বিকেলের পরই ব্রজবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা, এখনই কাটছে না দুর্যোগ

First Published 6, Mar 2020, 9:05 AM IST

শীতের শুরু থেকে শেষ, মাঝে মধ্যেই থাবা বসিয়েছে বৃষ্টি। আকাশের পরিস্থিতি গত তিন দিন ব্যাপী মেঘলা। সকাল থেকেই অস্বস্তিকর পরিবেশ। দুপুর হলেই ঝোড়ো হাওয়া। রাতে বৃষ্টি। আর কতদিন থাকবে এমন আবহাওয়া। 

বৃহস্পতিবার মেঘলা আকাশ থাকলেও সেভাবে বৃষ্টির দেখা মেলেনি দক্ষিণবঙ্গে। মাঝে মধ্যে মিলেছিল ঝোড়ো হাওয়া।

বৃহস্পতিবার মেঘলা আকাশ থাকলেও সেভাবে বৃষ্টির দেখা মেলেনি দক্ষিণবঙ্গে। মাঝে মধ্যে মিলেছিল ঝোড়ো হাওয়া।

বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিল বৃহস্পতিবার দিনও। কিন্তু এদিন সেভাবে বৃষ্টি হয়নি। মাঝে মধ্যে ছিটে ফোঁটা বৃষ্টি বিক্ষিপ্তভাবে দেখা দিয়েছিল।

বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিল বৃহস্পতিবার দিনও। কিন্তু এদিন সেভাবে বৃষ্টি হয়নি। মাঝে মধ্যে ছিটে ফোঁটা বৃষ্টি বিক্ষিপ্তভাবে দেখা দিয়েছিল।

তবে এখনই কাটছে না দুর্যোগ। শুত্রবারও রয়ছে বৃষ্টির পূর্বাভাস।

তবে এখনই কাটছে না দুর্যোগ। শুত্রবারও রয়ছে বৃষ্টির পূর্বাভাস।

শুক্রবার বিকেল থেকেই আবারও বইবে ঝোড়ো হাওয়া। সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা।

শুক্রবার বিকেল থেকেই আবারও বইবে ঝোড়ো হাওয়া। সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা।

মেঘলা আকাশ থাকার কারণে আদ্রতা জণিত অস্বস্তি বজায় থাকবে।

মেঘলা আকাশ থাকার কারণে আদ্রতা জণিত অস্বস্তি বজায় থাকবে।

এদিন দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও দিনের সর্বোনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২১ ডিগ্রি।

এদিন দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও দিনের সর্বোনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২১ ডিগ্রি।

এমন পরিস্থিতি বহাল থাকবে শনিবার বিকেল পর্যন্ত। মাঝে মধ্যেই দেখা মিলবে বৃষ্টির।

এমন পরিস্থিতি বহাল থাকবে শনিবার বিকেল পর্যন্ত। মাঝে মধ্যেই দেখা মিলবে বৃষ্টির।

বাতাসের গতিবেগ থাকবে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায়।

বাতাসের গতিবেগ থাকবে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায়।

দিনের আপেক্ষিক আদ্রতা থাকবে ৮৮ শতাংশ। তবে শনিবার আবারও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

দিনের আপেক্ষিক আদ্রতা থাকবে ৮৮ শতাংশ। তবে শনিবার আবারও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম, বিহার, ঝাড়খন্ড, ছত্রিশগড়, মধ্যপ্রদেশ ও উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে।

মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম, বিহার, ঝাড়খন্ড, ছত্রিশগড়, মধ্যপ্রদেশ ও উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে।

loader