২ অক্টোবর থেকে খুলছে আলিপুর-সহ রাজ্য়ের সব চিড়িয়াখানা, পুজোর আগেই চালু জঙ্গল পর্যটনও

First Published 18, Sep 2020, 5:30 PM

 
 দীর্ঘ লকডাউনের কোপে কলকাতার সকল দর্শনীয় স্থান। খাঁচা বন্দী বাঘমামারাও খানিকটা তাজ্জব অপরিচিত মুখগুলি গেল কোথায়। তবে না এবার সব অপেক্ষা শেষ। পুজোর আগেই সুখবর। আগামী ২ অক্টোবারেই খুলে যাচ্ছে আলিপুর সহ রাজ্যের সব চিড়িয়াখানা। অনলাইনে সমস্ত বুকিং শুরু হবে ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে।  ১০ বছরের নীচে বা ৬৫ বছরের উপরে কাউকে নিয়ে ভ্রমণ করলে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

<p><br />
&nbsp;দীর্ঘ লকডাউনের কোপে কলকাতার সকল দর্শনীয় স্থান। খাঁচা বন্দী বাঘমামারাও খানিকটা তাজ্জব অপরিচিত মুখগুলি গেল কোথায়। তবে না এবার সব অপেক্ষা শেষ। পুজোর আগেই সুখবর। আগামী ২ অক্টোবারেই খুলে যাচ্ছে আলিপুর সহ রাজ্যের সব চিড়িয়াখানা।</p>


 দীর্ঘ লকডাউনের কোপে কলকাতার সকল দর্শনীয় স্থান। খাঁচা বন্দী বাঘমামারাও খানিকটা তাজ্জব অপরিচিত মুখগুলি গেল কোথায়। তবে না এবার সব অপেক্ষা শেষ। পুজোর আগেই সুখবর। আগামী ২ অক্টোবারেই খুলে যাচ্ছে আলিপুর সহ রাজ্যের সব চিড়িয়াখানা।

<p><br />
প্রসঙ্গত রাজ্য়ে করোনা আবহে, বন্ধ হয়ে যায় ১৭ মার্চ থেকে সব চিড়িয়াখানা-সহ পার্ক, উদ্য়ান । আবার স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে চলেছে এই সকল পর্যটন কেন্দ্র। তবে সেজন্য মেনে চলতে হবে একাধিক নিয়ম। এমনটাই জানিয়েছে রাজ্য সরকার।</p>


প্রসঙ্গত রাজ্য়ে করোনা আবহে, বন্ধ হয়ে যায় ১৭ মার্চ থেকে সব চিড়িয়াখানা-সহ পার্ক, উদ্য়ান । আবার স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে চলেছে এই সকল পর্যটন কেন্দ্র। তবে সেজন্য মেনে চলতে হবে একাধিক নিয়ম। এমনটাই জানিয়েছে রাজ্য সরকার।

<p><br />
প্রথমত এবার থেকে যেকোনও জায়গায় প্রবেশের বুকিং করতে হবে অনলাইনে। অনলাইনে সমস্ত বুকিং শুরু হবে ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে।&nbsp;</p>


প্রথমত এবার থেকে যেকোনও জায়গায় প্রবেশের বুকিং করতে হবে অনলাইনে। অনলাইনে সমস্ত বুকিং শুরু হবে ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে। 

<p>দ্বিতীয়ত ১০ বছরের নীচে বা ৬৫ বছরের উপরে কাউকে নিয়ে ভ্রমণ করলে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। তৃতীয়ত, পর্যটকদের কোভিড বিধি মানতে হবে। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক।</p>

দ্বিতীয়ত ১০ বছরের নীচে বা ৬৫ বছরের উপরে কাউকে নিয়ে ভ্রমণ করলে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। তৃতীয়ত, পর্যটকদের কোভিড বিধি মানতে হবে। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক।

<p><br />
চতুর্থত, বোটিং বা পার্কে কোনও সামগ্রী ব্য়বহারের আগে স্য়ানিটাইজ করে নিতে হবে। আপাতত হাতি সাফারি বন্ধ থাকবে।পঞ্চমত, কোভিড সংক্রমণের আশঙ্কা দেখা দিলে যে কোনও সময় পার্ক বা চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ আংশিকভাবে বন্ধ করতে পারেন।</p>


চতুর্থত, বোটিং বা পার্কে কোনও সামগ্রী ব্য়বহারের আগে স্য়ানিটাইজ করে নিতে হবে। আপাতত হাতি সাফারি বন্ধ থাকবে।পঞ্চমত, কোভিড সংক্রমণের আশঙ্কা দেখা দিলে যে কোনও সময় পার্ক বা চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ আংশিকভাবে বন্ধ করতে পারেন।

<p>জাতীয় উদ্য়ান বা অভয়ারণ্য়ে আধিকারিকের গাড়ি ছাড়া কারো গাড়ি ভিতরে ঢুকতে পারবে না। পর্যটকদের গাড়িতে সর্বোচ্চ ২০ জনের বেশি বসতে দেওয়া হবে না। ইোক ট্যুরিজম যে কোনও থাকার জায়গায় দিনে ২ বার জীবাণুমক্ত করতে হবে।</p>

জাতীয় উদ্য়ান বা অভয়ারণ্য়ে আধিকারিকের গাড়ি ছাড়া কারো গাড়ি ভিতরে ঢুকতে পারবে না। পর্যটকদের গাড়িতে সর্বোচ্চ ২০ জনের বেশি বসতে দেওয়া হবে না। ইোক ট্যুরিজম যে কোনও থাকার জায়গায় দিনে ২ বার জীবাণুমক্ত করতে হবে।

loader