বুঝে এখনই সেনা সরাতে চাইছে না কেন্দ্র। আর এই পরিস্থিতিতেই ২ দিনের সফরে লাদাখে পৌঁছলেন দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। 
 

<p><strong>শুক্রবার সকাল ৬ টা নাগাদ লাদাখ পরিদর্শনের জন্য রওনা দেন রাজনাথ সিং। লাদাখ ও জম্মু কাশ্মীরে দু’দিনের সফরে তাঁর সঙ্গে রয়েছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত এবং সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারভানে।</strong></p>

শুক্রবার সকাল ৬ টা নাগাদ লাদাখ পরিদর্শনের জন্য রওনা দেন রাজনাথ সিং। লাদাখ ও জম্মু কাশ্মীরে দু’দিনের সফরে তাঁর সঙ্গে রয়েছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত এবং সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারভানে।

<p><strong>শুক্রবার লাদাখ সফর করছেন রাজনাথ সিং। এরপর শনিবার শ্রীনগর সফর করবেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী।</strong></p>

শুক্রবার লাদাখ সফর করছেন রাজনাথ সিং। এরপর শনিবার শ্রীনগর সফর করবেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

<p><strong>দু’দিনের সফরে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখে ভারতীয় সেনার ফরওয়ার্ড পোস্টগুলিতে যান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। </strong></p>

দু’দিনের সফরে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখে ভারতীয় সেনার ফরওয়ার্ড পোস্টগুলিতে যান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। 

<p><strong>লেহর স্তাকনা ফরওয়ার্ড বেসে জওয়ানদের বিমান থেকে প্যারাশুট বেঁধে নামার মহড়া দেখেন রাজনাথ।</strong></p>

লেহর স্তাকনা ফরওয়ার্ড বেসে জওয়ানদের বিমান থেকে প্যারাশুট বেঁধে নামার মহড়া দেখেন রাজনাথ।

<p><strong> সীমান্তে সৈনিকদের অস্ত্রশস্ত্রগুলিও হাতে নিয়ে পরখ করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। সেনার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখে শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনাও করেন।</strong><br />
 </p>

 সীমান্তে সৈনিকদের অস্ত্রশস্ত্রগুলিও হাতে নিয়ে পরখ করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। সেনার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখে শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনাও করেন।
 

<p><strong> চলতি মাসের শুরুর দিকেই লাদাখ সফরে যাওয়ার কথা ছিল রাজনাথ সিংয়ের। তবে সেই সফর পিছিয়ে দেওয়া হয়। তার জায়গায় জুলাই মাসের ৩ তারিখ লাদাখ যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। </strong><br />
 </p>

 চলতি মাসের শুরুর দিকেই লাদাখ সফরে যাওয়ার কথা ছিল রাজনাথ সিংয়ের। তবে সেই সফর পিছিয়ে দেওয়া হয়। তার জায়গায় জুলাই মাসের ৩ তারিখ লাদাখ যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 
 

<p><strong>রাজনাথের লাদাখ সফর পরোক্ষে চিনকে বার্তা বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায়  চিনের সঙ্গে চলা টানাপোড়েনের মধ্যেই  বৃহস্পতিবার বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব সাফ জানিয়ে দেন, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা নিয়ে ভারতের অবস্থান বিন্দুমাত্র বদলায়নি। একতরফা ভাবে সেখানে স্থিতাবস্থা বদলের কোনও চেষ্টাই মানা হবে না।</strong></p>

রাজনাথের লাদাখ সফর পরোক্ষে চিনকে বার্তা বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায়  চিনের সঙ্গে চলা টানাপোড়েনের মধ্যেই  বৃহস্পতিবার বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব সাফ জানিয়ে দেন, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা নিয়ে ভারতের অবস্থান বিন্দুমাত্র বদলায়নি। একতরফা ভাবে সেখানে স্থিতাবস্থা বদলের কোনও চেষ্টাই মানা হবে না।

<p><strong>ভারত এবং চিন - দু'পক্ষই চায় সীমান্তে স্থিতাবস্থা ফিরিয়ে আনতে। তবে প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত জটিল এবং প্রতি ধাপে এর উপর নজর রেখে চলতে হবে। দুই দেশের সামরিক কর্তাদের মধ্যে হওয়া ১৫ ঘণ্টার বৈঠক নিয়ে বৃহস্পতিবার এমনই বিবৃতি দিয়েছে ভারতীয় সেনা। </strong></p>

ভারত এবং চিন - দু'পক্ষই চায় সীমান্তে স্থিতাবস্থা ফিরিয়ে আনতে। তবে প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত জটিল এবং প্রতি ধাপে এর উপর নজর রেখে চলতে হবে। দুই দেশের সামরিক কর্তাদের মধ্যে হওয়া ১৫ ঘণ্টার বৈঠক নিয়ে বৃহস্পতিবার এমনই বিবৃতি দিয়েছে ভারতীয় সেনা। 

<p><strong>ইতিমধ্যেই পূর্ব লাদাখে আরও ৬০ হাজার সেনা জওয়ান মোতায়েন করেছে ভারত। মোতায়েন করা হয়েছে ভীষ্ম ট্যাঙ্ক, অ্যাপাচে অ্যাটাক হেলিকপ্টার, সুখোই ফাইটার জেট, চিনুক ও রুদ্র হেলিকপ্টার। চিন সীমান্তে চলছে ভারতীয় সেনার কড়া নজরদারি।</strong></p>

ইতিমধ্যেই পূর্ব লাদাখে আরও ৬০ হাজার সেনা জওয়ান মোতায়েন করেছে ভারত। মোতায়েন করা হয়েছে ভীষ্ম ট্যাঙ্ক, অ্যাপাচে অ্যাটাক হেলিকপ্টার, সুখোই ফাইটার জেট, চিনুক ও রুদ্র হেলিকপ্টার। চিন সীমান্তে চলছে ভারতীয় সেনার কড়া নজরদারি।

<p><br />
<strong>প্রধানমন্ত্রী লাদাখের নিমু থেকে নাম না করেই চিনকে আগ্রাসন নিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। সেই একই পথে এগোলেন রাজনাথ সিংও।  স্তাকনা ফরওয়ার্ড বেসে প্রতিরক্ষামন্ত্রী সেনার পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, ভারতের এক ইঞ্চি জমি স্পর্শ করার ক্ষমতা নেই দুনিয়ার কোনও শক্তিরই। </strong></p>


প্রধানমন্ত্রী লাদাখের নিমু থেকে নাম না করেই চিনকে আগ্রাসন নিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। সেই একই পথে এগোলেন রাজনাথ সিংও।  স্তাকনা ফরওয়ার্ড বেসে প্রতিরক্ষামন্ত্রী সেনার পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, ভারতের এক ইঞ্চি জমি স্পর্শ করার ক্ষমতা নেই দুনিয়ার কোনও শক্তিরই। 

<p><strong> রাজনাথ বলেন, ‘‘আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সীমান্ত বিরোধ মেটানোর চেষ্টা চলছে। কিন্তু তা কতটা মেটানো যাবে, সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে  কিছু বলতে পারছি না। তবে একটা কথা নিশ্চিত ভাবে বলতে পারি, পৃথিবীর কোনও শক্তিশালী দেশ আমাদের এক ইঞ্চি জমিও কেড়ে নিতে পারবে না। তবে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান হয়ে গেলে, তার চেয়ে ভাল কিছু হয় না।’’</strong></p>

 রাজনাথ বলেন, ‘‘আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সীমান্ত বিরোধ মেটানোর চেষ্টা চলছে। কিন্তু তা কতটা মেটানো যাবে, সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে  কিছু বলতে পারছি না। তবে একটা কথা নিশ্চিত ভাবে বলতে পারি, পৃথিবীর কোনও শক্তিশালী দেশ আমাদের এক ইঞ্চি জমিও কেড়ে নিতে পারবে না। তবে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান হয়ে গেলে, তার চেয়ে ভাল কিছু হয় না।’’

<p><strong>গত মাসে চিনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে গালওয়ানে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান প্রাণ হারান। তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করে রাজনাথ বলেন, ‘‘সম্প্রতি পিপি ১৪-এ ভারতীয় জওয়ান ও চিনাবাহিনীর মধ্যে যা ঘটেছে, তাতে সীমান্ত রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন আমাদের বেশ কিছু জওয়ান। আজ এখানে এসে ভাল লাগলেও, তাঁদের মৃত্যুতে শোকাহত আমি। ওঁদের শ্রদ্ধা জানাই।’’</strong></p>

গত মাসে চিনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে গালওয়ানে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান প্রাণ হারান। তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করে রাজনাথ বলেন, ‘‘সম্প্রতি পিপি ১৪-এ ভারতীয় জওয়ান ও চিনাবাহিনীর মধ্যে যা ঘটেছে, তাতে সীমান্ত রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন আমাদের বেশ কিছু জওয়ান। আজ এখানে এসে ভাল লাগলেও, তাঁদের মৃত্যুতে শোকাহত আমি। ওঁদের শ্রদ্ধা জানাই।’’

loader