ভারতীয়দের জঙ্গি প্রমাণ করতে গিয়ে ল্যাজে গোবরে ইমরান, ফের রাষ্ট্রসংঘে মুখ পুড়ল পাকিস্তানের

First Published 3, Sep 2020, 5:25 PM


রাষ্ট্রসংঘে বড় ধাক্কা খেল পাকিস্তান। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ভারতকে বদনাম করতে গিয়ে আরও একবার মুখ পুড়ল ইসলামাবাদের। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ১২৬৭ কমিটির আওতায় দুজন ভারতীয়কে সন্ত্রাসবাদী তালিকাভুক্ত করার ইসলামাবাদের প্রয়াসে বাধা দিল আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, বেলজিয়াম-নিরাপত্তা পরিষেদের ৫ সদস্য দেশ। 

<p><strong>ভারতের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করতে গিয়ে ফের ব্যর্থ হল পাকিস্তান। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১২৬৭ কমিটির সাহায্যে দুই ভারতীয় নাগরিককে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদীর তকমা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল ইমরানের সরকার।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

ভারতের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করতে গিয়ে ফের ব্যর্থ হল পাকিস্তান। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১২৬৭ কমিটির সাহায্যে দুই ভারতীয় নাগরিককে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদীর তকমা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল ইমরানের সরকার। 
 

<p><br />
<strong>&nbsp;তাদের সেই উদ্দেশ্য পূরণ হল না। আন্তর্জাতিক মহলের সাহায্যে নয়াদিল্লিকে কোণঠাসা করতে গিয়ে নিজেদেরই মুখ পোড়াল ইসলামাবাদ।</strong></p>


 তাদের সেই উদ্দেশ্য পূরণ হল না। আন্তর্জাতিক মহলের সাহায্যে নয়াদিল্লিকে কোণঠাসা করতে গিয়ে নিজেদেরই মুখ পোড়াল ইসলামাবাদ।

<p><br />
<strong>রাষ্ট্রসংঘ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ-এর ১২৬৭ কমিটির প্রস্তাবনা অনুযায়ী অঙ্গারা আপ্পাজি ও গোবিন্দ পটনায়েক নামে দুই ভারতীয় নাগরিককে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদীর তকমা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>


রাষ্ট্রসংঘ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ-এর ১২৬৭ কমিটির প্রস্তাবনা অনুযায়ী অঙ্গারা আপ্পাজি ও গোবিন্দ পটনায়েক নামে দুই ভারতীয় নাগরিককে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদীর তকমা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান। 
 

<p><strong>এর জন্য নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবও পেশ করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু, এর স্বপক্ষে কোনও প্রমাণ জমা দিতে পারেনি তারা।&nbsp;</strong></p>

এর জন্য নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবও পেশ করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু, এর স্বপক্ষে কোনও প্রমাণ জমা দিতে পারেনি তারা। 

<p><strong>তাই ইসলামাবাদের এই প্রস্তাব পত্রপাঠ বাতিল করে দেয় আমেরিকা, ফ্রান্স, জার্মানি, বেলজিয়াম ও ব্রিটেন।</strong></p>

তাই ইসলামাবাদের এই প্রস্তাব পত্রপাঠ বাতিল করে দেয় আমেরিকা, ফ্রান্স, জার্মানি, বেলজিয়াম ও ব্রিটেন।

<p><strong>পাকিস্তানের প্রচেষ্টা ছিল নিজেদের মতো ভারতকেও দাগী বানানোর। কিন্তু ভারতীয় নাগরিকদের জঙ্গি আখ্যা দেওয়ার জন্য পাকিস্তান কোন প্রমাণই পেশ করতে পারেনি। পাকিস্তানের এই প্রয়াস জইশ এর প্রধান মাসুদ আজাহারকে বৈশ্বিক জঙ্গি হিসেবে আখ্যা দেওয়া ভারতের সফলতার জবাব হিসেবে নেওয়া হয়েছিল। পাকিস্তান যেই চার ভারতীয় নাগরিককে বৈশ্বিক জঙ্গি আখ্যা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল তাঁরা হল, আঙ্গারা আপ্পাজি, গোবিন্দ পট্টনায়ক, অজয় মিস্ত্রি আর বেনুমাধব ডোংরা।</strong></p>

পাকিস্তানের প্রচেষ্টা ছিল নিজেদের মতো ভারতকেও দাগী বানানোর। কিন্তু ভারতীয় নাগরিকদের জঙ্গি আখ্যা দেওয়ার জন্য পাকিস্তান কোন প্রমাণই পেশ করতে পারেনি। পাকিস্তানের এই প্রয়াস জইশ এর প্রধান মাসুদ আজাহারকে বৈশ্বিক জঙ্গি হিসেবে আখ্যা দেওয়া ভারতের সফলতার জবাব হিসেবে নেওয়া হয়েছিল। পাকিস্তান যেই চার ভারতীয় নাগরিককে বৈশ্বিক জঙ্গি আখ্যা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল তাঁরা হল, আঙ্গারা আপ্পাজি, গোবিন্দ পট্টনায়ক, অজয় মিস্ত্রি আর বেনুমাধব ডোংরা।

<p><strong>পাকিস্তান অভিযোগ করে জানায় যে, এরা সবাই আফগানিস্তানের জঙ্গি সংগঠনের অংশ। এরা তেহরিক-এ-তালিবান আর জামাত-উল-অজরার দ্বারা জঙ্গি হামলা সংগঠিত করতে সাহায্য করেছিল।</strong></p>

পাকিস্তান অভিযোগ করে জানায় যে, এরা সবাই আফগানিস্তানের জঙ্গি সংগঠনের অংশ। এরা তেহরিক-এ-তালিবান আর জামাত-উল-অজরার দ্বারা জঙ্গি হামলা সংগঠিত করতে সাহায্য করেছিল।

<p><br />
<strong>পাকিস্তানের এই প্রচেষ্টাকে আমেরিকা, ব্রিটেন, জার্মানি, ফ্রান্স আর বেলজিয়াম রুখে দেয়। এরা পাকিস্তানের কাছে ভারতের এই নাগরিকদের জঙ্গি আখ্যা দেওয়ার জন্য নির্দিষ্ট প্রমাণ চেয়েছিল।&nbsp;</strong></p>


পাকিস্তানের এই প্রচেষ্টাকে আমেরিকা, ব্রিটেন, জার্মানি, ফ্রান্স আর বেলজিয়াম রুখে দেয়। এরা পাকিস্তানের কাছে ভারতের এই নাগরিকদের জঙ্গি আখ্যা দেওয়ার জন্য নির্দিষ্ট প্রমাণ চেয়েছিল। 

<p><strong>সুত্র থেকে জানা যায় যে, মিস্ত্রি আর ডোংরাকে পাকিস্তান মাসখানেক আগেই &nbsp;বৈশ্বিক জঙ্গি আখ্যা দিতে চেয়েছিল। তখনই তাঁদের এই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়।</strong></p>

সুত্র থেকে জানা যায় যে, মিস্ত্রি আর ডোংরাকে পাকিস্তান মাসখানেক আগেই  বৈশ্বিক জঙ্গি আখ্যা দিতে চেয়েছিল। তখনই তাঁদের এই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়।

<p><strong>&nbsp;আর বুধবার বাকি দুজনকেও নিরাপত্তা পরিষদ বৈশ্বিক জঙ্গির তকমা দেবে না বলে জানিয়ে দেয়। রাষ্ট্রসংঘের &nbsp;তরফ থেকে জানানো হয় যে, এই চারজনকে জঙ্গি তকমা দেওয়ার জন্য পাকিস্তান কোন প্রমাণ দিতে পারেনি।</strong></p>

 আর বুধবার বাকি দুজনকেও নিরাপত্তা পরিষদ বৈশ্বিক জঙ্গির তকমা দেবে না বলে জানিয়ে দেয়। রাষ্ট্রসংঘের  তরফ থেকে জানানো হয় যে, এই চারজনকে জঙ্গি তকমা দেওয়ার জন্য পাকিস্তান কোন প্রমাণ দিতে পারেনি।

<p><strong>নিরাপত্তা পরিষদ সদস্যরা পাক প্রতিনিধিদের জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা বরং ওই দুজনের বিরুদ্ধে আরও কিছু অপরাধের তথ্য-প্রমাণ জড়ো করুন, তখন বিষয়টি বিবেচনা করা যাবে।</strong><br />
&nbsp;</p>

নিরাপত্তা পরিষদ সদস্যরা পাক প্রতিনিধিদের জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা বরং ওই দুজনের বিরুদ্ধে আরও কিছু অপরাধের তথ্য-প্রমাণ জড়ো করুন, তখন বিষয়টি বিবেচনা করা যাবে।
 

<p><strong>এই বিষয়টির কথা উল্লেখ করে পাকিস্তানের অপচেষ্টা রোখার জন্য নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের ধন্যবাদ জানান রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি।&nbsp;</strong></p>

এই বিষয়টির কথা উল্লেখ করে পাকিস্তানের অপচেষ্টা রোখার জন্য নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের ধন্যবাদ জানান রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি। 

<p><strong>তিরুমূর্তি ট্যুইট করেন, ‘রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্ত পরিষদের ১২৬৭ কমিটির কার্যপদ্ধতিতে ধর্মীয় রং লাগানোর চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু, তাদের এই উদ্দেশ্য ব্যর্থ করেছে নিরাপত্তা পরিষদ। পাকিস্তানের এই অপচেষ্টা যারা রুখেছে নিরাপত্তা পরিষদের সেই সমস্ত সদস্যদের ধন্যবাদ জানাই।’</strong></p>

তিরুমূর্তি ট্যুইট করেন, ‘রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্ত পরিষদের ১২৬৭ কমিটির কার্যপদ্ধতিতে ধর্মীয় রং লাগানোর চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু, তাদের এই উদ্দেশ্য ব্যর্থ করেছে নিরাপত্তা পরিষদ। পাকিস্তানের এই অপচেষ্টা যারা রুখেছে নিরাপত্তা পরিষদের সেই সমস্ত সদস্যদের ধন্যবাদ জানাই।’

loader