যৌন মিলনকে দীর্ঘস্থায়ী করতে সক্ষম, সোনার থেকে তিনগুন চড়া দাম এই 'হিমালয়ান ভায়াগ্রা'র

First Published 16, Jul 2020, 2:24 PM

'হিমালয়ান  ভায়াগ্রা', যা প্রায় বিলুপ্ত। এবার বিলুপ্ত প্রায় প্রজাতির আওতাভুক্ত হল  এই 'হিমালয়ান ভায়াগ্রা'। দামী প্রজাতির এই ফাঙ্গাসই হিমালয়ান ভায়গ্রা নামে পরিচিত। এর দাম শুনলে চক্ষু চড়কগাছ হবে। আন্তর্জাতিক বাজারে কেজি প্রতি এর দাম প্রায় ২০ লক্ষ টাকার কাছাকাছি। কিন্তু তা এবার বিলুপ্ত প্রায় প্রজাতির আওতাভুক্ত হল।  ইন্টারন্যাশানাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অফ নেচারের পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে, এবার থেকে লাল তালিকার আওতাভুক্ত হল এই 'হিমালয়ান ভায়াগ্রা'। বর্তমানে বেজিং-এ সোনার থেকে তিন গুন বেশি চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে এই ছত্রাক। 

<p> বিশেষ প্রজাতির এই ভায়াগ্রার পরিমাণ গত ১৫ বছর ধরে  কমে গিয়েছে ৩০ শতাংশ। তবে শুধু এটিই নয়, আরও বেশ কিছু জীব বৈচিত্রে ঘাটতি তৈরি হয়েছে। যা উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।</p>

 বিশেষ প্রজাতির এই ভায়াগ্রার পরিমাণ গত ১৫ বছর ধরে  কমে গিয়েছে ৩০ শতাংশ। তবে শুধু এটিই নয়, আরও বেশ কিছু জীব বৈচিত্রে ঘাটতি তৈরি হয়েছে। যা উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

<p>এই জাতীয় ফাঙ্গাসকে 'কীরা জরি' বলেও ডাকা হয়। এগুলি মূলত উত্তরাখণ্ডে পাওয়া যায়। </p>

এই জাতীয় ফাঙ্গাসকে 'কীরা জরি' বলেও ডাকা হয়। এগুলি মূলত উত্তরাখণ্ডে পাওয়া যায়। 

<p>দিও এই ফাঙ্গাসের সংখ্যাও অনেকটাই কমছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন,  এই ফাঙ্গাস গুলিকে লাল তালিকা ভুক্ত করার একটাই কারণ যাতে সরকার এই বিষয়গুলি আরও ভাল করে দেখাশোনা করতে পারে। এবং এদের খেয়াল রাখতে পারে।</p>

দিও এই ফাঙ্গাসের সংখ্যাও অনেকটাই কমছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন,  এই ফাঙ্গাস গুলিকে লাল তালিকা ভুক্ত করার একটাই কারণ যাতে সরকার এই বিষয়গুলি আরও ভাল করে দেখাশোনা করতে পারে। এবং এদের খেয়াল রাখতে পারে।

<p>চিন, ভুটান, নেপালে পাওয়া গেলেও এই ফাঙ্গাস ভারতের একমাত্র উত্তরাখণ্ডেই পাওয়া যায়। </p>

চিন, ভুটান, নেপালে পাওয়া গেলেও এই ফাঙ্গাস ভারতের একমাত্র উত্তরাখণ্ডেই পাওয়া যায়। 

<p><br />
এই ফাঙ্গাসকে লাল তালিকা ভুক্ত করার পর সমস্যা হবে উত্তরাখণ্ডের একাধিক মানুষের। কারণ সেখানকার গ্রামের বেশিরভাগ বাসিন্দারাই দিনাতিপাত করে এই ফাঙ্গাস সংগ্রহ করেই।  </p>


এই ফাঙ্গাসকে লাল তালিকা ভুক্ত করার পর সমস্যা হবে উত্তরাখণ্ডের একাধিক মানুষের। কারণ সেখানকার গ্রামের বেশিরভাগ বাসিন্দারাই দিনাতিপাত করে এই ফাঙ্গাস সংগ্রহ করেই।  

<p>সেই কারণেই লাল তালিকা ভুক্ত হওয়ার পরই  অসুবিধার মধ্যে পড়বে তারা। স্থানীয় বাজারে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা কেজি প্রতি বিক্রি কড়া হয় এই ফাঙ্গাস। কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে এর  দাম আরও বাড়ে। </p>

সেই কারণেই লাল তালিকা ভুক্ত হওয়ার পরই  অসুবিধার মধ্যে পড়বে তারা। স্থানীয় বাজারে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা কেজি প্রতি বিক্রি কড়া হয় এই ফাঙ্গাস। কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে এর  দাম আরও বাড়ে। 

<p>বিশ্বের মূল্যবান মহৌষধিগুলির মধ্যে এটি একটি। এই ছত্রাক খেলে যৌন অক্ষমতা বা ক্যান্সারের মত সমস্যা সেরে যায়।</p>

বিশ্বের মূল্যবান মহৌষধিগুলির মধ্যে এটি একটি। এই ছত্রাক খেলে যৌন অক্ষমতা বা ক্যান্সারের মত সমস্যা সেরে যায়।

<p>যৌন সক্ষমকে  দীর্ঘস্থায়ী করে এই ছত্রাক। এখনও পর্যন্ত কৃত্রিম ভাবে এই ছত্রাক তৈরি করা সম্ভব হয়নি। </p>

যৌন সক্ষমকে  দীর্ঘস্থায়ী করে এই ছত্রাক। এখনও পর্যন্ত কৃত্রিম ভাবে এই ছত্রাক তৈরি করা সম্ভব হয়নি। 

<p>বর্তমানে বেজিং-এ সোনার থেকে তিন গুন বেশি চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে এই ছত্রাক। সারা পৃথিবীতে এই ছত্রাক পাওয়া যায় শুধুমাত্র  হিমালয়েই।</p>

বর্তমানে বেজিং-এ সোনার থেকে তিন গুন বেশি চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে এই ছত্রাক। সারা পৃথিবীতে এই ছত্রাক পাওয়া যায় শুধুমাত্র  হিমালয়েই।

<p>চিকিৎসকরাও জানিয়েছেন, এই ছত্রাক সেবনে যৌনসুখ আরও বেশি উপভোগ করা যায়।</p>

চিকিৎসকরাও জানিয়েছেন, এই ছত্রাক সেবনে যৌনসুখ আরও বেশি উপভোগ করা যায়।

<p> আর সেই যৌনসুখের কারণেই এই ছত্রাকের বিপুল চাহিদা রয়েছে সারা বিশ্বে।</p>

 আর সেই যৌনসুখের কারণেই এই ছত্রাকের বিপুল চাহিদা রয়েছে সারা বিশ্বে।

loader